মাসে ১২ লাখ টাকার চাঁদায় চলছে খাজা রোড সিএনজি স্ট্যান্ড

newsgarden24.com    ১২:৪৮ পিএম, ২০২১-১২-০৮    303


মাসে ১২ লাখ টাকার চাঁদায় চলছে খাজা রোড সিএনজি স্ট্যান্ড

নিউজগার্ডেন ডেস্ক:

নিষিদ্ধ গাড়ি, চাঁদাবাজি চলছেই !

চট্টগ্রাম নগরীর ব্যস্ততম জংশন বহদ্দারহাট মোড়। এখানকার সড়কে চলছে চরম বিশৃঙ্খলা ও নৈরাজ্য। বিভিন্ন পরিবহন স্ট্যান্ড বসিয়ে কোটি টাকার চাঁদাবাজিতে সক্রিয় একাধিক চক্র।

সরেজমিন দেখা গেছে, চান্দগাঁও থানার পঞ্চাশ গজের মধ্যে গড়ে উঠেছে গ্রাম সিএনজি টেক্সির একটি স্ট্যান্ড। চলছে চারশো অবৈধ গাড়ি যা সম্পূর্ণ বেআইনি, শহরে চলাচলের পারমিট নেই। অধিকাংশ গাড়ির নাম্বার পর্যন্ত নেই। এরমধ্যে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা চুরির গাড়িও চলাচল করছে বলে তথ্য রয়েছে। এসব টেক্সি ছিনতাইকারীরাও ব্যবহার করছে। বহদ্দারহাট হাসান বেকারির সামনের সড়কে করা হয়েছে

স্ট্যান্ড। এখান থেকে খাজা রোড হয়ে বাকলিয়া থানার বলিরহাট পর্যন্ত চলাচল করছে এসব গ্রাম টেক্সি। এসব চালকরা জানান, গাড়ি প্রতি দৈনিক পঞ্চাশ ও মাসিক দেড় হাজার টাকা চাঁদা দিয়ে গাড়ি চালাচ্ছেন তারা। সেই হিসেবে চারশো গাড়ি থেকে মাসে ১২ লাখ টাকার চাঁদা তোলা হচ্ছে। স্ট্যান্ডটি পরিচালনা করছে কাদের নামে এক পেশাদার অপরাধী। টাকা তোলার জন্য রাখা হয়েছে ৪/৫ জন লাইনম্যান।

 

গ্রাম সিএনজি টেক্সি, ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক, টমটম, মোটর রিক্সা, এক রুটের গাড়ি অন্য রুটে, রেজিষ্ট্রেশন বিহীন গাড়ি, এক গাড়ির নাম্বার অন্য গাড়িতে, এমনকি চুরির গাড়িও নির্বিঘ্নে চলছে চট্টগ্রাম নগরীর ব্যস্ততম জংশন 'বহদ্দারহাট টু নতুনব্রীজ' ও 'বহদ্দারহাট টু কালুরঘাট' সড়কে।   সড়কের দু'পাশের এলাকা গুলো ঘনবসতিপূর্ণ ও জনবহুল।  উত্তর চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার থেকে নগরীতে প্রবেশের প্রধান সড়ক এটি । প্রতিটি মোড় কেন্দ্রিক রয়েছে ট্রাফিক পুলিশ। তাদের চোখ ফাঁকি দিয়ে নিষিদ্ধ ও অবৈধ পরিবহন সড়কে কিভাবে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে প্রশ্ন উঠা স্বাভাবিক

 

মাঝেমধ্যে পুলিশের অভিযান দেখা গেলেও তা স্রেফ লোকদেখানো বলে মন্তব্য করেন অনেকে। অভিযোগ রয়েছে, পরিবহন খাতে আদায় করা চাঁদার বড় একটি অংশ যায় ট্রাফিক ও থানা পুলিশের কর্তাব্যক্তিদের কাছে। তবে কর্তৃপক্ষ বরাবরই এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। বহদ্দারহাট পুলিশ ফাঁড়ির সামনেই সড়কের একপাশ দখলে নিয়েছে একটি টেম্পো (টিকটিকি) স্ট্যান্ড। মহাসড়কে যানজট ও বিশৃঙ্খলার অন্যতম কারণ এটিও। অভিযোগ রয়েছে, এখানকার বেশকিছু গাড়ির মালিক বিভিন্ন পুলিশ কর্মকর্তা। নিয়ন্ত্রণ রয়েছে সরাসরি বহদ্দারহাট ফাঁড়িতে। ফলে যত অভিযানই হোক, স্ট্যান্ডটি বহাল রয়েছে দীর্ঘদিন।  মদিনা হোটেলের সামনে থেকে নতুনব্রীজ পর্যন্ত চলাচল করছে কয়েকশো টেম্পো। সিটি কর্পোরেশন মার্কেটের সামনে থেকে কালুরঘাট সড়কে চলছে টেম্পো স্ট্যান্ড। বহদ্দারহাট মোড় ঘিরে অন্তত ছয়টি পরিবহন স্ট্যান্ড রয়েছে। বাসের জন্য নির্ধারিত বাস টার্মিনাল থাকলেও, পথে পথে কাউন্টার খুলে বসেছে পরিবহন কোম্পানি গুলো। চান্দগাঁও থানার সামনে ও বহদ্দারহাট পুলিশ ফাঁড়ির পেছনে রয়েছে বেশকিছু বাস কাউন্টার। সেখান থেকে যাত্রী উঠানামা করায় নিয়মিত সৃষ্টি হয় যানজট। বাকলিয়া থানার রাহাত্তারপুল মোড় থেকে চকবাজার খালপাড় পর্যন্ত দীর্ঘদিনের বিড়ম্বনা ছিল ব্যাটারি চালিত নিষিদ্ধ টমটম।

পুলিশের কঠোর অবস্থানের কারণে শেষ পর্যন্ত এসব টমটম উচ্ছেদ হলেও এই সড়কে নতুন করে চালু হয়েছে অটো টেম্পো। এ যেন পুরনো বোতলে নতুন মদ! দেখা গেছে, এসব গাড়ির রুট পারমিট নেই। নেই রেজিস্ট্রেশন কিংবা প্রয়োজনীয় কাগজপত্র। অনেক গাড়ির নাম্বার প্লেট নেই, আবার অনেকে মোবাইল নাম্বার লিখে দিয়েছে। এসব অটো টেম্পোর চালকেরা জানান, তারা লাইনম্যান রুবেলকে দৈনিক ৬০০ টাকা চাঁদা দিয়ে গাড়ি চালাচ্ছেন। এই টাকা কোথায় যায়, সেই হিসেব তাদের জানা নেই। তাদের ভাষ্য, টাকা দিয়ে গাড়ি চালাচ্ছেন, আর টাকা দিলে আইন বলতে কিছু নেই! কে.বি আমান আলী সড়কের স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, বাকলিয়া ও চকবাজার দুই থানার সংশ্লিষ্টদের ম্যানেজ করেই এটি নিয়ন্ত্রণ করছে কতিপয় চক্র। চান্দগাঁও ও বাকলিয়া থানার এই জোনের অলিগলিতে চলছে অন্তত দশ হাজার নিষিদ্ধ পরিবহন। মোটর রিক্সা, ব্যাটারি টমটম, গ্রাম টেক্সি থেকে শুরু করে বিভিন্ন যানবাহন, যা চলাচলে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তবে চাইলেই যেকেউ এসব গাড়ি চালানোর সুযোগ নেই। এলাকায় এলাকায় রয়েছে গ্রুপ, আছে পুলিশের কথিত ক্যাশিয়ার কিংবা সোর্স।

তাদের টাকা দিয়েই চালাতে হয় এসব গাড়ি এমন অভিযোগ রয়েছে। অপরাধ বিশ্লেষকরা বলছেন, অবৈধ পরিবহন জব্দ, জরিমানা কিংবা উচ্ছেদ করার ক্ষমতা ট্রাফিক বিভাগের থাকলেও, চাঁদাবাজির নেপথ্যে থাকা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে থানা পুলিশকে। না হয় এসব অপরাধ কিছুতেই বন্ধ হবে না, আসবে না সড়কে শৃঙ্খলা। উল্লেখ্য, গত বছর ২৬ আগষ্ট সড়ক দখল করে নিষিদ্ধ টমটম স্ট্যান্ড বসিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে চারজনকে আটক করেছিল চকবাজার থানা পুলিশ। সেসময় পুলিশ বাদী হয়ে দ্রুত বিচার আইনে একটি মামলাও দায়ের করেন। পরবর্তীতে সেই নিষিদ্ধ ব্যাটারি টমটম এই সড়কে আর দেখা যায়নি। অর্থাৎ, মূলহোতারা আইনের আওতায় আসলেই তবে এসব অপরাধ নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব।

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল


রিটেলেড নিউজ

‘মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মাবুদ সওদাগর মানুষের কল্যাণে আত্মোৎসর্গ করেছিলেন’

‘মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মাবুদ সওদাগর মানুষের কল্যাণে আত্মোৎসর্গ করেছিলেন’

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বাঁশখালী আবদুল মাবুদ ফাউনেডশনের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান চাঁদপুর কিউএইচআরডিইউ... বিস্তারিত

অনিয়মের ভিডিও ধারণ করার সময় সাংবাদিকের মোবাইল কেড়ে নেয়!

অনিয়মের ভিডিও ধারণ করার সময় সাংবাদিকের মোবাইল কেড়ে নেয়!

newsgarden24.com

বান্দরবান প্রতিনিধি: বান্দরবান বিআরটিএ অফিসে অনিয়মের অভিযোগে ভিডিও ধারণ করার সময় সাংবাদিকে মোবা... বিস্তারিত

সাতকানিয়ায় ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার, গাড়ি আটক

সাতকানিয়ায় ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার, গাড়ি আটক

newsgarden24.com

বিশেষ প্রতিনিধি: সাতকানিয়া থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ... বিস্তারিত

‘উচ্চ রক্তচাপ মোকাবেলায় সম্মিলিতভাবে কাজ করার তাগিদ’

‘উচ্চ রক্তচাপ মোকাবেলায় সম্মিলিতভাবে কাজ করার তাগিদ’

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বাংলাদেশে প্রতি ৫ জনে ১ জন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ (২১%) উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন। উচ্চ র... বিস্তারিত

‘বাজেটে প্রান্তিক জনগোষ্টির জীবনমান উন্নয়নে অগ্রধিকার দেয়া হবে’

‘বাজেটে প্রান্তিক জনগোষ্টির জীবনমান উন্নয়নে অগ্রধিকার দেয়া হবে’

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো. গিয়াস উদ্দিন বলেছেন, চসিকের আগ... বিস্তারিত

বান্দরবানে সাংবাদিকদের ৩ দিনের কর্মশালা শেষ

বান্দরবানে সাংবাদিকদের ৩ দিনের কর্মশালা শেষ

newsgarden24.com

বান্দরবান প্রতিনিধি: জাতীয় গণমাধ্যম ইন্সটিটিউট তথ্যও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় শিশু ও নারী উন্নয়ণে স... বিস্তারিত

সর্বশেষ

‘মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মাবুদ সওদাগর মানুষের কল্যাণে আত্মোৎসর্গ করেছিলেন’

‘মৃত্যুর আগ পর্যন্ত মাবুদ সওদাগর মানুষের কল্যাণে আত্মোৎসর্গ করেছিলেন’

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বাঁশখালী আবদুল মাবুদ ফাউনেডশনের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান চাঁদপুর কিউএইচআরডিইউ... বিস্তারিত

তামাকজাত দ্রব্যের প্রদর্শনী বন্ধে আইন সংশোধন চান ব্যবসায়ীরা

তামাকজাত দ্রব্যের প্রদর্শনী বন্ধে আইন সংশোধন চান ব্যবসায়ীরা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিদ্যমান ‘ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০০৫’-এ তামাকজাত... বিস্তারিত

আব্দুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর শোক

আব্দুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রীর শোক

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিশিষ্ট সাংবাদিক, কলামিস্ট, বুদ্ধিজীবী ও স্বাধীনতাপদক প্রাপ্ত লেখক আব্দুল গাফ... বিস্তারিত

দুই এমপি’র সম্মতি বাস্তবায়নে সুদৃষ্টি কামনা

দুই এমপি’র সম্মতি বাস্তবায়নে সুদৃষ্টি কামনা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: দুই এমপি’র সম্মতি হিসেবে দুই এমপি’র সুপারিশসহ সুপরামর্শ বাস্তবায়ন করার জন... বিস্তারিত