যে কোনো সময় গণজোয়ারে ভেসে যাবে আওয়ামী সরকার: অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন

নিউজগার্ডেনডেস্ক, ১৩ সেপ্টম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার: বিএনপি নেতারা প্রতিদিনই বলে যাচ্ছেন যেকোন সময় সরকারের পতন হবে। এ সরকারের ভীত নড়ে গেছে। সরকারের পতন ঘটিয়ে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে। আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারের নৌকা পানিতে ভেসে যাবে। সরকার পতনের আন্দোলনের হুঙ্কারের কারণে ঢাকাসহ সারাদেশে ধরপাকড় করছে পুলিশ এমনটা মনে করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। ঢাকায় মানববন্ধন ও প্রতীকি অনশনের দুটি কর্মসূচি থেকে ২০০ জন নেতাকর্মী গ্রেফতারের অভিযোগ করেছেন বিএনপি নেতারা।
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, পতন নিশ্চিত বুঝতে পেরে সরকার মরিয়া হয়ে পালাবার পথ খুঁজছে। মরিয়া হয়ে শেষ চেষ্টা করছে কীভাবে বিএনপিকে দমন করা যায়, জনগণের ঐক্য বন্ধ করা যায়, জাতীয় ঐক্যকে বন্ধ করা যায়।
আগামী এক মাসের মধ্যে দেশে প্রবল আন্দোলন গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেছেন, এই আন্দোলনে নৌকা ভাসিয়ে দেওয়া হবে। মওদুদ বলেন, আর বেশি সময় নেই, এই এক মাসের মধ্যে এমন আন্দোলনের ব্যবস্থা করতে হবে যার মাধ্যমে এই সরকারের নৌকা পানিতে ভেসে যাবে।
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, বর্তমান সরকার এখন মাতাল অবস্থায় রয়েছে। তারা যা খুশি তাই করছে। জনগণ এ বাকশালী সরকারকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। যেকোনো সময় গণজোয়ারে ভেসে যাবে আওয়ামী সরকার। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আন্দোলন কখনও বলে কয়ে হয় না। আপনারা প্রস্তুত থাকেন, আন্দোলন হবে। অচিরেই আন্দোলন হবে আর সে আন্দোলনে এ সরকারের পতন হবেই। সরকারের বিরুদ্ধে নানা হুঁশিয়ারি দিয়ে বিএনপির স্থানীয় কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, সাবধান হয়ে যান, আপনাদের পতন ঘণ্টা বেজে গেছে। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী বলেছেন, সরকারের পতনের মহালগ্ন উপস্থিত হয়েছে। আর কোনো উপায় নেই, এবার তাদের ক্ষমতা ছাড়তেই হবে। আমরা সুস্পষ্টভাবে আবারও জানিয়ে রাখি, গণদাবি উপেক্ষা করলে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার আন্দোলন তীব্র থেকে তীব্রতর হবে। বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, ক্ষমতা হারানোর ভয়ে আতঙ্কিত সরকারের যে কোনো মুহূর্তে পতন ঘটতে পারে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: