আমির খসরু’র বিরুদ্ধে মামলার ঘটনায় চট্টগ্রাম বিএনপির নিন্দা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৫ আগস্ট ২০১৮, রবিবার: বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর অডিও ফোনালাপ প্রচার ও পরবর্তীতে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের ঘটনাকে বিএনপি নেতাদের বিরুদ্ধে সুগভীর চক্রান্ত ও সরকারের নতুন নীল নকশা উল্লেখ করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চট্টগ্রামের বিএনপি নেতৃবৃন্দ। বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান এম মোরশেদ খান, মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা বেগম রোজী কবীর, গোলাম আকবর খোন্দকার, এস এম ফজলুল হক ফজু, বিএনপির কেন্দ্রীয় সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি ডাঃ শাহাদাত হোসেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভপতি জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর, সিনিয়র সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান, দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গাজী শাহজাহান জুয়েল, উত্তর জেলা বিএনপি নেতা এম এ হালিম, চাকসু ভিপি নাজিম উদ্দিন, ইঞ্জিনিয়ার বেলায়েত হোসেন, চট্টগ্রাম মহানগর যুবদল সভাপতি মোশারফ হোসেন দিপ্তী, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহেদ, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদল সভাপতি গাজী মো. সিরাজ উল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বুলু, চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা দলের সভাপতি মনোয়ারা বেগম মনি, সাধারণ সম্পাদক জেলী চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি এইচ এম রাশেদ খান, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আলী মর্তুজা খান, চট্টগ্রাম মহানগর তাঁতী দলের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম ও সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মুরাদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ আজ এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, নিরাপদ সড়কের দাবীতে স্কুল শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে দেশের সাধারণ মানুষের সর্বাত্মক সমর্থনের মত দেশের দায়িত্বশীল প্রধান রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপিও এই আন্দোলনকে যৌক্তিক উল্লেখ করে নৈতিক সমর্থন দিয়েছিল। দেশের পরিবহণ ব্যবস্থায় চরম নৈরাজ্যকর অবস্থা নিরসনে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবী ও আন্দোলনকে ভিন্ন হাতে প্রবাহিত করে সরকার নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে একজন মন্ত্রীকে রক্ষায় বিএনপিসহ বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর ইন্ধনের অপপ্রচার চালাচ্ছে। সরকারের মন্ত্রীরা আন্দোলনের শুরু থেকেই বিভিন্ন ষড়যন্ত্রের গন্ধের অনুসন্ধান শুরু করে। যা সুদীর্ঘ সময়ের অব্যস্থা, দুর্নীতি ও অপশাসনকে আড়াল করার অপচেষ্টা ছাড়া আর কিছুই নয়। নেতৃবৃন্দ বলেন, স্কুল শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে জড়িয়ে তার কণ্ঠস্বর ব্যবহার করে যে অডিও ফোনালাপ প্রচার করা হচ্ছে তা বিএনপির বিরুদ্ধে সরকারের ধারাবাহিক ষড়যন্ত্রের আর একটি নমুনা।
বিএনপি নেতারা বলেন, তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে যে কোন মানুষের কণ্ঠস্বর অবিকল নকল করা যায়। যা সরকারে ভেতরের প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ গণ আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর মত একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদকে বিতর্কিত করারই ঘৃণ্য অপচেষ্টা মাত্র। আমরা সরকারের এই হীন ষড়যন্ত্রের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। একই সঙ্গে ঢাকা ও দেশের বিভিন্ন স্থানে শিক্ষার্থীদের উপর সরকারের সশস্ত্র পেটুয়া বাহিনীর হামলার নিন্দা জানিয়ে নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকারের চাপে ঝিগাতলাসহ বিভিন্ন স্থানে স্কুলের শিক্ষার্থীদের উপর সশস্ত্র হামলার সঠিক চিত্র গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়নি। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সরকারী ষড়যন্ত্র বন্ধ করে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে দায়ের করা হয়রাণীমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবী জানান।
আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে চট্টগ্রামে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচি সমূহ: ৭ আগস্ট মঙ্গলবার বিকাল ৩ টায় চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির উদ্যোগে নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয় মাঠে প্রতিবাদ সমাবেশ, ৮ আগস্ট বুধবার চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশ ও ৯ আগস্ট চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশ।

Leave a Reply