সুস্থ থাকতে ডিমের কোনো বিকল্প নেই

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৯ ফেব্র“য়ারী ২০১৮ সোমবার: সস্তায় সুস্থ থাকতে ডিমের কোনো বিকল্প নেই বললেই চলে। ডাক্তাররা বলছেন, খেলেই হল না। বয়স অনুযায়ী ডিম খাওয়া উচিত। ডাক্তারদের কথায়, মোটামুটি ৪-৫ বছর বয়স থেকেই ডিম খাওয়া উচিত। ৪ থেকে ১০ বছর অবধি বয়ের জন্য রোজ ১টা করে ডিম খাওয়া যেতে পারে। ১০ থেকে ২০ বছর বয়সিরা দিনে ২টি করে ডিম খেতে পারেন। ২০ থেকে ২৫ ও ২৫ থেকে ৩০ বয়সিরা দিনে ৩টি করে ডিম খেতেই পারেন।
তবে চিকিৎসকরা বলছেন, বয়স বাড়লে ডিম খাওয়া একেবারে কমিয়ে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। বরং দিনে ১টি করে খেতেই পারেন ৩০ বছরের পরে। তবে সেক্ষেত্রে কুসুম না খাওয়াই উচিত। কোলেস্টলারের সমস্যা থাকলে, কুসুম না খাওয়াই ভালো। তবে ৪০ -এর ওপরে বয়স হলে দিনে নয়, বরং একদিন বাদে একদিন ডিম খাওয়া উচিত। আর তা অবশ্যই কুসুম বাদ দিয়ে!

Leave a Reply