ইবি’র ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড স্থাগিত

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৯ জুলাই ২০১৮, সোমবার: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড স্থাগিত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সোমবার রেজিস্ট্রার দপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
নিয়োগ বাণিজ্যের অডিও ফাঁস, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা, ইউজিসির তদন্ত কমিটি, চাকরি প্রত্যাশী ছাত্রলীগ কর্মীদের বাধাসহ বিভিন্ন কারণে একাধিক বার ওই বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড স্থগিত হয়।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অনিবার্য কারণবশতঃ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড স্থগিত করা হলো। উক্ত বোর্ডের পরিবতির্ত সময় ও তারিখ পরে জানিয়ে দেয়া হবে।
২০১৫ সালের ২০ অক্টোবর ওই বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে প্রশাসন। পরের বছর ২৬ জানুয়ারি শিক্ষক নিয়োগ নির্বাচনী বোর্ডের তারিখ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। ওই সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছিলেন অধ্যাপক ড. আবদুল হাকিম সরকার। পরে অনিবার্য কারণ দেখিয়ে বোর্ড স্থগিত করে কর্তৃপক্ষ। ওই সময় ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের সভাপতি ছিলেন ড. রুহুল আমীন। পরে গণমাধ্যমে সভাপতি রুহুল আমীন বিরুদ্ধে থ্রি ফাস্ট ক্লাসে ১২, ফোর ফাস্ট ক্লাসে ১৫ শিরোনামে নিয়োগ বাণিজ্যের অডিও ফাঁসের খবর প্রকাশিত হয়।
অডিওতে রুহুল তার বন্ধু এশিয়ান ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক মো. আব্দুল হাকিমের সঙ্গে ১০ মিনিট নিয়োগ বাণিজ্যে নিয়ে কথা বলেন। পরে পুণরায় শিক্ষক নিয়োগ বোর্ডে স্থগিতাদেশ প্রদান করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
একই সাথে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজম্যান্ট বিভাগের অতিরিক্ত পরিচালক ও ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক ড. এম শাহ নেওয়াজকে আহ্বায়ক করে দুই সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি করে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশিন ইউজিসি। এখন পর্যন্ত কমিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে তদন্তে আসেনি বলে জানা গেছে। কোনো প্রতিবেদনও জমা দেয়নি এ কমিটি।
বর্তমান কর্তৃপক্ষ পুনরায় ওই বিভাগের শিক্ষক নিয়োগ বোর্ডের তারিখ ঘোষণা করে। সোমবার তা আবারো স্থগিত করে প্রশাসন। উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ কারণে শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড স্থগিত করা হয়েছে।’

Leave a Reply