পাকিস্তানের ক্রীড়াঙ্গনে পরিবর্তন!

নিউজগার্ডেনডেস্ক, ১৪ সেপ্টম্বর ২০১৮, শুক্রবার: ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ হয়ে যাওয়া পাকিস্তানের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ইমরান এখন দেশটির ২২তম প্রধানমন্ত্রী। ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী হওয়া ক্রিকেট বিশ্লেষকদের অনেকেই মনে করছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটের পরিবর্তন আসতে পারে। ইমরান খান প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ অনুষ্ঠানে তার সময়কার ক্রিকেটারদের নিয়ে বিষয়টি জানান।
সাবেক তারকা ক্রিকেটার ইমরান খান পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনেরও বহু আগে থেকে বলেছিলেন নাজাম শেঠি বোর্ড চেয়ারম্যান পদের উপযুক্ত নন। তিনি এও জানিয়ে রেখেছিলেন যে ক্ষমতায় এলে শেঠি এই পদে রাখবেন না।
হয়ত এ কারণেই গত সোমবার পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়ান নাজাম শেঠি। তার পদত্যাগের কিছু সময় পর টুইটারে পিসিবির নতুন সভাপতি হিসেবে আইসিসির সাবেক সভাপতি এহসান মানিকে নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন ইমরান খান।
পাকিস্তানের অন্যতম সেরা পেস বোলার ইমরান খান আরও বলেন, অফিস দল কেন্দ্রিক চর্চার পরিবর্তে আঞ্চলিক ক্রিকেটকে চাঙ্গা করা হবে। দেশে মেধাবী খেলোয়াড় বের করে আনার জন্য আঞ্চলিক ক্রিকেটই যথেষ্ট। পাকিস্তানে ছয়টির মতো আঞ্চলিক দল আছে।
পাকিস্তানের সাবেক তারকা ক্রিকেটা আকিব জাভেদ মনে করেন, ছয়টির পরিবর্তে আঞ্চলিক দলের সংখ্যা আটটি উন্নীত করা হোক। অতীতে ক্রিকেটাররা চাকরির জন্য অফিস দলের উপর নির্ভর করতো। কিন্তু তারা তারকা খ্যাতি পেতেন যখন জাতীয় দলে অন্তর্ভুক্ত হতেন। কিন্তু ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক পাকিস্তান সুপার লিগ এসে সে প্রেক্ষাপটকে বদলে দিয়েছে।
ক্রিকেট ছাড়াও পাকিস্তানের অন্য খেলাগুলোর ব্যাপারেও চিন্তিত ইমরান খান। বিশেষ করে অলিম্পিকের সময় সেদেশের অ্যাথলেটদের পারফরমেন্স। কারণ এই অ্যাথলেটরা প্রাক যোগ্যতা নির্ধারণী পর্যায়েও যেতে পারেন না। তাই তিনি পাকিস্তানের পুরো ক্রীড়াক্ষেত্রেই ইতিবাচক পরিবর্তনের অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: