রমজান আমাদেরকে সমাজের অসহায় মানুষের দুঃখ অনুধাবন করার শিক্ষা দিয়ে থাকে: তৌহিদুল ইসলাম

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৫ জুন ২০১৮ ইংরেজী, শুক্রবার: বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির’র কেন্দ্রীয় কলেজ কার্যক্রম সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম বলেন দেশে প্রচলিত আর্থ-সামাজিক ব্যবস্থায় অর্থনৈতিক বৈষম্য আমাদের সমাজে এক শ্রেণির মানুষকে অস্বাভাবিক ধন-সম্পদ বাড়িয়ে সম্পদের পাহাড় গড়াচ্ছে। অন্য দিকে না খেয়ে যেখানে সেখানে রাত যাপন করা অসহায়-দুঃখী মানুষের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে। এমন সহায়হীন মানুষ যেখানে তাদের পরিবারের জন্য আবাসন, খাবার, শিক্ষার মতো মৌলিক অধিকার পূরণ করতে হিমশিম খাচ্ছে সেখানে তারা ঈদের আনন্দ উপভোগ করার সুযোগ থেকে বঞ্চিত থাকছে। কিন্তু তাদের প্রতি সমাজ বা রাষ্ট্রের কোন দায়বদ্ধতা না থাকায় এসব মানুষেরা বার বার উপেক্ষিত থেকে যাচ্ছে। সমাজে প্রচলিত পুঁজিবাদী ব্যবস্থায় এমন আর্থিক বৈষম্য চরম আকার ধারণ করেছে। একমাত্র ইসলামী অর্থব্যবস্থায় মানুষকে এ ধরণের বৈষম্য থেকে মুক্তি দিতে পারে। কেননা ইসলামী বিধানের অন্যতম রোজা মানুষকে গরীব-দুঃখীর কষ্ট অনুধাবনের শিক্ষা লাভে সহায়তা করে। রোজার মাধ্যমে আমরা সহমর্মিতা ও সহনশীলতার শিক্ষা অর্জন করা হয়। এর প্রতিফল হিসেবে আল্লাহর নিকট থেকে পরকালীন চির সুখের আবাস জান্নাত লাভ করা সম্ভব। মুসলমানরা দীর্ঘ এক মাস সিয়াম পালনের পর পবিত্র ঈদুল ফিতরের আনন্দ উদযাপন করে। কিন্তু সমাজের অসহায় দুঃখী মানুষেরা ধনিক শ্রেণির আনন্দ দেখে তাদের ঈদের দিন কাটায়। আর্থিক দৈন্যতার কারণে তারা ঈদের পরম আনন্দ উপভোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এজন্য তিনি সমাজের এসব সুবিধা বঞ্চিত অসহায় মানুষের ঈদের পূর্ণতা দিতে বিত্তবানদের অসহায়, গরিব-দুঃখীর পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানান।
চট্টগ্রাম মহানগরী উত্তর শিবিরের উদ্যোগে গরীব ও দুঃস্থদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আজ (১৫.০৬.’১৮) এসব কথা বলেন। সেক্রেটারী আ স ম রায়হান’র পরিচালনায় এতে আরো বক্তব্য রাখেন নগর উত্তর সভাপতি আহমেদ সাদমান সালেহ, শিবির নেতা কামাল হোসাইন, আমান উল্লাহ প্রমুখ।
নগর উত্তর সভাপতি আহমেদ সাদমান সালেহ বলেন আল্লাহর সৃষ্টি জগতের মধ্যে মানুষই সেরা জীব। মানুষের আর্থিক অবস্থা কখনোই মানদন্ড হতে পারেনা। মানুষের মাঝে ধনী-দরিদ্র ভেদাভেদ আমাদের সমাজকে এক ধরণের অনাকাংখিত ফাটল সৃষ্টি করছে যা কোনভাবেই কাম্য নয়। ছাত্রশিবির সমাজের এ অদৃশ্য বিভেদ ভুলিয়ে দিতে আর্থিকভাবে কষ্টে থাকা মানুষের পাশে দাঁড়াতে সাধ্য মতো চেষ্টা করে যাচ্ছে। অনুষ্ঠানে শিবির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত শতাধিক অসহায় গরীব ও দুঃস্থ মানুষদের হাতে নতুন কাপড়, সেমাই, চিনি, নারকেল সহ বিভিন্ন ধরণের ঈদ সামগ্রী তুলে দেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: