চট্টগ্রাম বন্দর নিয়ে চক্রান্ত আর কতকাল

newsgarden24.com    ১০:৩৩ এএম, ২০২০-১১-১৮    114


চট্টগ্রাম বন্দর নিয়ে চক্রান্ত আর কতকাল

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চলমান অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ফলে দেশে আমদানি-রপ্তানি দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে যে হারে আমদানি-রপ্তানি বাড়ছে, তাতে আগামী ২০২১ সালের মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দরের কনটেইনার হ্যান্ডেলিংয়ের সর্বোচ্চ সক্ষমতা ৩০ লাখে উন্নীত হবে। কিন্তু ওই সময়ে চাহিদা দাঁড়াবে ৩৫ লাখ কনটেইনার পরিবহনের। অতিরিক্ত এই চাহিদা পূরণে গভীর সমুদ্রবন্দর স্থাপনের কোনো বিকল্প সামনে নেই।’ দেশে পণ্য আমদানি-রপ্তানিতে কনটেইনার পরিবহনের ৯৮ শতাংশ চট্টগ্রাম বন্দরের মাধ্যমে সম্পন্ন হয়। বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করতে হলে বিনিয়োগবান্ধব অবকাঠামো উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে। এ জন্য আমাদের ব্যাপকভাবে বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়ন করতে হবে। আর বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য বছরে কয়লা আমদানির চাহিদা দাঁড়াবে প্রায় চার কোটি টন। একই সঙ্গে গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য আমদানি করা তরলীকৃত গ্যাস নিয়ে প্রচুর জাহাজ আসা-যাওয়া করবে।
সক্ষমতার সর্বোচ্চ ব্যবহার করা হলেও আগামী ২০২১ সালে এই বন্দর কনটেইনার পরিবহনে দেশের চাহিদা মেটাতে পারবে না। সে জন্য পণ্য পরিবহনের অতিরিক্ত চাহিদা মেটাতে গভীর সমুদ্রবন্দর স্থাপনের কোনো বিকল্প নেই। চট্টগ্রাম বন্দর হচ্ছে বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্যের অর্থনীতিকে চাঙা করার মহৌষধ। দেশের আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যের ৯৮ শতাংশই সম্পন্ন হয় চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে। যে কারণে বছর শেষে দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতির সূচক পরিমাপের জন্য বন্দরের প্রবৃদ্ধিকে অন্যতম মাপকাঠি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। আমদানি পণ্যের কস্টিং এবং বিক্রয়ের মধ্যে ব্যাপক পার্থক্য থাকার কারণে অনেক আমদানিকারক আমদানি থেকে বিরত রয়েছেন। সক্ষমতা বাড়াতে ২০১৯ সালে ১০টি গ্যান্ট্রি ক্রেন যুক্ত হয়েছে বন্দরের বহরে। আরো উল্লেখ্য যে, ওটিএম (উন্মুক্ত দরপত্র) পদ্ধতিতে আরটিজি ও মোবাইল ক্র্যান বিভিন্ন যন্ত্রপাতি সংযুক্ত করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে লক্ষ্য পূরণে ২ বছর এগিয়ে রয়েছে বলে দাবি বন্দর কর্তৃপক্ষের। পরবর্তী সময়ে ২০০৭-০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় জেনেছি এই বন্দরের প্রচুর সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও আমরা কেন পিছিয়ে। শুনেছি শ্রমিক আন্দোলন বা স্থানীয় নেতৃত্বের উসকানিতে কীভাবে বারোটা বেজেছে বন্দরটির। জেনেছি কোথায় কোথায় কাজ করলে আমাদের অর্থনীতির এই ‘লাইফলাইনটি’ আরও শক্তি-সামর্থ্য নিয়ে উঠে দাঁড়াতে পারে। হতে পারে অর্থনৈতিক উন্নয়নের সঙ্গে সমার্থক।
বিগত ৩০ বছরে দেশে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রমের ব্যাপকতা বৃদ্ধির ফলে চট্টগ্রাম বন্দরের কার্যক্রমেরও ব্যাপ্তি বেড়েছে। তথ্যমতে, প্রতিবছর গড়ে প্রায় ১২ শতাংশ হারে বাড়ছে কার্গো-কনটেইনার হ্যান্ডেলিং। সরকার গৃহীত উন্নয়ন প্রকল্পের কারণে এ হার আরও বাড়বে নিশ্চিত। তবে জাহাজের আগমন বাড়লেও পিক সিজনে (এপ্রিল-অক্টোবর) চট্টগ্রাম বন্দরের কার্যক্রমে বিরাট প্রতিবন্ধকতা হিসেবে দেখা দেয় জেটির অপ্রতুলতা।
শুধু জেটির অপ্রতুলতা নয়, দেশের প্রধান সমুদ্রবন্দরটির যথাযথ ব্যবহারে ১৬ ধরনের সমস্যা চিহ্নিত করেছে বন্দর কর্তৃপক্ষ নিজেই। বন্দরটির কী কী সমস্যা ও তা সমাধানের উপায় জানতে চেয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়-সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির এক সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি সংসদীয় কমিটির কাছে একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করেছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ। সেখানে ১৬টি সমস্যার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে এসব সমস্যা সমাধানের উপায়ও বাতলাতে চেষ্টা করেছে কর্তৃপক্ষ।
আগেই বলেছি, প্রতিবেদনে তারা যেসব সমস্যা চিহ্নিত করেছে, তার মধ্যে প্রথমেই রয়েছে জেটির অপ্রতুলতার বিষয়টি। এ সমস্যার সমাধানে দ্রুত পতেঙ্গা কনটেইনার টার্মিনাল (পিসিটি), মাতারবাড়ী পোর্ট ও বে টার্মিনালের নির্মাণকাজ শেষ করা এবং পুরোনো জেটিগুলোর প্রয়োজনীয় সংস্কারের সুপারিশ করেছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। প্রতিবেদনে দ্বিতীয় যে সমস্যাটির কথা বলা হয়েছে সেটি হলো, পর্যাপ্ত কার্গো ও কনটেইনার হ্যান্ডেলিং ইক্যুইপমেন্ট বা সরঞ্জামাদি সংগ্রহে না থাকা। এ বিষয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কার্গো ও কনটেইনার হ্যান্ডেলিং বৃদ্ধির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে হ্যান্ডেলিং যন্ত্রপাতি সংগ্রহ অব্যাহত রয়েছে। কিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় যথেষ্ট নয়। অধিকাংশ ইক্যুইপমেন্ট একনাগাড়ে কর্মক্ষম রাখার প্রয়োজনে প্রায় ২৫ শতাংশ সার্ভিসিংয়ে থাকে। তাই কখনো কখনো অপারেশনাল বা পরিচালন কার্যক্রমে ইক্যুইপমেন্ট সংকট পরিলক্ষিত হয়। এ সমস্যার সমাধান হিসেবে বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনীয় ইক্যুইপমেন্টের তুলনায় ২৫ শতাংশ বেশি সংগ্রহ করে রাখার কথা বলেছে, যাতে কিছুসংখ্যক যন্ত্রপাতি মেরামতে থাকলেও অন্যান্য যন্ত্রপাতি দিয়ে নিরবচ্ছিন্নভাবে বন্দরের পরিচালন কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়। তৃতীয় সমস্যা হিসেবে কনটেইনার সংরক্ষণের ইয়ার্ড বা স্থান সংকুলানকে চিহ্নিত করেছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। এ সমস্যা প্রসঙ্গে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চট্টগ্রাম বন্দরের মাধ্যমে কনটেইনারবাহী আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যের পরিমাণ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্ধিত পরিমাণ কনটেইনার সংরক্ষণের জন্য বন্দর কর্তৃপক্ষ পর্যায়ক্রমে ইয়ার্ড ও স্পেস বৃদ্ধি অব্যাহত রেখেছে। তবে ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ সময়সাপেক্ষ বিধায় সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কনটেইনার সংরক্ষণের ইয়ার্ড বৃদ্ধি করা যায়নি। এর ফলে কখনো কখনো কনটেইনার সংরক্ষণ স্থানের সংকট দেখা দেয়। এ সমস্যা সমাধানে দ্রুত সময়ে কনটেইনার সংরক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত ইয়ার্ড বা স্পেস নির্মাণ করা এবং বে-টার্মিনাল এলাকায় চট্টগ্রাম বন্দরের জন্য ডেলিভারি ইয়ার্ড নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করা প্রয়োজন। পাশাপাশি নতুন নতুন অফডক স্থাপনের অনুমোদন প্রদান করা হলে এ সমস্যা সহজে লাঘব হবে বলে প্রতিবেদনে মত প্রকাশ করা হয়েছে। সম্প্রতি শিপিং-বিষয়ক প্রাচীনতম জার্নাল লয়েড’স লিস্ট বিশ্বের ১০০ বন্দরের ২০২০ সালের সংস্করণ প্রকাশ করেছে। বিশ্বের ১০০ ব্যস্ততম বন্দরের মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দরের বর্তমান অবস্থান ৫৮। চট্টগ্রাম বন্দর ২০১৯ সালে ৩০ লাখ ৮৮ হাজার ১৮৭ টিইইউ (২০ ফুট দীর্ঘ) কনটেইনার পরিচালনা করেছে, ২০১৮ সালে যার পরিমাণ ছিল ২৯ লাখ ৩ হাজার ৯৯৬ টিইইউ। আগের থেকে এই বন্দরে কনটেইনার পরিবহনের বার্ষিক হার ৬ দশমিক ৩ শতাংশ বেড়েছে। যার ফলে, চট্টগ্রাম বন্দর ২০১৮ সালের অবস্থান থেকে ৬ ধাপ এগিয়েছে। ২০১৭ সালে চট্টগ্রাম বন্দরের অবস্থান ছিল ৭০ যা ২০১৬ তে ছিল ৭১। ২০১৫ তে ৭৬ এবং ২০১৪ তে ছিল ৮৭ তম। বাংলাদেশের তৈরি পোশাক বাণিজ্যের কারণে চট্টগ্রাম বন্দরের কনটেইনার পরিবহন ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। শুধু চট্টগ্রাম বন্দর দেশের মোট কনটেইনার পরিবহনের ৯৮ শতাংশ পরিচালনা করে থাকে আর বাকিগুলো পরিচালনা করে মোংলা বন্দর।
আমরা নিশ্চিত, বিদেশি মার্সকলাইন বা আমেরিকান প্রেসিডেন্ট লাইনস নয়, শুধু বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রস্তুত করা করণীয় বা লন্ড্রি লিস্টটি ধরে ভালোভাবে কাজ করতে পারলেই চট্টগ্রাম বন্দরের সক্ষমতা ও দক্ষতা বাড়বে। এ ক্ষেত্রে প্রযুক্তি সহায়তার বিষয়টিকে আরও গুরুত্ব দিতে হবে। সেই সঙ্গে বন্দর ব্যবস্থাপনা টিমের দক্ষতা বৃদ্ধির বিষয়টিও নজর এড়ালে চলবে না।

 

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল


রিটেলেড নিউজ

দুই মাসের মধ্যে গ্যাস সংযোগ দেয়া না হলে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে: কেজিডিসিএল ঠিকাদার গ্রাহক ঐক্য পরিষদ

দুই মাসের মধ্যে গ্যাস সংযোগ দেয়া না হলে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে: কেজিডিসিএল ঠিকাদার গ্রাহক ঐক্য পরিষদ

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: কেজিডিসিএল ঠিকাদার গ্রাহক ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে করোনা সচেতনতায় গণসংযোগ ও মাস্... বিস্তারিত

রাসেল যুবলীগের কার্যনির্বাহী কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন

রাসেল যুবলীগের কার্যনির্বাহী কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৭ম জাতীয় কংগ্রেস-এ কার্যনির্বাহী কমিটিতে সাংগঠনি... বিস্তারিত

তারেক রহমানের দক্ষ নেতৃত্বের মাধ্যমেই গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হবে

তারেক রহমানের দক্ষ নেতৃত্বের মাধ্যমেই গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হবে

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী জনগণ... বিস্তারিত

আ.লীগ প্রতিশোধের রাজনীতি করে না : কাদের

আ.লীগ প্রতিশোধের রাজনীতি করে না : কাদের

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: আওয়ামী লীগ কখনও প্রতিশোধের রাজনীতি করে না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সাধারণ সম্... বিস্তারিত

কোটি মানুষের হৃদয়ের মণিকোটায় স্থান করে নিয়েছে তারেক রহমান

কোটি মানুষের হৃদয়ের মণিকোটায় স্থান করে নিয়েছে তারেক রহমান

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন দেশ নায়ক তারেক রহমানের জন্মদিনে চট্টগ্রাম উত... বিস্তারিত

মাস্ক না পরায় জরিমানা

মাস্ক না পরায় জরিমানা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: করোনা দ্বিতীয় ঢেউ থেকে জনগণকে রক্ষা করতে সবার মুখে মাস্ক পরা নিশ্চিতকরনের লক্... বিস্তারিত

সর্বশেষ

রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের ‘ফ্লু কর্ণার ও ইনভেস্টিগেশন সেল’ পরিদর্শনে বিডিআরসি এস মহাসচিব

রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের ‘ফ্লু কর্ণার ও ইনভেস্টিগেশন সেল’ পরিদর্শনে বিডিআরসি এস মহাসচিব

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: নন কোভিড রোগীদের সেবা প্রদানের লক্ষ্য নিয়ে চলমান মাসব্যাপী ‘ফ্লু কর্ণার ও ইন... বিস্তারিত

সরকার নেতা-কর্মীদের নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়ে বিরোধী মতের উপর নির্যাতন চালাচ্ছে: গাজী সিরাজ

সরকার নেতা-কর্মীদের নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়ে বিরোধী মতের উপর নির্যাতন চালাচ্ছে: গাজী সিরাজ

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল নেতা মহসিন কবির আপেল,আলিফ উদ্দিন রুবেল ও সামিয়াত আমি... বিস্তারিত

মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন থেকে নেতাকর্মীদের বিচ্যুত করতে পারবে না: এবিএম পারভেজ রেজা

মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন থেকে নেতাকর্মীদের বিচ্যুত করতে পারবে না: এবিএম পারভেজ রেজা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি, চট্টগ্রাম বিভাগীয় টিম প্রধান এবিএম পার... বিস্তারিত

‘গাড়ির উপর শুল্ক নিতে বারভিডার আইনগত ভিত্তি নেই’

‘গাড়ির উপর শুল্ক নিতে বারভিডার আইনগত ভিত্তি নেই’

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বারভিডা সদস্যদের আপত্তির মুখে শুধুমাত্র সদস্যদের কাছ থেকেই ‘লেভি’ আদায়ের ... বিস্তারিত