পরিকল্পিত কাজেই হবে দুর্ভোগ মুক্ত দৃৃষ্টিনন্দন শহর চট্টগ্রাম

newsgarden24.com    ১০:১২ এএম, ২০২১-০৮-২০    408


পরিকল্পিত কাজেই হবে দুর্ভোগ মুক্ত দৃৃষ্টিনন্দন শহর চট্টগ্রাম

কাজী ইব্রাহিম সেলিম: জনগণ দুর্ভোগের নগরী আর দেখতে চান না। প্রযুক্তির উন্নত ব্যবহারের ফলে. ওদিকে অবহেলিত বাংলাদেশের মানুষগুলোও এখন মেধাবী ও সচেতন হয়ে উঠার কারণে উন্নত দেশগুলোর সাথে তাল মিলিয়ে চলা সম্ভব। মুরাদপুরে নালার পরিকল্পিতভাবে তীক্ষè মেধায় কাজ হলে সরকারও গর্ব করে বলতে পারবেন যে, আমরা জনগণকে উপহার দিতে পেরেছি জলাবদ্ধতা ও যানজটের দুর্ভোগ মুক্ত দৃৃষ্টিনন্দন শহর চট্টগ্রাম। ফ্লাইওভার সংযুক্ত নগরীর এ প্রধান সড়কটিতে যানজট মুক্ত যানবাহনের চলাচল ও নালার উপর ফুটপাতে লাল-সবুজে রাঙানো রেলিংয়ে হাত রেখে জনসাধারণের ঝুঁকিমুক্ত সুশৃঙ্খলভাবে যাতায়াত আর পাশে থাকা মানুষের বাস ভবন আর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে নানা রঙে সাজিয়ে অপরূপ সৌন্দর্যে উন্নত বিশ্বেরমতো সৌন্দর্যময় করে তোলা, নগরীর এ ছবি খানা দৃশ্যমান হয়ে থাকবে বাংলার প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে। এতে প্রশংসার দাবীদার হয়ে উঠবেন বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা দেশনেত্রী শেখ হাসিনা ও কাজে সহযোগীতা করা সংশ্লিষ্ট মানুষগুলোও। এ কাজটি করতে গিয়ে জনগণকে সন্তুষ্ট রাখতে নালার কাজে আশ-পাশের ক্ষতিগ্রস্তদের সরকার-সরকারের সংশ্লিষ্টরা ক্ষতিপূরণও দিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু এ সন্তুষ্ট স্থায়ী হওয়ার জন্য নালার কাজটি হতে হবে তীক্ষè মেধায় জনগণের উপকারে আসার মতো পরিকল্পিতভাবে।
মুরাদপুর-লালখান বাজার ফ্লাইওভারের নীচের পুরো সড়কটি প্রশস্ত থাকলেও, যানজটের কোনো আশঙ্খা না থাকলেও মোহাম্মদপুরে খলিল হাজী বাপের মাজারের ওখানে এসে ফ্লাইওভারের প্রথম খুঁটির নীচু পিলারের কারণেও সড়কটি সংকির্ণ হয়ে পড়েছে। সেজন্য, সেখান থেকে পুরো সড়কে যানজট সৃষ্টি হয়। সেখান থেকে পূর্বদিকে সড়ক বড় করা দরকার হলেও সে স্থানে মোহাম্মদপুরে ঢোকার জন্য নালার উপর ব্রিজটি দেয়া হয়েগেছে। আমরা ভাবছিলাম যেহেতু সে স্থান থেকে পূর্বদিকে সড়ক ছোট হওয়ার কারণে জনগণকে যানজটের দুর্ভোগ পোহাতে হয় সেহেতু কর্তৃপক্ষ নিজেই একটু বুঝেশুনে নালা ও ব্রিজটি একটু ছোট করে সে জায়গাটিতে সড়কটি একটু বড় করবেন। যেহেতু করা হয়নি তাই আমরা ক্ষুদ্র হলেও বড়দেরকে বিষয়টা নিয়ে জাগিয়ে দিচ্ছি। জাগিয়ে দিচ্ছি যে. সরকার জলাবদ্ধতা ও যানজট মুক্ত দৃৃষ্টিনন্দন শহর গড়তে এতগুলো অর্থ খরচ করার পরও দাঁয়িত্বে থাকা মানুষগুলোর শুধু একটু সচেতন হয়ে তীক্ষè মেধায় কাজ না করলে সরকারের এ সদিচ্ছা পূরণ হবে না। মুরাদপুর মোড়ের পূর্বদিকে নালার উপর মাত্র এই একটি ব্রিজ হয়েগেছে বিধায় আর কিছু করার নেই। তবে ওই ব্রিজের ওখান থেকে পূর্বদিকে ফ্লাইওভারে ওঠা-নামা করে সেখান পর্যন্ত সড়কটা আরো বেশি ছোট বিধায় সেখানে সড়ক বড় করা আরো বেশি জরুরি হয়ে পড়েছে। এ বড়বড় সমস্যাগুলো র্র্বর্তমানে নালার উন্œয়ন কাজ চলমান অবস্থায় দূর না করলে আর কবে করবেন? কাজগুলো দীর্ঘ মেয়াদী হচ্ছে বিধায় সমস্যাগুলো পরবর্তীতে দূর করা আর সম্ভব হবেও না। সেজন্য, সেখান থেকে পূর্বদিকে ফ্লাইওভারে গাড়ি উঠা-নামা করে ওখান পর্যন্ত পাশে রয়েছে এন. মোহাম্মদ ইন্ডাস্ট্রিজের মতো বড়বড় লোকের টাওয়ার, এগুলো উচ্ছেদের মাধ্যমে ক্ষতি করে নালা-সড়ক বড় করা সম্ভব হয়নি। তাহলে কি সেখানে জনগণের যানজটের দুর্ভোগ লেগেই থাকবে? জনবহুল ছোট্ট বাংলাদেশটিতে জনসংখ্যার তুলনায় ভূমির পরিমাণ অপ্রতুল। সেজন্য, মানুষের কষ্ট লাঘব করতে হলে এসব দরকারী জায়গাগুলোকে তীক্ষè মেধায় অল্প জায়গাকে বেশি মানুষের বাসযোগ্য ও যাতায়াতের জন্য ব্যবহারযোগ্য উপযোগী করে তুলতে হবে। বিকল্প ব্যবস্থাপনা হল সেখানে নালা ৬ ফিটের মতো ছোট করে সড়কটি অন্তত ৬ ফিট বড় করা দরকার অথবা সেখানে প্রায় একশ গজের মতো এই সামান্য জায়গাটুকু পুরো নালার উপর মজবুত ঢালাই দিয়ে সড়ক করে দিলে আরো ভালো হবে। এ সামান্য কাজটুকু যদি তীক্ষè মেধায় পরিকল্পিতভাবে করা হয় তাহলে চট্টগ্রামের এই ব্যস্ততম-গুরুত্বপূর্ণ সড়কটিতে কোনো সময় ১ মিনিটের জন্যও যানজট বাঁধবে না, নির্বিঘœ হবে যাতায়াত।

মুরাদপুরে নালা-ব্রিজের মাঝখানে প্রতিবন্ধকতার দেয়াল : নালার উপর যে ব্রিজগুলো দেয়া হচ্ছে সে ব্রিজের মাঝখানে একটা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হওয়ার মতো দেয়াল দেয়া হচ্ছে। বিকল্প ব্যবস্থাপনায় ব্রিজ মজবুত করা দরকার ছিল। এই প্রতিবন্ধকতার দেয়ালই নালার মাঝখানে এক-দেড় ফিট জায়গা দখল করেছে এবং সেটিতে পানির ¯্রােতে আসা কলাগাছ-ঘাসসহ ময়লা-আবর্জনা আটকা পড়ে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হবে। তার চেয়ে নালা ও ব্রিজ ৬ ফিটের মতো ছোট করলেও নালার মাঝখানে ওই প্রতিবন্ধকতার দেয়ালটা দিতে হতো না এবং নালা ৬ ফিট ছোট হলেও নালার মাঝখানে প্রতিবন্ধকতার দেয়ালওয়ালা বড় নালার সমপরিমাণ র্বর্ষার পানি ধারণ করতে পারবে। আর সে নালার জায়গাটা ছেড়ে দিয়ে সড়কটা বড় করা হলে যানজট থেকে মুক্তিও মিলবে। মুরাদপুর মোড় থেকে পূর্বদিকে দক্ষিণ পাশে নালার দেয়ালটিও এখনো দেয়া হয়নি বিধায় এখনো তীক্ষè মেধায় পরিকল্পিতভাবে কাজ করার সুযোগটা রয়েছে। সুযোগ রয়েছে মোহাম্মদপুর থেকে পূর্বদিকে বাকি ব্রিজগুলোর মাঝখানে প্রতিবন্ধকতার দেয়াল ছাড়া একটু ছোট করে নির্মাণ করে ফ্লাইওভারে ওঠা-নামা করে ওখান পর্যন্ত সড়কটি একটু বড় করার। পূর্বে নালায় মধ্যন্থান দিয়ে মানুষের ব্যবহারের গ্যাস-পানির পাইপ অপরিকল্পিতভাবে নেয়া হয়েছিল যুগযুগ ধরে, ও নালার উপর নিচু করে ব্রিজগুলো দেওয়ায় সে ব্রিজের আরো নিচে বড়বড় ভিম দিয়ে নির্মাণ করার কারণে সেগুলোতে ও পাইপগুলোতে কলাগাছ-ঘাসসহ নানা আর্র্বর্জনা আটকা পড়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হতো। সে বিষয়ে দায়িত্বহীনতার কারণে এত বছরের মধ্যেও বিষয়টা নিয়ে বারবার লিখার পরও পদক্ষেপ নেয়নি বিধায় মানুষের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছিল। সেজন্য, নালার কাজও সজাগ দৃষ্টিতে পরিকল্পিতভাবে করা হবে কিনা তা নিয়ে আমরা শংকিত। এখন অন্তত নালার কাজের কারণেই সেই পাইপ-ভিমগুলো ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে, পাইপগুলো উপরে তুলা হয়েছে সেজন্য, আগের সেই প্রতিবন্ধকতা আর নেই বিধায় আগের সেই ছোট নালাটা থাকলেও আগের মতো জলাবদ্ধতা দেখা দিবে না। তারপরও নালা এখন আগের চেয়ে দিগুন করা হচ্ছে সেজন্য, যে স্থানে সড়ক বড় করার অতি জরুরী সেখানে নালা ও ব্রিজগুলো একটু ছোট করলে সমস্যা হবেনা আশাকরি। জলাবদ্ধতা ও যানজট দু’টিই নাগরিক সমস্যা হলেও জলাবদ্ধতা শুধু নগরবাসী সমস্যা, এটিতে বছরে দু’চার বার ক্ষতি হয়। আর যানজটে নগরবাসীসহ পুরো চট্টগ্রামবাসীর ও দেশবাসীর ক্ষতি হয় সারা বছরের প্রতিদিনের জন্য। সেজন্য, যানজট রোধে অধিক সজাগ থাকা দরকার।

মুরাদপুরে নালার উপর ফুটপাত দরকার : যেই রট-সিমেন্ট আর সিলেটি বালি-পাথরের ঢালাই দ্বারা নালার দু’পাশে দেয়াল নির্মিত হচ্ছে। সে নালার উপরে ১০ গজ পরপর একটি করে ঢালাই ভিম দিয়ে দু’পাশের দেয়ালের সাথে ধরা করে দিলে নালার মজবুতটা আরো শতগুণ বেড়ে যাবে। সেটির উপর নালার চার ভাগে এক অংশে অর্থাৎ ৬ ফিটের একটা ফুটপাত করে দেওয়া সম্ভব অথবা নালার পাশের দেয়ালের মাঝখান থেকেও ঢালাই দিয়ে দেয়ালের উপরের অংশ পর্যন্ত সিস্টেম করে খুঁটি নির্মাণের মাধ্যমেও ফুটপাত দেয়া সম্ভব হবে। এটা অনেক দরকারও। এতে মানুষের যাতায়াতে অনেক সুবিধা তো হবেই বটে, এভাবে দেশের মানুষের বাসস্থানের ও যাতায়াতে ভূমির সঙ্কটটাও দূর হবে। আর সে ফুটপাতের পাশে লোহার রেলিং করে দিলে কেউ নালায় পড়ার ঝুঁকিও থাকবে না। এরপর মানুষ যারযার বাড়ি-দোকানে যাওয়া-আসার জন্য নালার উপর যতটুকু ব্রিজ দেওয়া হবে ততটুকু রেলিং কেটে পথ করে নিয়ে রেলিংটি ব্রিজের রেলিং এর সাথে সংযুক্ত করে দিলে, এটিতে নগরীর সৌন্দর্যটাও বাড়বে অপরূপ। এবং বিদ্যুত খুঁটিগুলো ঘর-বাড়ি ও দোকানের সাথে লাগিয়ে স্থাপন করলে বসবাসকারী মানুষগুলোর নানাভাবে অসুবিধা তো হবেই, ঝুঁকিও বাড়বে। সেজন্য, সড়কের পাশে নালার দেয়ালের সাথে স্থাপন করলে সুন্দর হবে। সড়কের উপর থেকে এস্কেভেটর দিয়ে নালা পরিস্কার করতেও কোনো অসুবিধা হবে না। এভাবে কাজ করার মতো অর্থ যথেষ্ট পরিমাণে সরকার দিয়ে যাচ্ছেন। তারপরও জনগণের উপকারে আসার মতো পরিকল্পিতভাবে কাজের জন্য আরো অর্থ লাগলে সরকারকে জানালে সরকার এতগুলো অর্থ দিতে পারলে বাকি সামান্য অর্থগুলোও দিতে পারবেন আশাকরি। মেধাবী ও দক্ষ মানুষের হাতে দাঁয়িত্ব থাকলে সরকারের আন্তরিকতায় জনগণের দুর্ভোগ আরো না বাড়ে মতো একটি সুখী-সৌর্ন্দর্যময় দেশ ও নগর জনগণ উপহার পাবেন। আর যদি জনগণের সুবিধা-অসুবিধা চিন্তা না করেই দেশের ক্ষতি করে পকেট ভর্তি করার মতো মেধাহীন-অদক্ষ ও স্বার্থপর মানুষের হাতে কাজের দাঁয়িত্¦ চলে যায় তাহলে সরকারও এতগুলো অর্থ খরচ করার পরও সে সুনামটা আর পাবেন না। লেখক : কবি ও সাংবাদিক।

 

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল


রিটেলেড নিউজ

তরুণরা পাওয়ার পলিটিক্সের শিকার !

তরুণরা পাওয়ার পলিটিক্সের শিকার !

newsgarden24.com

রিয়াজুর রহমান রিয়াজ: দেশ তথা জাতী গঠনে ও সামাজিক সমস্যা সমধানের এক বিরাট বিকল্প শক্তি হচ্ছে তরুণ স... বিস্তারিত

বিশিষ্ট রজনীতিক ডাঃ লুসি খান’র মাতা, বেগম সুরু আকতার খান’র ইন্তেকালে বিভিন্ন মহলের শোক

বিশিষ্ট রজনীতিক ডাঃ লুসি খান’র মাতা, বেগম সুরু আকতার খান’র ইন্তেকালে বিভিন্ন মহলের শোক

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: মোহরাস্থ জমিদার জান আলী চৌধুরীর নাতী, চকবাজারস্থ জমিদার হাজী কালা মিয়া ওয়াকফ এ... বিস্তারিত

মানবতার সেবায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ নাছির উদ্দিন ফাউন্ডেশন

মানবতার সেবায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ নাছির উদ্দিন ফাউন্ডেশন

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: “আসুন সেবার হাত বাড়িয়ে দু:খ দিই তাড়িয়ে” এই শ্লোগানকে সামনে নিয়ে যাত্রা শুরু ... বিস্তারিত

চট্টগ্রামে ঠাঁইহারা দুই অনাথ শিশু পাচ্ছে কেএসআরএমের স্নেহের আশ্রয়

চট্টগ্রামে ঠাঁইহারা দুই অনাথ শিশু পাচ্ছে কেএসআরএমের স্নেহের আশ্রয়

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: অন্যের হয়ে জেল খাটা মিনু আক্তারের দুই সন্তান ইয়াসিন (১২) ও গোলাপের (৯) পড়ালেখা ও ভ... বিস্তারিত

চমৎকার ঘুমের জন্য নিজেকে তৈরি করুন

চমৎকার ঘুমের জন্য নিজেকে তৈরি করুন

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: আপনি ক্লান্ত, লম্বা একটা ঘুম দেবার জন্য শুয়ে পড়লেন বিছানায়। কিন্তু ঘুম কিছু... বিস্তারিত

ইপসার প্রকল্প পরিদর্শনে এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর উপ পরিচালক

ইপসার প্রকল্প পরিদর্শনে এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর উপ পরিচালক

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নের জন্য সংগঠন ইপসার বিভিন্ন প্রকল্প কার্যক্রম পরিদর্শন ক... বিস্তারিত

সর্বশেষ

লেখক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা ও ‘১৮ সেপ্টেম্বর বিশ্ব লেখক অধিকার দিবস’ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবি

লেখক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা ও ‘১৮ সেপ্টেম্বর বিশ্ব লেখক অধিকার দিবস’ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবি

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: "অক্ষরে অমরতা" শ্লোগানের পতাকাবাহী আন্তর্জাতিক সাহিত্য ও সমাজকল্যাণমূলক প... বিস্তারিত

তরুণরা পাওয়ার পলিটিক্সের শিকার !

তরুণরা পাওয়ার পলিটিক্সের শিকার !

newsgarden24.com

রিয়াজুর রহমান রিয়াজ: দেশ তথা জাতী গঠনে ও সামাজিক সমস্যা সমধানের এক বিরাট বিকল্প শক্তি হচ্ছে তরুণ স... বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধু হেরিটেজ হালদা নদীর উপর পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন প্রভাষক সফিকুল ইসলামের

বঙ্গবন্ধু হেরিটেজ হালদা নদীর উপর পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন প্রভাষক সফিকুল ইসলামের

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: দক্ষিণ এশিয়ার বিখ্যাত মিঠা পানির মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র হালদা নদীর পানি দূষণ সম... বিস্তারিত

সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে বিএনসিসি’র উদ্যোগে ফ্রি ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন কর্মসূচি

সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে বিএনসিসি’র উদ্যোগে ফ্রি ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন কর্মসূচি

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে সাদার্ন ইউনি... বিস্তারিত