মোবাইলের নীল আলো থেকে চোখ বাচাঁনোর ৩ উপায়

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ২৩ মে ২০১৮
অনেকেই রাতে শুতে যাওয়ার সময় বালিশের পাশে মোবাইল ফোন রাখেন। আর ঘুম যতক্ষণ না আসছে, ততক্ষণ হোয়াটস অ্যাপ অথবা ফেসবুকে চলতে থাকে দাপাদাপি। আর এই করতে করতে কখন যে ঘড়ির কাঁটা পরের দিনে ঢুকে যায়, সেদিকে খেয়ালই থাকে না বেশিরভাগের। আপনিও কি এমনটা করে থাকেন নাকি? তাহলে আজ থেকেই বন্ধ করুন এই অভ্যাস। না হলে শরীরের মারাত্মক ক্ষতি হয়ে যেতে পারে।

আসলে অন্ধকারে মোবাইলের নীল আলো চোখের মারাত্মক ক্ষতি তো করেই। সেই সঙ্গে শরীরে মেলাটোনিন হরমোনের ক্ষরণ কমিয়ে দেয়। ফলে ঘুম আসতে চায় না। আর দিনের পর দিন রাতে ঠিক মতো ঘুম না হলে শরীরে একে একে বাসা বাঁধতে শুরু করে একাধিক জটিল রোগ।

তাই মোবাইল ফোন যদি ব্যবহার করতেই হয় তবে মোবাইলের নীল আলোর কারণে যাতে চোখের কোনও ক্ষতি না হয়, তা সুনিশ্চিত করতে এই নিয়মগুলি মেনে চলতে পারেন-

বার বার চোখ খুলুন আর বন্ধ করুন

একাধিক স্টাডিতে দেখা গেছে, বারে বারে চোখ পিটপিট করলে চোখের ভেতরে পানি মাত্রা কমে যাওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়। আর চোখ আদ্র থাকলে নীল আলোর কারণে চোখের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা যে কমে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই! তাই অনেকক্ষণ মোবাইল ফোন যদি ব্যবহার করতে হয়, তাহলে চোখকে বাঁচাতে বারে বারে চোখ পিটপিট করতে ভুলবেন না যেন!

মোবাইলের ব্রাইটনেস

ব্যাটারি লাইফকে বাড়াতে ভুলেও মোবাইল স্ক্রিনের ব্রাইটনেস একেবারে কমিয়ে ফলবেন না যেন! কারণ অতিরিক্ত ব্রাইটনেস যেমন চোখের পক্ষে ভাল নয়, তেমনি কম আলোও মারাত্মকভাবে রেটিনার ক্ষতি করে থাকে। তাহলে এখন প্রশ্ন হল ব্রাইটনেস কতটা থাকা চোখের পক্ষে ভাল? এক্ষেত্রে একটা বিষয় মাথায় রাখতে হবে, তা হল যেখানে রয়েছেন, সেখানকার আলোর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে মোবাইল স্ক্রিনের ব্রাইটনেস ঠিক করে নেবেন, তাহলেই দেখবেন কেল্লা ফতে!

মোবাইল স্ক্রিন পরিষ্কার রাখবেন

মোবাইল স্ক্রিনের ওপর জমতে থাকা ধুলো পরিষ্কার করে না নিলে স্ক্রিন দেখার সময় চোখের ওপর মারাত্মক চাপ পরে। ফলে রেটিনার ক্ষতি হয়ে যেতে সময় লাগে না। এই কারণে তো কিছু সময় অন্তর অন্তর একটা ড্রাই কাপড় দিয়ে স্ক্রিনটা পরিষ্কার করে নেওয়া উচিত।

সূত্র: বোল্ডস্কাই

Leave a Reply