ফটিকছড়ির বখতপুরের বাবর’র পুরো পরিবারই ইয়াবা ব্যবসায়ী!

newsgarden24.com    ১১:২২ পিএম, ২০২২-০৮-১৯    203


ফটিকছড়ির বখতপুরের বাবর’র পুরো পরিবারই ইয়াবা ব্যবসায়ী!

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: প্রথমে ফটিকছড়ির বখতপুরের বাবর উদ্দিন ইয়াবা ব্যবসা শুরু করেন। বনে যান ইয়াবা সম্রাটে। বাবর তিন ভাই দুই বোনের মধ্যে সবার ছোট। পূর্বে তাদের পারিবারিক অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। বর্তমানে তারা ইয়াবা ব্যবসা করে গাড়ি বাড়িসহ স্থাবর অস্থাবর অঢেল সম্পদের মালিক বনে গেছে। আরো জানা যায়, নানার বাড়ি টেকনাফে হওয়ার সুবাদে সহজে ইয়াবা ব্যবসায় তাদের আগমন ঘটে। দ্রুত বড় লোক হতে পারিবারিকভাবে ইয়াবা ব্যবসায় জড়িয়েছে বাবর উদ্দিন। এ ব্যবসায় তার নিজের বড় ও ছোট ভাইকেও যোগ করেছে।
ধীরে ধীরে চাহিদা ও ব্যবসা বৃদ্ধি পাওয়ায

তাদের অপর ভাই জামাল পাশা দুলাল ব্যাংকিং পেশার সুবাদে হাটহাজারীর মুনিয়া পুকুর পাড়ের ব্যাংকে দায়িত্ব নিয়ে বাড়িতে না থেকে অক্সিজেন এলাকায় বাসা নিয়ে তাদের ব্যবসার হাল ধরে এই অবৈধ ব্যবসার পরিধি আরো বৃদ্ধি করে।

সেই ব্যবসাকে আরো নির্বিঘ্ন করতে বাবর উদ্দিনকে টেকনাফে তাদের এক মামতো বোনের সাথে বিয়ের ব্যবস্থা করে। এতে নানা বাড়ি ও বিবাহ সূত্রে আবদ্ধ দুই বোন ও এক ভাইয়ের নিকট আত্মীয়দের কাজে লাগিয়ে মাদক পাচারে টেকনাফ কক্সবাজার অক্সিজেন হয়ে ফটিকছড়িতে ইয়াবার একটি নিরাপদ রোড তৈরি করে বাবর উদ্দিন। বড় এক ভাইয়ের ব্যাংক পেশা ও অপর এক ভাইয়ের রাজনীতির ছত্রছায়ায় কোন বাধা ছাড়া আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নাকের ডগায় ইয়াবা ব্যবসা করে, ফটিকছড়ির ইয়াবা সম্রাট বাবর এলাকায় গুটি বাবর হিসাবে পরিচিতি লাভ করে। তাদের অবাধ মাদকের ব্যবসা ও কিশোর গ্যাং এর কারণে ফটিকছড়িবাসী অতিষ্ঠ কিন্তু অজ্ঞাত কারণে তারা ছিল সব সময় আইন শৃঙ্খলাা বাহিনীর  ধরাছোঁয়ার বাইরে।

এলাকায় চাঁদাবাজি, ভূমি দখল ও সন্ত্রাসী কার্যক্রমসহ বিভিন্ন অভিযোগ থাকা স্বত্তেও বারবার পুলিশ তাদেরকে না ধরে, শাক  দিয়ে মাছ ডাকতে, নিরাপরাধ  অন্য এক বাবরকে ধরে নিয়ে যায়। যার কারণে এলাকার অনেক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। বাবর র‌্যাবের হাতে আটক হওয়ায় এলাকাবাসীর বিশ্বাস অন্তত এইবার মানুষ ইয়াবা সম্রাট গুটি বাবরের ও তার পারিবারের হাত থেকে রক্ষা পাবে। এলাকা হবে ইয়াবা ও কিশোর গ্যাং মুক্ত।

আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে জামাল পাশা দুলাল ব্যাংক পেশার অড়ালে এই ব্যবসার নেটওয়ার্ক চট্টগ্রামের পর রাজধানীতেও বিস্তৃত করেছে। সহজলভ্য ইয়াবা সেবনের মাধ্যমে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে এলাকার উঠতি বয়সী স্কুল-কলেজ পড়ুয়া যুবসমাজ। পারিবারিক সিন্ডিকেটের ইয়াবা ব্যবসাকে আড়াল করতে, সেই বিভিন্ন সামাজিক কর্মসূচিতে, তার বড় ভাই কামাল পাশা বাদলকে রাজনীতিতে এবং ছোট ভাই বাবর উদ্দিনকে খেলাধূলাতে সম্পৃক্ত করে রেখেছে। বিয়ে, রাজনৈতিক ও সামাজিক অনুষ্ঠান, ক্লাব মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অনুদানের মাধ্যমে সমাজ সেবার আড়ালে তারা এলাকাকে জিম্মি করে রেখেছে। তাছাড়া এলাকায় রয়েছে তাদের নিজস্ব কিশোর গ্যাং যারা কেউ প্রতিবাদ করলে তাদের উপর চড়াও হয। যার ফলস্বরূপ তাদের ব্যবসা ওপেন সিক্রেট হলেও কেউ তাদের ব্যাপারে বলার সাহস করে না।

এখন দেশজুড়ে চলছে ইয়াবার বাজার। নতুন প্রজন্ম রীতিমতো ইয়াবার প্রেমে উন্মাদ। মাদকের বাজারে কেনাবেচার শীর্ষে রয়েছে সর্বগ্রাসী ইয়াবা। দেশের অভিজাত এলাকা থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও ইয়াবার অভিন্ন আস্তানা গজিয়ে উঠছে। মাদকটি আকারে ছোট হওয়ায় সহজে বহন করা যায়। এ কারণে অন্য মাদকের তুলনায় ইয়াবা সেবনকারী ও বিক্রেতারা খুব সহজে নিরাপদে সেবন ও বিক্রি করতে পারে। যারা ইয়াবা সেবন করে তারাই বিক্রির সঙ্গে জড়িত। আইনের চোখে ফাঁকি দেওয়ার জন্য সাংকেতিক নাম দেওয়া হয়েছে ‘বাবা’। এ ছাড়া বিভিন্ন এলাকায় এটিকে নানা নামে ডাকা হয়। আরও ভয়ঙ্কর তথ্য হলো, দিন দিন ইয়াবায় আসক্ত তরুণীর সংখ্যা বাড়ছে। খারাপ ও বড়লোকের বখে যাওয়া ছেলে -মেয়েদের মাধ্যমে অনেকেই এই জগতে প্রবেশ করছে। অনেকে আবার স্রেফ কৌতূহলের বশেও দু-একবার ইয়াবা সেবন করে স্থায়ীভাবে আসক্ত হয়ে পড়ছে। এদের অধিকাংশই স্কুল, কলেজ, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই ইয়াবার ভয়াবহতা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী থেকে শুরু করে সরকারের দায়িত্বশীল সব মহলকে রীতিমতো ভাবিয়ে তুলেছে।

মিয়ানমার ঘেঁষা কক্সবাজার-বান্দরবান সীমান্ত দিয়েই শুধু নয়, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তেরও অন্তত ৪২টি পয়েন্ট গলিয়ে ঢুকছে ইয়াবা স্রোতের মতো। দেশের অভ্যন্তরেও গড়ে উঠেছে ইয়াবা-বাণিজ্যের সংগঠিত নেটওয়ার্ক। নিরাপদ-নির্বিঘ্ন এ নেটওয়ার্কের মাধ্যমেই দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ছে ভয়ঙ্কর আসক্তি। দেশের বিভিন্ন এলাকায় এখন তা মুড়ি-মুড়কির মতো বিক্রি হচ্ছে। অলিগলি, মোড়ে মোড়ে হাত বাড়ালেই মিলছে ইয়াবা। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তারা বলছেন, উদ্ধার হওয়া ইয়াবা বড়ির সংখ্যা বছরে প্রায় চার কোটিতে এসে ঠেকেছে।

স্থানীয় সূত্রগুলো অভিযোগ করে জানায়, বিভিন্ন সংস্থার একশ্রেণির কর্মকর্তার সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের সখ্য ও গোপন লেনদেন থাকায় ইয়াবার প্রবেশ কোনোভাবেই রোধ হচ্ছে না। টেকনাফের সাগরদ্বীপ, নয়াপাড়া, নাজিরপাড়া, জেলেপাড়ায় প্রতি রাতে বসে ইয়াবার হাট। সেখানে মিয়ানমার থেকে আসা লাখ লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটের পাইকারি বেচাকেনা চলে। ইয়াবা আমদানি ও তা দেশের বিভিন্ন এলাকায় সরবরাহ করার ক্ষেত্রে বেশি প্রভাব খাটানো প্রায় দুই ডজন রাঘব-বোয়াল এখন ইয়াবা আমদানি ও সরবরাহ কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করে চলেছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তদন্ত সংস্থাগুলো ইয়াবার নব্য গডফাদারদের চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে তেমন কোনো ভূমিকা রাখছে না বলেও অভিযোগ উঠেছে।

বাবরের দূরের আত্মীয়তার বন্ধন ধরে রাখতে, বড় বোনকে নিজ মামতো ভাইয়ের সাথে বিয়ে দেয়া হয়। মামার বাড়ি ও বোনের বাড়িতে আসা যাওয়ার সুবাদে, রাজনীতিকে হাতিয়ার করে ইয়াবা আসক্ত তার বড় ভাই কামাল পাশা বাদল প্রকাশ গুটি বাদল প্রথমে ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়ে। পরে ইয়াবা ব্যবসার প্রসারে তার আর এক ছোট বোনকেও মামার পরিবারে বিয়ে দিয়ে তাদের ও নানার বাড়ির পুরো পরিবার এই ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত হয়।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ৩০ হাজার ৮০০ পিস ইয়াবাসহ ফটিকছড়ির বাবর উদ্দিন (৩৩) প্রকাশ গুটি বাবর নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৩। গত সোমবার (১৫ আগস্ট) দিবাগত রাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের আষাঢ়িয়ারচর এলাকা থেকে র‌্যাব-৩ ইযাবাসহ তাকে আটক করে।

জানা যায়, র‌্যাবের হাতে আটক বাবর চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির বখতপুরের ঝর্ণার দীঘি পাড় এলাকার আমির ভূঁইয়ার বাড়ির মৃত মূসার ছেলে।

মঙ্গলবার দুপুরে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-৩ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) বীণা রানী দাস জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোনারগাঁ থেকে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ তাকে আটক করা হয়। আটক বাবর স্বীকার করেছে যে, দীর্ঘদিন যাবত টেকনাফ কক্সবাজার থেকে ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয় করে উত্তর চট্টগ্রাম ও চট্টগ্রাম শহর এলাকাসহ রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে তারা পারিবারিক সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পাইকারী দরে বিক্রয় করে আসছিল। র‌্যাব-৩ জানান, দেশের প্রচলিত আইনে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
এদিকে এ ব্যাপারে জানতে বাবর উদ্দীনের বড় ভাই কামাল পাশা বাদলকে ফোন দিলে তিনি তার ফোন নম্বর কোথায় ফেলেন, আমারে কেন ফোন দিলেন, আপনি উপজেলা চেয়ারম্যান তৈয়বকে চিনেন, বখতপুর ইউনিয়েনের চেয়ারম্যানকে চিনেন বলে হুংকার দেন। আমি যুবলীগ নেতা।
আরেক ভাই জামাল পাশা দুলালকে ফোন দিলে তিনি বলেন আমি ব্যাংকে ছোট একটা চাকুরী করে সংসার চালায়, তাদেরকে আমার দেখভাল করতে হয়। তারা যদি এ ধরনের ভয়ানক কাজ করে সেটার দায় তো আমি নিতে পারি না।

ভুক্তভোগী ও এলাকার সচেতন মহলের দাবি, এখনই যদি তাদেরকে আইনের আওতায আনা না হয়, তবে দেশের তরুণ সমাজ ধ্বংস হবে এবং মানুষের মাঝে অবৈধ কাজের আগ্রহ বাড়বে। কারণ একটা সামান্য ব্যাংকের চাকরির আড়ালে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির এ সময়ে এত বড় পরিবারের ব্যযভার বহন পূর্বক গাড়ি বাড়িসহ শূন্য থেকে অঢেল সম্পদের মালিক হওয়া খুবই আশ্চর্যের ব্যাপার। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে টাকার বিনিময়ে স্থানীয় প্রভাবশালীদের আয়ত্বে রেখে তারা তাদের অবৈধ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। যাহা অর্থলোভী তরুন সমাজকে বিপথগামী করবে বলে এলাকাবাসী মনে করে।

 

 

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল


রিটেলেড নিউজ

জাতীয় নির্বাচন, কোন পথে এগুছে বিএনপি ?

জাতীয় নির্বাচন, কোন পথে এগুছে বিএনপি ?

newsgarden24.com

রিয়াজুর রহমান রিয়াজ: বিএনপি আপাতত ক্ষমতায় যাওয়ার চেস্টা থেকে অনেকটাই সরে এসেছে। এখন দলটির প্রধ... বিস্তারিত

পাহাড়তলীতে জাগো হিন্দু পরিষদের বস্ত্র বিতরণ

পাহাড়তলীতে জাগো হিন্দু পরিষদের বস্ত্র বিতরণ

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: জাগো হিন্দু পরিষদ পাহাড়তলী থানা শাখা চট্টগ্রাম মহানগরের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন ... বিস্তারিত

বিএনপি জামাতের অপরাজনীতি রাজপথে রুখে দেওয়া হবে-হেলাল আকবর চৌধুরী

বিএনপি জামাতের অপরাজনীতি রাজপথে রুখে দেওয়া হবে-হেলাল আকবর চৌধুরী

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রামে বিএনপি-জামাতের অপরাজনীতি রাজপথে রুখে দেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেছেন ... বিস্তারিত

সাতকানিয়ায় জন্মসনদ জালিয়াতি ও যুবক'কে জিম্মি করে বিবাহ, মেয়ের পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

সাতকানিয়ায় জন্মসনদ জালিয়াতি ও যুবক'কে জিম্মি করে বিবাহ, মেয়ের পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: সাতকানিয়া উপজেলায় এক যুবক'কে বাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে জোর পূর্বক এবং জন্মসদন জাল... বিস্তারিত

সম্পন্ন হল সিলেট বিভাগের বাঙলা মূকাভিনয় কর্মশালা

সম্পন্ন হল সিলেট বিভাগের বাঙলা মূকাভিনয় কর্মশালা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বাঙলা মূকাভিনয় গবেষণা কেন্দ্রের সিলেট বিভাগের তিন দিন ব্যাপী মূকাভিনয় কর্মশা... বিস্তারিত

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কোয়ান্টাম সেমিনার অনুষ্ঠিত

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কোয়ান্টাম সেমিনার অনুষ্ঠিত

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: গত ২৯ আগস্ট ২০২২, সোমবার সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১টা “নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্... বিস্তারিত

সর্বশেষ

গণসমাবেশ যুবদলের গণসমাবেশে রূপান্তর করতে যুবদল প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: টুকু

গণসমাবেশ যুবদলের গণসমাবেশে রূপান্তর করতে যুবদল প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: টুকু

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকু বলেছেন, ফ্যাসিষ্ট আওয়া... বিস্তারিত

মানুষের মৌলিক ও ভোটের অধিকারের জন্য কাজ করছে ববি হাজ্জাজ: এমরান চৌধুরী

মানুষের মৌলিক ও ভোটের অধিকারের জন্য কাজ করছে ববি হাজ্জাজ: এমরান চৌধুরী

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: এনডিএম চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি এমরান চৌধুরী বলেছেন, মানুষের মৌলিক ও ভোটের অধি... বিস্তারিত

নাগরিক সেবা প্রদান-গ্রহণের জন্য জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আবশ্যক: বিভাগীয় কমিশনার

নাগরিক সেবা প্রদান-গ্রহণের জন্য জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আবশ্যক: বিভাগীয় কমিশনার

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আশরাফ উদ্দিন বলেছেন, নাগরিক সেবা প্রদান ও গ্রহণ... বিস্তারিত

ধর্ষণ মামলা দিয়ে কায়সার ও জালালকে ফাঁসানোর অভিযোগ পরিবারের

ধর্ষণ মামলা দিয়ে কায়সার ও জালালকে ফাঁসানোর অভিযোগ পরিবারের

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় মো. কায়সার ও জালাল উদ্দিন নামের দুই যুবকের বিরুদ্ধে ধর্... বিস্তারিত