বিরোধী জোটকে নিয়ে সোনিয়া গান্ধীর ডিনার পার্টির আয়োজন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৩ মার্চ ২০১৮, মঙ্গলবার: ২০১৯ সালের নির্বাচনকে ঘিরে ভারতের ইউপিএ জোটের চেযারপার্সন সোনিয়া গান্ধী গতকাল মঙ্গলবার রাতে একটি ডিনার পার্টির আয়োজন করেন বলে এনটিভি জানিয়েছে। এই ডিনার পার্টির লক্ষ্য বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের বিপরীতে একটি ফ্রন্ট গঠন করা। ডিনার পার্টিতে ১৭টি বিরোধী দলের নেতারা উপস্থিত থাকার বিষয়টি ইউপিএ জোটের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়। কংগ্রেস সূত্রে জানা গেছে, অন্ধ্র প্রদেশের ক্ষমতাসীন দল তেলেগু দেশম পার্টি ছাড়াও এনডিএ, বিজেডি এবং টিআরএসকে এই ডিনারে নিমন্ত্রণ করা হয়। কারণ বিজেডি এবং টিআরএস এখনো উড়িষ্যা এবং তেলেঙ্গানার শাসন ক্ষমতায় রয়েছে।
কংগ্রেস সূত্র জানিয়েছে, ঝাড়খ- বিকাশ মোর্চার নেতা সাবেক মুখ্যমন্ত্রী বাবুলাল মারান্ডী, হেমন্ত সোরেন (জেএমএম), বিহারের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী, হিন্দুস্তানি আওয়াম মোর্চার প্রধান জিতন রাম মানজি ডিনার পার্টিতে থাকার নিমন্ত্রণ পেয়েছেন। জিতন রাম মানজি সম্প্রতি এনডিএ ত্যাগ করে লালু প্রাসাদ যাদবের আরজেডিতে যোগ দিয়েছেন। এই দলটি আগে থেকেই কংগ্রেসের মিত্র হিসেবে আছে। লালুর ছেলে তেজস্বী যাদবও ডিনারে থাকার কথা রয়েছে। তিনি বর্তমানে বিহার সংসদে বিরোধী দল হিসেবে আছেন। তবে ডিনারে তার উপস্থিত থাকা না থাকার বিষয়টি মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, ডিএমকের কানিমোজহি এবং সমাজবাদী পার্টির রাম গোপাল যাদবও ডিনারের নিমন্ত্রণ পেয়েছেন। বামদল সিপিআইএমের সিতারাম ইয়াচুরি এবং সিপিআইয়ের ডি রাজাও নিমন্ত্রিত হয়েছেন। জেডি-এস, কেরালা কংগ্রেস, ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লীগ, রিভলিউশনারি সোস্যালিস্ট পার্টি এবং আরএলডির নেতারাও উপস্থিত থাকতে পারেন এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।
সূত্রটি জানিয়েছে, মায়াবতীর বিএসপি দলকেও নিমন্ত্রণ করা হয়েছে। কিন্তু দলের প্রতিনিধি হিসেবে তিনি কাউকে নাও পাঠাতে পারেন। তিনি এ বছরের মার্চ/এপ্রিলের নির্বাচনের জন্য জেডি-এসের সঙ্গে জোট গঠন করেছেন।
ডিনারের আয়োজন করা হয় সোনিয়া গান্ধীর জানপাথের বাসভবনে। সোনিয়া গান্ধী ইতোপূর্বে বিরোধী দলগুলোকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়েছেন। তবে তিনি বৃহত্তর স্বার্থে ছোটখাটো মত বিরোধ ঝেড়ে ফেলে ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ক্ষমতার বাইরে রাখার জন্য সকলকে সমবেত হওয়ার কথা বলেছেন। এনডিটিভি

Leave a Reply