মানসিক রোগের কারণ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১১ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার: মনোরোগ বিজ্ঞান বা মানসিক রোগ বিজ্ঞান (ইংরেজি: Psychiatry) হচ্ছে মানসিক রোগের চিকিৎসা বিষয়ক অধ্যয়ন। এই অধ্যয়নে মানসিক রোগের ব্যপ্তি, কারণ, নিদান, প্রতিকার ও প্রতিরোধের উপর গুরুত্ব দেওয়া হয়। অন্যদিকে, মনোবিজ্ঞান বা মনস্তত্ত্ব (Psychology) বিষয়ে সাধারণত মনের (রোগবিহীন) বিষয়ে অধ্যয়ন করা হয়। মনোরোগ বিজ্ঞান অধ্যয়ন করে এই বিভাগের চিকিৎসা প্রদানকারীদেরকে ‘মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ’ (Psychiatrist) বলা হয়।

Psychiatry শব্দটি প্রথমে ব্যবহার করেছিলেন ১৮০৮ সালে জার্মান চিকিৎসক ‘জোহান ক্রিস্টিয়ান রেইল’ (Johann Christian Reil)। Psychiatry শব্দটির আক্ষরিক অর্থ হচ্ছে মানসিক রোগের ভেষজ চিকিৎসা

সাধারণত মানসিক রোগ নির্ণয়ের জন্য রোগীর লক্ষণসমূহর বিষয় ও অন্যান্য প্রাসংগিক তথ্য আহরণ করা হয় ও ‘মানসিক স্থিতির পরীক্ষণ’ (Mental Status Examination) করা হয়। কিছুক্ষেত্রে মনোবৈজ্ঞানিক পরীক্ষার (Psychoogical test) সহায়তা নেওয়া হয়। এইভাবে রোগ চিনে নেওয়ার পরে তার চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন পদ্ধতি যেমন ঔষধ, ব্যবহারিক চিকিৎসা, মনোবৈজ্ঞানিক চিকিৎসা, বৈদ্যুতিক মৃগী সৃষ্টি (Electro Convulsive Therapy, সংক্ষেপে ECT) ইত্যাদি বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়।

সম্প্রতি বিশ্বে মানসিক রোগের প্রাদুর্ভাব বাড়ছে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রকাশ করেছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: