সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভান্ডারীর (কঃ) ১১৩তম উরস উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৯ জানুয়ারী ২০১৯ ইংরেজী, বুধবার: উপমহাদেশের বরেণ্য সুফি সাধক, ত্বরিকা-ই-মাইজভান্ডারীয়ার প্রবর্তক গাউসুল আযম হযরত শাহ্ সুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভান্ডারীর (কঃ) ১১৩তম উরস উপলক্ষে ‘শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারী (কঃ) ট্রাস্ট’ ১০ দিনব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। ৯ জানুয়ারি বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ট্রাস্টের কর্মকর্তারা কর্মসূচি ঘোষণা করেন।সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ‘শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারী (কঃ) ট্রাস্ট’র সচিব এ এন এম এ মোমিন। তিনি বলেন, গাউসুল আযম শাহ সুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভান্ডারীর (কঃ) বৈধ উত্তরাধিকার হিসেবে পরিচিত এ ত্বরিকার উজ্জ¦ল নক্ষত্র শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারীর (কঃ) নামে ২০১১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এই ট্রাস্ট। ২০১৯ সালে থিম হিসেবে আমরা নির্ধারণ করেছি “অসাম্প্রদায়িক ধর্মনীতি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জন কল্যাণ”। এ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে আমরা ১০দিনের কর্মসূচী ঘোষণা করছি।
ট্রাস্টের মিডিয়া উপদেষ্টা ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামলের সঞ্চালনায় শুরুতে কুরআন তেলাওয়াত করেন মোহাম্মদ নূরুল মোস্তফা। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ১৪ জানুয়ারি সোমবার সকালে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ১৭ পর্বের যাকাত বিতরণ কর্মসূচি, ১৫ জানুয়ারি মঙ্গলবার বিকেল ৩টায় নগরীর বিবিরহাটস্থ এস জেড এইচ এম ট্রাস্ট মিলনায়তনে “আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার: ধর্মীয় মূল্যবোধ এবং বর্তমান সমাজ” বিষয়ে ট্রাস্টের মহিলা সংগঠন ‘আলোর পথে’র উদ্যোগে মহিলা মাহফিল, একই দিন বিকেল ৪ টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব বঙ্গবন্ধু হলে ‘আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সম্মিলন’, ১৭ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ট্রাস্টের বহদ্দারহাটস্থ ‘ডিউ উদয়ন’ মিলনায়তনে ‘শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারী (কঃ) বৃত্তি তহবিল’-এর ব্যবস্থাপনায় ‘মেধা বৃত্তি’ প্রাপ্তদের মধ্যে বৃত্তির অর্থ প্রদান অনুষ্ঠান। ১৮ জানুয়ারি শুক্রবার সকাল ৯টায় নাসিরাবাদ সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ‘যুগপূর্তি উৎসব: ১২তম শিশু-কিশোর সমাবেশ ও পুরস্কার বিতরণী’ এবং মাইজভান্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রিয় পর্ষদ নিয়ন্ত্রণাধীন শাখা কমিটিসমূহের ব্যবস্থাপনায় স্ব স্ব এলাকার মসজিদে কুরআন তেলাওয়াত ও মিলাদ মাহফিল। ১৯ জানুয়ারি শনিবার বিকেল ৪টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব বঙ্গবন্ধু হলে “আধুনিক সমাজ গঠনে আলিমদের ভূমিকা ও গাউসুল আযম মাইজভান্ডারীর দর্শন” শীর্ষক ‘উলামা সমাবেশ’। ১৯, ২০ জানুয়ারি শনি ও রবিবার যথাক্রমে ট্রাস্ট নিয়ন্ত্রণাধীন সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের নীতি-নৈতিকতা আলোচনা এবং র‌্যালী আয়োজন। ২২ জানুয়ারি মঙ্গলবার গাউসিয়া হক মনজিলের উদ্যোগে ফটিকছড়ি উপজেলার রেজিস্টার্ড এতিমখানাসমূহের শিক্ষার্থীদের মাঝে একবেলা খাবার সরবরাহ, ২৩ জানুয়ারি বুধবার এস জেড এইচ এম ট্রাস্ট কর্তৃক দেশের জাতীয় দৈনিকে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ, ইসলামী ইতিহাস ও ঐতিহ্য সম্বলিত দূর্লভ চিত্র ও ভিডিও প্রদশর্নী, নগরীর মুরাদপুর হতে মাইজভান্ডার শরিফ পর্যন্ত বি আর টি সি’র বিশেষ বাস সার্ভিস, উপদেশমূলক দিক-নির্দেশনা সম্বলিত প্রচার, বিশুদ্ধ পানীয়-জলের ব্যবস্থা, অস্থায়ী টয়লেটের ব্যবস্থা। ২৪ জানুয়ারি উরসের পরদিন সকাল ৭টায় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে ১০ দিনব্যাপী কর্মসূচি সমাপ্ত হবে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ট্রাস্টের সচিব এ এন এম এ মোমিন, ট্রাস্টের মিডিয়া উপদেষ্টা নাজিমুদ্দীন শ্যামল, প্রশাসনিক কর্মকর্তা তানভীর হোসাইন ও মোহাম্মদ নূরুল মোস্তফা।

Leave a Reply

%d bloggers like this: