নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপির বিক্ষোভ বুধবার

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭, সোমবার: নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে ক্ষমতাসীন ১৪ দল উদ্বেগ জানানোর একই দিন এ নিয়ে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে বিএনপি। বিরোধী দলটির বিক্ষোভে নিত্যপণ্যের পাশাপাশি জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি এবং শহরে গৃহকর বাড়ানোর বিষয়টিও যুক্ত হয়েছে। বুধবার এই কর্মসূচি পালনে দলের সব ইউনিটকে দুপুরে নয়াপল্টনে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। রবিবার রাতে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ কর্মসূচির সিদ্ধান্ত হয় বলে জানিয়েছেন তিনি। চলতি বছরের মার্চ এপ্রিল থেকে চালের দাম অস্বাভাবিক হারে বাড়ে। গত তিন মাস ধরে বাড়তে বাড়তে পেঁয়াজের দাম মুরগির দামকে ছুঁয়েছে। বছরের মাঝামাঝি বন্যার পর বেড়ে যায় সবজির দামও।
সিটি করপোরেশন এবং দেশের পৌরসভার আওতাভুক্ত এলাকায় হোল্ডিং ট্যাক্স বাড়ানোর সিদ্ধান্ত এসেছে। এই করবৃদ্ধি নিয়েও উদ্বেগ আছে শহরবাসীর মধ্যে।
আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের বৈঠকেও এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং পৌরকর বৃদ্ধির বিষয়টি বাতিলের আহ্বান জানান হয়েছে ক্ষমতাসীন জোটের পক্ষ থেকে। একইভাবে বেশ কিছু নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির বিষয়টিও উল্লেখ করে নেতারা এর পেছনে কোনো কারসাজি আছে কি না তা খতিয়ে দেখার আহ্বান জানিয়েছেন ১৪ দলের নেতারা।
আর এর কয়েক ঘণ্টা পরেই বিএনপি নেতা রিজভী তার দলের বিক্ষোভের সিদ্ধান্তের কথা জানান। তিনি জানান, রবিবার দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

রিজভীর বিক্ষোভের ডাকে গ্যাস-বিদ্যুৎ এবং চালের সঙ্গে ডালের মূল্যবৃদ্ধির কথাও রয়েছে।
গত ৩০ নভেম্বর বিদ্যুতের দাম ইউনিটপ্রতি ৩৫ পয়সা করে বাড়ায় সরকার। এর প্রতিবাদে সিপিবি-বাসদসহ বাম সংগঠনগুলো আধাবেলা হরতালও করেছে ডিসেম্বরের শুরুতে। এই কর্মসূচিতে বিএনপি পূর্ণ সমর্থন দিয়েছিল। তবে বিএনপি নিজে থেকে কোনো কর্মসূচি ঘোষণা করেনি।
আর গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধি কার্যকর হয়েছে গত ১ মার্চ। মধ্যে গত ১ জুন থেকে আরেক দফা গ্যাসের দাম বাড়ানো হলেও আদালতের নির্দেশে তা বাতিল করা হয়েছে। আবার রিজভী ডালের দাম বৃদ্ধির কথাও তুললেও এই পণ্যটির দাম পড়তির দিকে।
রিজভী বলেন, ‘বিভিন্ন জেলার স্থানীয় সময় অনুযায়ী প্রতিবাদ সভা অথবা প্রতিবাদ মিছিল করবে। রাজধানী ঢাকায় থানা থানা এই প্রতিবাদ সভা অথবা মিছিল হবে।’ নির্বাচন সামনে রেখে রংপুর সিটি করপোরেশন এলাকা প্রতিবাদ কর্মসূচির আওতামুক্ত বলে জানান রিজভী।
সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবে রহমান শামীম, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন ও সাবেক সাংসদ আবুল হোসেন সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

 

Leave a Reply