শিক্ষক এমপিওভুক্তিতে ঘুষ-দুর্নীতি

newsgarden24.com    ০১:৫৫ পিএম, ২০২০-০৫-১৭    161


শিক্ষক এমপিওভুক্তিতে ঘুষ-দুর্নীতি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: ঘুষ ও হয়রানিমুক্ত সেবা প্রদানের জন্য শিক্ষকদের এমপিও কার্যক্রম বিকেন্দ্রীকরণ করা হলেও ঘুষ-দুর্নীতি আরও বেড়েছে। শিক্ষক নিয়োগ ও এমপিওভুক্তিতে (মান্থলি পে অর্ডার) সব স্তরেই এখন ঘুষ, দুর্নীতি ও হয়রানির কবলে পড়ছেন শিক্ষকরা। প্রতিষ্ঠান প্রধান থেকে শিক্ষা কর্মকর্তা এবং আঞ্চলিক উপ-পরিচালক থেকে মাউশি অধিদফতরের প্রায় সবকটি স্তরেই ঘুষ দিতে হয়। এমপিওভুক্তির আবেদন অনুমোদন পেতে কর্মকর্তাদের ঘুষ দিতে হয়। কর্মকর্তাদের চাহিদা অনুযায়ী ঘুষ বা উপহারসামগ্রী না দিলে এমপিও পেতে দীর্ঘ জট, নথি খোয়া যাওয়া, অনলাইন নথিকে বিরূপ মন্তব্য ও দুর্ব্যবহার করাসহ নানা রকম হয়রানির শিকার হতে হয় শিক্ষকদের। অভিযোগ পাওয়া গেছে, মাউশি’র শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা দাফতরিক কাজে নিয়মিত সময় না দিয়ে অপ্রয়োজনীয় অনুষ্ঠানে বেশি সময় নিচ্ছেন। তারা ‘মোটা সম্মানি’র লোভে কর্মশালা, সেমিনার, সভা ও প্রাইভেট স্কুল-কলেজের অনুষ্ঠানের পেছনে ছুটছেন। মাঝে মধ্যে সন্ধ্যা ও রাতে মাউশিতে দাফতরিক কাজ চলে। এতে শিক্ষা অধিদফতরে (শিক্ষা ভবন) সেবার মান তলানিতে নামছে; ঘুষ দুর্নীতি আরও বেড়েছে। মাউশি মহাপরিচালক নিজেও দিনে এক দেড় ঘণ্টার বেশি অফিসে সময় দিতে পারছেন না। তাকে অনেক অনুষ্ঠান সামলাতে হয়। এ সুযোগে অধীনস্থ কর্মকর্তারাও একই পন্থা অনুসরণ করছেন।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মাউশি অধিদফতরের মহাপরিচালক বলেন, ‘এ রকম অনেক অভিযোগই আমাদের কাছে আসে। আমরা পর্যায়ক্রমে ব্যবস্থা নেয়। অনিয়ম করে কেউ পার পাবে না। ইতোমধ্যে আমরা বেশ কয়েকজনকে বদলি করেছি। বদলি আরও হবে।’
এদিকে চট্টগ্রাম মেরিন একাডেমি স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীদের কাছ থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগের তীর সভাপতি আবুল কালাম খানের দিকে। টাকা না দেয়ায় অধ্যক্ষসহ দুইজন শিক্ষকের আবেদন অগ্রায়ণ করা হচ্ছে না। ঘুষ না দেয়ায় অবৈধভাবে বরখাস্ত করে তাকে এমপিও বঞ্চিত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ নাসির উদ্দিন। প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষকদের একটি তালিকা তৈরি করে এমপিওভুক্তির জন্য আঞ্চলিক পরিচালকের মাধ্যমে মহাপরিচালক বরাবর প্রেরণের জন্য পাঠানো হয়। ঘুষ না দেয়ার কারণে শিক্ষকদের নাম বাদ দিয়ে অজুহাত সৃষ্টি করে ঢাকায় প্রেরণ করেন।’ তিনি আরও অভিযোগ করেন, শিক্ষকদের নাম সংশোধন ও কর্তন, উচ্চতর স্কেল পাওয়াসহ বিভিন্ন কাজে আঞ্চলিক পরিচালককে নির্ধারিত অংকের ঘুষ দিতে হয়।
মেরিন একাডেমি কলেজ অধ্যক্ষের অভিযোগ, এমপিওভুক্তির জন্য ঘুষ না দেয়ায় জোরপূর্বক তাকে পদত্যাগ করিয়েছিলেন সভাপতি এবং জোর করে পদত্যাগ করানোর বিষয়টি তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে। শিক্ষা বোর্ডের আপিল এন্ড আর্বিট্রেশন কমিটি থেকে অধ্যক্ষ নাসির উদ্দিনকে পুনর্বহাল করতে বলা হলেও তা করেননি সভাপতি আবুল কালাম খান। তাই এমপিওভুক্তির আবেদন করতে পারেননি বৈধ অধ্যক্ষ। আর টাকা দিতে না পারায় ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে নিয়োগ পাওয়া ৩ জন প্রভাষকের একজনের আবেদন অগ্রায়ণ করা হয়নি। অথচ কয়েক লাখ টাকা ঘুষের বিনিময়ে বাকি ২ জন শিক্ষকের এমপিও আবেদন অগ্রায়ণ করা হয়েছে। যদিও ২০১৬ খ্রিষ্টাব্দ থেকে এনটিআরসিএর সুপারিশের প্রেক্ষিতে বিধি সম্মতভাবে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগ দিতে হতো।
এদিকে প্রতিষ্ঠান আইসিটি প্রভাষক নুরুজ্জামান অভিযোগ করেন, টাকা দিতে না পারায় প্রতিষ্ঠানটির চারজন শিক্ষক তাকে হেয়প্রতিপন্ন করা শুরু করেন। এক সময় ইমেইলের মাধ্যমে একটি পদত্যাগপত্র দিতে বাধ্য করেন নুরুজ্জামানকে। কিন্তু সে পদত্যাগপত্র গ্রহণযোগ্য হবে না বলে একাধিক দপ্তরে লিখিতভাবে জানিয়েছেন তিনি। অথচ কয়েক লাখ টাকার বিনিময়ে তার সাথে ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে নিয়োগ পাওয়া দুই জন শিক্ষকের এমপিও আবেদন অগ্রায়ণ করা হয়েছে।
তবে, আদালতে মামলা চলমান থাকায় অধ্যক্ষের পদত্যাগ নিয়ে নিউজগার্ডেন’র সাথে কথা বলেননি সভাপতি আবুল কালাম খান। আর এমপিওভুক্তির জন্য ঘুষ নেয়ার অভিযোগ আস্বীকার করেছেন তিনি। যদিও প্রভাষক নুরুজ্জামানের এমপিও আবেদন নিয়ে নিউজগার্ডেনের সাথে দুই রকম কথা বলেছেন সভাপতি আবুল কালাম খান। একবার তিনি বলেন, 'নুরুজ্জামান এমপিওভুক্তির জন্য যোগাযোগই করেনি তার আবেদন কিভাবে পাঠাবো'। এর কিছুক্ষণ পরেই তিনি আবার বলেন, 'নুরুজ্জামান পদত্যাগ করেছেন, তার আবেদন কিভাবে পাঠাবো'।
অধ্যক্ষ নাসির উদ্দিন নিউজগার্ডেনকে বলেন, ২০১০ খ্রিষ্টাব্দের নিয়োগ পান প্রতিষ্ঠানটিতে। এমপিওর আবেদন করেছিলেন নিজেই। কিন্তু এরপর প্রতিষ্ঠান ১৪ জন শিক্ষক এবং ৩ জন কর্মচারীকে এমপিওভুক্ত করতে ৩৩ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন সভাপতি আবুল কালাম খান। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সভাপতির ভগ্নিপতি এবং ভায়রা ভাই উচ্চপদে চাকরি করেন তাই এমপিওভুক্তির কাজ সহজ হবে বলে এ টাকা চাওয়া হয়। কয়েকজন শিক্ষক সহজে এমপিওভুক্ত হওয়ার আশায় টাকা দিতে চায়। কিন্তু আমি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানাই। পরে ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ২৯ জানুয়ারি বহিরাগত কয়েকজনকে দিয়ে অধ্যক্ষ পদ থেকে পদত্যাগ করাতে বাধ্য করা হয়। পরে এ নিয়ে অভিযোগ দিলে তা তদন্ত হয় এবং তদন্তে জোর করে পদত্যাগ করানোর বিষয়টি প্রমাণিত হয়। পরে আপিল ও আর্বিট্রেশন কমিটিতে তদন্ত প্রতিবেদন উপস্থাপিত হলে অধ্যক্ষ পদে পুনর্বহাল করার নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু সে নির্দেশ না মেনে সভাপতি রিট মামলা করেন। ফলে আমি আবেদন করতে পারিনি।
প্রতিষ্ঠানটির সভাপতির মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দের ১০ অক্টোবর। কিন্তু তারপরও তিনি রিট মামলা দায়ের করে সভাপতি পদে বহাল রয়েছেন আবুল কালাম খান। সে মামলার স্থগিতাদেশের মেয়াদ গত এপ্রিল মাসে শেষ হয়ে গেছে। সে প্রেক্ষিতে এখন প্রতিষ্ঠানটিতে কোন সভাপতি নেই। তবুও শিক্ষকদের কাছ থেকে প্রায় ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন সভাপতি আবুল কালাম খান। প্রতিজন শিক্ষকের কাছে ১ লাখ টাকা করে দাবি করা হয়েছে।
অধ্যক্ষ নাসির উদ্দিন নিউজগার্ডেনকে আরও জানান, আমার স্ত্রী প্রতিষ্ঠানটির একজন প্রভাষক। তার এমপিওভুক্তির জন্যও ৭০ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে। প্রায় ২০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি। টাকা দিতে না পারায় আমাকে এবং প্রভাষক নুরুজ্জামানকে এমপিওভুক্তির আবেদন করতে দেয়া হয়নি
প্রভাষক নুরুজ্জামান নিউজগার্ডেনকে বলেন, ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে ৩ জন শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়। এদের মধ্যে দুইজন শিক্ষক এমপিওভুক্তির জন্য টাকা দিতে রাজি হন তাদের এমপিও আবেদন পাঠানো হয়েছে। কিন্তু ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দে যখন আমার কাছে টাকা চাওয়া হয় আমি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানাই। এতে কয়েকজন শিক্ষকরা আমাকে টাকা দিতে চাপ দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে আমি একটি পদত্যাগপত্র ইমেইলে পাঠাতে বাধ্য হই। পরে পদত্যাগপত্র ইমেইলে পাঠানো যে গ্রহণযোগ্য হবে না তা জানিয়ে দপ্তরে আবেদন জানিয়েছি। কিন্তু আমাকে এমপিও আবেদন করতে দেয়া হয়নি।
তবে, নিউজগার্ডেনের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সভাপতি আবুল কালাম খান। তিনি নিউজগার্ডেনেকে জানান, এমপিওভুক্তির জন্য কোন টাকা লেনদেন করা হয়নি। যারা অভিযোগ করেছেন তারা আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য করেছেন। তিনি নিউজগার্ডেনকে আরও বলেন, অধ্যক্ষ নাসির উদ্দিনের পদত্যাগের বিষয়টি নিয়ে মামলা আদালতে চলমান রয়েছে তাই এ বিষয়ে আমি কোন কথা বলতে চাচ্ছি না।
এ প্রসঙ্গে মাউশির পরিচালক বলেন, অভিযোগ পেলে গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা এবং ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এরই মধ্যে কিছু পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছে। কোনো শিক্ষক ক্ষতিগ্রস্ত হোক- তা আমরা চাই না। কারও প্রতি অন্যায় হলেও দেখা হবে।    

 

সাবস্ক্রাইব ইউটিউব চ্যানেল


রিটেলেড নিউজ

শহীদ জিয়ার ৩৯তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে চবি ছাত্রদল’র খাবার বিতরণ

শহীদ জিয়ার ৩৯তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে চবি ছাত্রদল’র খাবার বিতরণ

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: স্বাধীনতার মহান ঘোষক, বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বী... বিস্তারিত

জাতীয়তাবাদী আদর্শের নেতাকর্মীদের প্রেরণার উৎস আবদুল্লাহ আল নোমান: চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল

জাতীয়তাবাদী আদর্শের নেতাকর্মীদের প্রেরণার উৎস আবদুল্লাহ আল নোমান: চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ডাকে সাড়া দিয়ে জীবনের মায়া ত্যাগ কর... বিস্তারিত

আধুনিক বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান: গাজী সিরাজ

আধুনিক বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান: গাজী সিরাজ

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি... বিস্তারিত

ব্যতিক্রমী এই ঈদে নেতাকর্মীদের সাথে ঈদ উদযাপন করলো চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল

ব্যতিক্রমী এই ঈদে নেতাকর্মীদের সাথে ঈদ উদযাপন করলো চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক,বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ার... বিস্তারিত

ক্ষুধার জ্বালায় রাস্তায় নেমে আসা ক্ষুধার্ত মানুষের হাতে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে কোতোয়ালি থানা ছাত্রদল

ক্ষুধার জ্বালায় রাস্তায় নেমে আসা ক্ষুধার্ত মানুষের হাতে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে কোতোয়ালি থানা ছাত্রদল

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক,বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ার... বিস্তারিত

বাকলিয়ায় ছাত্রলীগের সেহরি বিতরণ

বাকলিয়ায় ছাত্রলীগের সেহরি বিতরণ

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: দূর্যোগময় পরিস্হিতে চট্টগ্রাম মহানগরের ১৯নং দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ডে গরীব ও অ... বিস্তারিত

সর্বশেষ

বার কাউন্সিলের সদস্য এডভোকেট কবির চৌধুরীর ইন্তেকাল, বিএনপির শোক

বার কাউন্সিলের সদস্য এডভোকেট কবির চৌধুরীর ইন্তেকাল, বিএনপির শোক

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক সদস... বিস্তারিত

সাংবাদিক ফারজানার আইডিয়া অনেকটা ম্যাজিকের মত!

সাংবাদিক ফারজানার আইডিয়া অনেকটা ম্যাজিকের মত!

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: ফিশ রিভারে মাত্র ১০ হাজার টাকাই তার পুঁজি। আর কোন পুঁজি যোগ হয়নি। কেবল লাভের টা... বিস্তারিত

চবিতে ইমারজেন্সি রেসপন্স টিম’র জরুরী সভা

চবিতে ইমারজেন্সি রেসপন্স টিম’র জরুরী সভা

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: বিশ্বব্যাপি করোনা ভাইরাস মহামারী আকার ধারণ করায় বাংলাদেশে উদ্ভুত পরিস্থিতির ... বিস্তারিত

এডভোকেট কবির চৌধুরীর মৃত্যুতে চট্টগ্রাম নগর স্বেচ্ছাসেবক দলের শোক

এডভোকেট কবির চৌধুরীর মৃত্যুতে চট্টগ্রাম নগর স্বেচ্ছাসেবক দলের শোক

newsgarden24.com

নিউজগার্ডেন ডেস্ক: প্রথিতযশা প্রবীণ আইনজীবী চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি, বাংলাদেশ বার ... বিস্তারিত