চট্টগ্রামে কিশোর গ্যাং লিডার এখন কাউন্সিলর!

newsgarden24.com    ০১:০৩ পিএম, ২০২২-০৪-২৪    172


চট্টগ্রামে কিশোর গ্যাং লিডার এখন কাউন্সিলর!

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চেরাগি পাহাড় সংলগ্ন রাজাপুর লেইনে দলীয় প্রতিপক্ষের কর্মীদের হাতে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাতে নিহত আসকার বিন তারেক ইভান (১৮) বিএএফ শাহীন কলেজ চট্টগ্রামের শিক্ষার্থী। পুলিশ জানিয়েছে, স্থানীয় জামালখান ওয়ার্ড কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমনের অনুসারী ও নগর ছাত্রলীগের সহসম্পাদক সাব্বির সাদিকের মদদপুষ্ট উঠতি বয়সী কিশোর-তরুণদের দু’পক্ষের মধ্যে সংঘাতে এই খুনের ঘটনা ঘটে। এ সময় বেশ কয়েকজন আহতও হয়েছে।

এদিকে, পুলিশী অভিযানের মুখে মাহে রমজানের শুরুতে কিশোর গ্যাংয়ের উৎপাত কিছুটা কমলেও হঠাৎ করে তারা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। নগরীর চেরাগী পাহাড়সহ প্রতিটি এলাকায় কিশোর ও উঠতি যুবকদের দাপট চলছে।

তাদের পাল্টাপাল্টি শোডাউন, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, অস্ত্রের মহড়ায় পাড়া মহল্লা আবাসিক এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। গভীর রাতেও এদের উৎপাত চলছে। কথায় কথায় প্রতিপক্ষের উপর হামলে পড়ছে। জড়িয়ে পড়ছে সংঘাতে। এসব কিশোর গ্যাংয়ের বিরুদ্ধে ঈদ সামনে রেখে কোন কোন এলাকায় চাঁদাবাজি, ছিনতাই ও দস্যুতার অভিযোগও উঠেছে। মূলত রাজনৈতিক দলের কিছু নেতা, ওয়ার্ড কাউন্সিলর, ক্যাডার, মাস্তানদের মদদেই এরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

সর্বশেষ গত শুক্রবার রাতে নগরীর চেরাগি পাহাড়ে রক্তক্ষয়ী সংঘাতে লিপ্ত দুটি গ্রুপও রাজনৈতিক দলের মদদপুষ্ট। প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ বলছে, তাদের একপক্ষ জামালখান ওয়ার্ড কাউন্সিলর শৈবাল দাস সুমনের অনুসারী এবং অপরপক্ষ নগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সাব্বির সাদেকের অনুসারী। শৈবাল দাস সুমন ও সাব্বির সাদেক নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে তাদের মধ্যে। এর জেরে ওই দিন ইফতারের পর নগরীর আন্দরকিল্লা এলাকায় দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। রাত ১০টার দিকে দুই পক্ষ চেরাগী মোড় এলাকায় মুখোমুখি হয়। সেখানে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে তারা।


স্থানীয়দের অভিযোগ, চেরাগির মোড়ে সংঘাতে জড়িত এসব কিশোর-তরুণেরা নিয়মিত চেরাগি পাহাড়ের বিভিন্নস্থানে এবং কাউন্সিলরের বাসার সামনে আড্ডা দেয়। প্রায়ই তারা ঝগড়া-মারামারিতে লিপ্ত হয়। অধিকাংশই বখাটে প্রকৃতির এসব কিশোর-তরুণের অনেকেই মাদক সেবন করে। স্থানীয়রা বিভিন্নসময় কাউন্সিলরের কাছে এসব বিষয়ে অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার পাননি। বরং কাউন্সিলরের সঙ্গে তাদের বিভিন্ন মিছিল-সমাবেশে দেখা যায় বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। জামালখানের মতো নগরীর প্রায় প্রতিটি এলাকায় সরকারি দলের থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতা ও কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ মদদে কিশোর গ্রুপের দৌরাত্ম্য চলছে। যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাদের ছত্রছায়ায়ও গড়ে উঠেছে অসংখ্য কিশোর গ্যাং। এসব কথিত নেতারা তাদের দলভারি করার আড়ালে কিশোর-তরুণদের বিপথগামী করছে। এদের দিয়ে অপকর্ম করানোর পাশাপাশি নিজেদের অপরাধ জগতের নিয়ন্ত্রণও করছে।
 
চট্টগ্রামে আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে কিশোর অপরাধ। খুন, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, ডাকাতি, দাঙ্গা-হাঙ্গামাসহ নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে কিশোর-তরুণ অপরাধীরা। কথিত বড় ভাইয়ের ছত্রছায়ায় মহানগরীতে বেপরোয়া অর্ধশত কিশোর গ্যাং। এসব কিশোর অপরাধীরা আধিপত্য বিস্তার, বড় ভাই-ছোট ভাই দ্বন্দ্ব এবং তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছে। রাজনৈতিক দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের কয়েকজন কাউন্সিলর এসব কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ করছেন। এসব কিশোরের মধ্যে দরিদ্র পরিবারের সন্তান যেমন আছে, তেমনি আছে মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানও। তবে পুলিশের ভাষ্য, সামাজিক ও পারিবারিক অনুশাসনের অভাবে কিশোর-তরুণরা বেপরোয়া হয়ে উঠছে এবং জড়িয়ে পড়ছে নানা অপরাধে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, পারিবারিক ও সামাজিক অনুশাসনের অভাবের পাশাপাশি মাদকের কালোছায়া, সুস্থ সংস্কৃতি চর্চার অভাব, অর্থনৈতিক সংকট, ভার্চুয়াল জগতের নেশায় আত্মকেন্দ্রিক হয়ে ওঠার কারণেই এ ধরনের অপরাধে জড়িয়ে পড়ার প্রবণতা বাড়ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কিশোর অপরাধ বাড়ার পেছনে ‘বড় ভাই’ নামক গ্যাং লিডাররা অনেকটা দায়ী। এসব বড় ভাইয়েরা নিজেদের স্বার্থ হাসিলে কিশোর-তরুণদের ব্যবহার করছে বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে। উঠতি বয়সের এসব তরুণ হঠাৎ ক্ষমতার সংস্পর্শে এসে অনেকটা বেসামাল-বেপরোয়া হয়ে ওঠে।

এদিকে ঘটনাস্থলের আনুমানিক দেড়শ গজ দূরে নগর পুলিশের দক্ষিণ জোনের কার্যালয় থাকা সত্ত্বেও পুলিশ বিষয়টি জানতে পারে দুই ঘণ্টা পর। গতকাল শনিবার দুপুরে সিএমপির উপকমিশনার মো. জসিম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এরপর তিনি বলেন, কয়েক দিন ধরেই দুগ্রুপের মধ্যে ঝামেলা চলে আসছিল। এর জের ধরে বিকালে অমিত নামে একজনকে মারধর করা হয়। এর রেশ ধরে সন্ধ্যায় আবার দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে আসকার নামে এক তরুণকে ছুরিকাঘাত করলে হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়। উপকমিশনার বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় যাচাই-বাছাই করে ঘটনায় জড়িত কয়েকজনকে শনাক্ত করেছি। এর মধ্যে শোভন নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। সে নিজেও ছুরিকাহত। তার শরীরে সাতটি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সংঘর্ষে জড়িতদের ধরতে অভিযান চলছে।

অন্যদিকে রাজনৈতিক বিরোধের জের ধরে চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলায় ছুরিকাঘাতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যানের ভাই মো. সোহেল (৩৫) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো তিনজন আহত হন। গত শুক্রবার রাত ১১টার দিকে পটিয়ার কাশিয়াইশ ইউনিয়নের বুধপুরা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলছে, গত জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিরোধের জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। নিহত সোহেলের ভাই কাশিয়াইশ ইউনিয়নের পরপর ছয়বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান। আহতরা হলেন- মো. সাজ্জাদ (২০), সাদ্দাম হোসেন (৩০) ও জয়নাল আবেদিন (৩৪)। পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম বলেন, প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পর থেকে এলাকায় বিবদমান দুটি পক্ষ সৃষ্টি হয়। শুক্রবার দুপুরে বুধপুরা বাজারে সোহেলের সঙ্গে প্রতিপক্ষ শরীফের ঝগড়া হয়। এর জের ধরে রাতে সোহেলসহ চারজনকে ছুরিকাঘাত করা হয়। আহতদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক সোহেলকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত তিনজনকে একই হাসপাতালের ২৫ নম্বর সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

নগরীর স্কুল-কলেজকেন্দ্রিক প্রায় অর্ধশত কিশোর গ্যাং চট্টগ্রামে সক্রিয় রয়েছে। রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় নিয়ন্ত্রণহীন কিশোর গ্যাংগুলো খুন-মাদক ব্যবসা-চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধে জড়িত। রাজনৈতিক কর্মসূচিতে তাদের ব্যবহার করার কারণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও অধিকাংশ সময় এসব কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারছে না। নগরীর অলিগলির সিসিটিভি ক্যামেরাগুলোতে ধরা পড়ছে একের পর এক কিশোর গ্যাংয়ের ত্রাসের রাজত্ব। কোথাও প্রকাশ্যে মারামারি করছে, কোথাও প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে অংশ নিচ্ছে হানাহানিতে। আবার কোথাও টার্গেট কিলিংয়ে ব্যবহার হচ্ছে তারা। নগরীতে ছিন্নমূল কিশোরদের ২৫টি এবং অবস্থাপন্ন পরিবারগুলোর কিশোরদের আরো অন্তত ১৫টি গ্রুপের নগরীতে আধিপত্য রয়েছে। পুলিশ বলছে, হত্যা-ধর্ষণ, চাঁদাবাজি ও বিভিন্ন এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জন্য তাদের ব্যবহার করা হয়।
নগর পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা এলাকার আধিপত্য বিস্তারের লড়াইয়ে লিপ্ত। আবার অনেকে ছাত্রলীগের নাম দিয়ে নগরীর পাড়া-মহল্লায় কিশোর ও বখাটে গ্যাং বানিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম করছে। শুধু নিজেদের মধ্যে হানাহানি নয়, নগরীর বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় কিশোর অপরাধীদের উৎপাত বেড়েছে। কোনো কোনো এলাকায় তুচ্ছ ঘটনায় সদলবলে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হাজির হয় কিশোর সন্ত্রাসীরা। এদের দ্বারা সংঘটিত হচ্ছে খুনের ঘটনাও। রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় থেকে কিংবা শীর্ষ সন্ত্রাসীদের অনুচর হিসেবে কাজ করছে অনেক কিশোর। বিভিন্ন মহল্লায় চাঁদাবাজি, দখলবাজি থেকে শুরু করে ছিনতাই-রাহাজানির সঙ্গেও জড়িয়ে পড়ছে এরা। নগরীর বিভিন্ন এলাকায় এসব কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা মেয়েদের ভ্যানিটি ব্যাগ-মোবাইল ফোন ছিনতাই, মাদক বেচাকেনা, মোটরসাইকেল ও সাইকেল ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধে লিপ্ত। নিজ এলাকা ছাড়িয়ে অনেক সময় তারা নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালায়। এ রকম নগরীর ১৬ থানা এলাকায় প্রায় অর্ধশত কিশোর গ্যাং চক্রের তথ্য পুলিশের হাতে এসেছে।

কিশোর অপরাধ বৃদ্ধি প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে নৃবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. রহমান নাসের উদ্দিন বলেন, অপরাজনীতির কারণে দেশে মারাত্মক হারে কিশোর গ্যাং বাড়ছে। এখনই এগুলো কঠোর হাতে দমন করা না গেলে ভবিষ্যতে এর ভয়াবহতা বাড়বে বলে আমরা শঙ্কিত। সামাজিক অধঃপতন, ন্যায়নীতি মূল্যবোধের ক্রমবর্ধমান অবক্ষয়ের কারণে কিশোর অপরাধের প্রবণতা বাড়ছে। বর্তমানে আমাদের সমাজে মা-বাবারা নিজেদের ক্যারিয়ার নিয়ে এতটাই ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন যে সন্তানদের দিকে নজর দেয়ার সময় থাকে না তাদের। এছাড়া সামাজিক, পারিবারিক যে নৈতিক মূল্যবোধের শিক্ষা সেটাও এখন সেভাবে নেই। আরেকটা বিষয় প্রযুক্তি নির্ভরতা। আমাদের সন্তানরা এখন খুব কম বয়সেই মোবাইল বা ইন্টারনেটে আসক্ত হয়ে পড়ছে। এতে তারা অপসংস্কৃতির দিকে আকৃষ্ট হচ্ছে, যা আমাদের সামাজিক মূল্যবোধের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ নয়। নন্দন সংস্কৃতির চর্চা ক্রমহ্রাসমান। পারিবারিক-সামাজিক নজরদারি বা স্কুলিং বাড়ানো, সুস্থ সংস্কৃতি চর্চার পাশাপাশি জনকল্যাণমূলক কাজে কিশোর-কিশোরীদের নিয়োজিত করা গেলে তারা বিপথগামী হওয়া থেকে রক্ষা পাবে বলে মনে করেন এই অধ্যাপক।

সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) মো. শাসসুল আলম বলেন, পারিবারিক ও সামাজিক নজরদারি কমে যাওয়ায় কিশোর অপরাধ বেড়ে গেছে। কিশোর-তরুণরা কোথায় যাচ্ছে, কী করছে, কাদের সঙ্গে মিশছে- এসব বিষয়ে অভিভাবকদের নজরদারি রাখতে হবে। মোবাইল ও ইন্টারনেট দিয়ে ভালো ও গঠনমূলক কাজ অনেক সময় করছে না কিশোররা। ইন্টারনেটের অপব্যবহারজনিত কারণে কিশোরদের অপরাধ হচ্ছে অনেক বেশি। পাশাপাশি এলাকার কথিত ‘বড় ভাই’ নামে স্থানীয় প্রভাবশালীরা এসব কিশোর-তরুণদের নিয়ন্ত্রণ করছে। তিনি বলেন, শুধু পুলিশি ব্যবস্থা নিয়ে কিশোর অপরাধীদের নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। কিশোর অপরাধ বন্ধ করতে পারিবারিক ও সামাজিক অনুশাসন বাড়াতে হবে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির বলেন, কিশোর-যুবকদের দুই গ্রুপের বিরোধের জেরে এই খুনের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় শোভন নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে ঘটনার পর নগরীর আন্দরকিল্লা জেনারেল হাসপাতাল থেকে গ্রেফতার করা হয়। শোভন নগরীর ওমর গণি এমইএস কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র। তার হাতে ছুরির আঘাত রয়েছে। এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে জানিয়ে ওসি বলেন, এই ঘটনায় জড়িত বাকিদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা হয়েছে।

বিগত ২০১৮ সালে নগরীর জামালখান সড়কে প্রকাশ্যে দিবালোকে কলেজিয়েট স্কুল ছাত্র আদনানকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় চট্টগ্রামে আলোচনায় আসে কিশোর গ্রুপ। এরপর থেকে পুলিশ নগরীতে কিশোর গ্রুপের বিরুদ্ধে অভিযানে নামে। তবে এরপরও কিশোর গ্রুপের অপতৎপরতা থামছে না। কিশোর ও উঠতি যুবকেরা ভয়ঙ্কর সব অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। খুন, গুম, ধর্ষণ, অপহরণ করে মুুক্তিপণ আদায়, ডাকাতি, দস্যুতা, অস্ত্রবাজি, চাঁদাবাজি এমনকি মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছে তারা। বখাটেদের পাশাপাশি স্কুল কলেজ পড়ুয়া উচ্চবিত্তের সন্তানেরাও এই সব গ্রুপে ভিড়ে যাচ্ছে। এসব কিশোর গ্যাংয়ের পেছনে রাজনৈতিক বিশেষ করে ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের মদদ থাকায় পুলিশও অনেকটা অসহায়। পুলিশের খাতায় কিশোর গ্যাং লিডারদের অনেকে এখন কাউন্সিলর। তারাই এসব উঠতি তরুণদের আসকারা দিচ্ছে।

 

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল


রিটেলেড নিউজ

আব্দুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর শোক

আব্দুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর শোক

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিশিষ্ট সাংবাদিক, কলামিস্ট, বুদ্ধিজীবী ও স্বাধীনতাপদক প্রাপ্ত লেখক আব্দুল গাফ... বিস্তারিত

লায়ন্স ক্লাবের ২৫তম বার্ষিক জেলা কনভেনশন

লায়ন্স ক্লাবের ২৫তম বার্ষিক জেলা কনভেনশন

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল জেলা ৩১৫-বি৪ এর ২৫তম বার্ষিক জেলা কনভেনশন উপলক্ষে... বিস্তারিত

ফুটপাত দখল করে ব্যবসা, ৭ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

ফুটপাত দখল করে ব্যবসা, ৭ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে আজ মঙ্গলবার সকালে নগরীতে মোবাইল কোর্ট পর... বিস্তারিত

তথ্য প্রযুক্তিতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সক্ষমতা উন্নয়নে আইসিটি বিভাগ শীর্ষক সেমিনার

তথ্য প্রযুক্তিতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সক্ষমতা উন্নয়নে আইসিটি বিভাগ শীর্ষক সেমিনার

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: তথ্য প্রযুক্তিতে প্রতিবন্ধীদের সম্পৃক্ত করা হচ্ছে। তারা সেখানে প্রবেশ করছে। ... বিস্তারিত

দক্ষিণ চট্টগ্রামে অতিরিক্তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ, নেই প্রশাসনের তৎপরতা

দক্ষিণ চট্টগ্রামে অতিরিক্তি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ, নেই প্রশাসনের তৎপরতা

newsgarden24.com

এম এম রাজামিয়া রাজু: গাড়ীওয়ালাদের ঈদের ঝাঁজ এখনো যায়নি। তাই যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ... বিস্তারিত

মারামারি মামলায় দুই ভাইয়ের কারাদণ্ড

মারামারি মামলায় দুই ভাইয়ের কারাদণ্ড

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: পটিয়ায় জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে মারামাররি করায় আবদুল হাকিম রানা ও মাহবুবুর রহ... বিস্তারিত

সর্বশেষ

‘মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মাবুদ সওদাগর মানুষের কল্যাণে আত্মোৎসর্গ করেছিলেন’

‘মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মাবুদ সওদাগর মানুষের কল্যাণে আত্মোৎসর্গ করেছিলেন’

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বাঁশখালী আবদুল মাবুদ ফাউনেডশনের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান চাঁদপুর কিউএইচআরডিইউ... বিস্তারিত

তামাকজাত দ্রব্যের প্রদর্শনী বন্ধে আইন সংশোধন চান ব্যবসায়ীরা

তামাকজাত দ্রব্যের প্রদর্শনী বন্ধে আইন সংশোধন চান ব্যবসায়ীরা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিদ্যমান ‘ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০০৫’-এ তামাকজাত... বিস্তারিত

আব্দুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর শোক

আব্দুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর শোক

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিশিষ্ট সাংবাদিক, কলামিস্ট, বুদ্ধিজীবী ও স্বাধীনতাপদক প্রাপ্ত লেখক আব্দুল গাফ... বিস্তারিত

দুই এমপি’র সম্মতি বাস্তবায়নে সুদৃষ্টি কামনা

দুই এমপি’র সম্মতি বাস্তবায়নে সুদৃষ্টি কামনা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: দুই এমপি’র সম্মতি হিসেবে দুই এমপি’র সুপারিশসহ সুপরামর্শ বাস্তবায়ন করার জন... বিস্তারিত