গাজীপুর সিটি নির্বাচন নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত দুই মেয়র প্রার্থী

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৬ মে ২০১৮ ইংরেজী, বুধবার: গাজীপুর সিটি নির্বাচনের নতুন তারিখ ঘোষণার কারণে নির্বাচনি খরচ বেড়ে গেলেও সেটা নিয়ে আপাতত ভাবতে চান না প্রধান দুই মেয়র প্রার্থী। কারণ তাদের এখন সব ভাবনা নির্বাচনে জয়ী হওয়া নিয়ে। নানা শঙ্কা কাটিয়ে শেষ পর্যন্ত ফের গাজীপুর সিটি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। মাঝখানে প্রায় দেড় মাস থাকলেও প্রার্থীরা নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে পারবেন মাত্র শেষ ৭ দিন। তাই মাঝের এই দীর্ঘ সময় ভোটারদের ধরে রাখতে নতুন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হচ্ছে প্রার্থীদের। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মেয়র প্রার্থীরা বলছেন, ব্যয় বাড়লেও ইফতারসহ বিভিন্ন কৌশলে তারা ভোটারদের ধরে রাখার চেষ্টা করবেন।
খুলনার মতো ভোট উৎসবের কথা ছিলো গাজীপুরেও। পোস্টারে পোস্টারে ছেয়েছিলো নগরীর অলিগলি। তবে সীমানা জটিলতায় ভোট পিছিয়ে যাওয়ায় সেসব পোস্টারও এখন জবুস্থবু। তবে নতুন তারিখ নির্ধারণ হওয়ায় ফের আশাবাদী হয়ে উঠেছেন নানা সমস্যার মধ্যে বাস করা ভোটাররা। ভোটাররা বলেন, এখানের সব ভোটারদের মধ্যে আনন্দ বিরাজ করছে ভোট দিতে পারবে বলে। এমন একটা মেয়র নির্বাচিত হোক যিনি রাস্তাঘাটের উন্নয়ন করবে। গাজীপুরের আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় আমি ইফতারির আয়োজন করি। সামনে যেহেহু নির্বাচন তাই আগের নিয়ম চলমান থাকবে। তবে আরও ব্যাপকভাবে এই কার্যক্রম চালাবো।
বিএনপির মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার বলেন, বাংলাদেশের একটি সংস্কৃতি রমজানে মানুষকে ইফতারি খাওয়ানো। আমি এই এলাকার নাগরিক। আমি সবাইকে দাওয়াত দিতে পারি। আমরা উপস্থিতি সেখানে কোনো অপরাধ নয়। আমি এলাকাতে চলাফেরা করবো, যাবো এটাই তো কৌশল।সূত্র : সময় টিভি

Leave a Reply