বেগম জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে সম্পূর্ণ উদাসীন সরকার: আবু সুফিয়ান

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১০ জুন ২০১৮ ইংরেজী, রবিবার: চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আলহাজ্ব আবু সুফিয়ান বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন যাবৎ উচ্চ রক্তচাপসহ নানা জটিল রোগে আক্রান্ত। সম্প্রতি তিনি লন্ডনে চোখের অপারেশন সম্পন্ন করেছিলেন। তিনি কোন সাধারণ রোগী নন। চিকিৎসকের পরিভাষায় তিনি একজন বিশেষ পরিচর্যা সাপেক্ষ রোগী। অথচ সরকার এবং কারা কর্তৃপক্ষ তার চিকিৎসার ব্যাপারে সম্পূর্ণ উদাসীন। তিনি আজ ১০ জুন রবিবার দুপুরে নাসিমন ভবনস্থ দলীয় কার্যালয়ে বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার দাবীতে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে এক বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে এ কথা বলেন। এতে তিনি আরো বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে বার বার দাবী করার পরও সরকার বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার প্রয়োজনীয় কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। তার প্রয়োজন একটি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দলের তত্ত্বাবধানে জরুরী চিকিৎসা নেয়া। কিন্তু দলের নেতৃবৃন্দের দাবী এবং চিকৎসকদের পরামর্শ সরকার ক্রমাগত উপেক্ষা করে চলছে। এতে মনে হয় সরকার এবং সরকার প্রভাবিত প্রশাসনযন্ত্র দেশনেত্রীকে নিয়ে কোন গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে নিয়ে সরকারের প্রতিহিংসা যেন বেড়েই চলছে। তার সুচিকিৎসার জন্য ব্যক্তিগত চিকিৎসকবৃন্দ, দলের নেতৃবৃন্দ, দেশের নানা শ্রেণী, পেশার মানুষ সোচ্চার থাকলেও সরকার অশুভ এক উদ্দেশ্য নিয়ে তা অগ্রাহ্য করছে এবং চিকিৎসায় বাধা প্রদান করছে। সরকারের আচরণে মনে হচ্ছে তারা খালেদা জিয়াকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে। তিনি আরও বলেন, আইনি প্রক্রিয়ায় বেগম জিয়ার চিকিৎসা ও মুক্তি মিলবে না। বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য আমাদের রাজপথে সংগ্রাম করতে হবে। আন্দোলনের মাধ্যমে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত করতে হবে। তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের আন্দোলন-সংগ্রামের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করার আহবান জানান। চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস এম সাইফুল আলম এর পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহসভাপতি হারুন জামান, যুগ্ম সম্পাদক কাজী বেলাল উদ্দিন, ইসকান্দর মির্জা, আর ইউ চৌধুরী শাহীন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আনোয়ার হোসেন লিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক শিহাব উদ্দিন মবিন, ডা. এস এম সরওয়ার আলম, হালিশহর থানা বিএনপির সভাপতি মোশাররফ হোসেন ডেপতি, নগর বিএনপির সহসম্পাদকবৃন্দ মো. ইদ্রিস আলী, আজাদ বাঙালী, ইউনুস চৌধুরী হাকিম, আবু মুসা, নগর বিএনপির সদস্য ইউসুফ সিকদার, বেলায়েত হোসেন, শাহীন আহমেদ কবীর, ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোশাররফ জামান, সাধারণ সম্পাদক এম এ হালিম বাবলু, এস এম আবুল কালাম আবু, সিরাজুল ইসলাম মুনসি, আনোয়ার হোসেন আরজু, নগর ছাত্রদল নেতা সৌরভ প্রিয় পাল, আবু বক্কর রাজু, কামরুল ইসলাম কুতুবী, সৈয়দ সাফওয়ান আলী প্রমুখ।

Leave a Reply