রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আনার লক্ষ্যেই কল্যাণ পার্টি কাজ করছে: বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৭, সোমবার: বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেছেন, রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন আনার লক্ষ্যেই কল্যাণ পার্টি কাজ করছে। ‘পরিবর্তনের জন্য রাজনীতি’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২০০৭ সালের ৪ ডিসেম্বর মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম বীর সোনানী, সাবেক সামরিক কর্মকর্তা মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মাদ ইবরাহিম বীর প্রতীকের নেতৃত্বে প্রবীণ ও নবীনের সমন্বয়ে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির যাত্রা শুরু। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীরউত্তমকে জাতীয় ঐক্যের প্রতীক হিসেবে মনে করে। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে আজ ১১তম বর্ষে পদার্পণ করছে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি। ১০ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ বিকাল ৪টায় অস্থায়ী কার্যালয়ে এক আলোচনা সভার আয়োজন করেছে। বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াসের সভাপতিত্বে ও মহানগর সেক্রেটারী নুরুল আলমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সভাপতি আবু মোজাফফর মোহাম্মদ আনাছ, সহ-সভাপতি এডভোকেট জহরুল হক আনসারী, দক্ষিণ জেলার সভাপতি ডা. কামাল উদ্দিন, উত্তর জেলা সভাপতি দিদারুল আলম সুমন, জাগপার কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি আবু মোজাফফর মোহাম্মদ আনাছ, বাংলাদেশ ন্যাপের মহানগর সভাপতি ওসমান গণি সিকদার, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল উদ্দিন আহমদ, এনপিপির চট্টগ্রাম নগর সভাপতি আনোয়ার সাদেক, এলডিপির মহানগর প্রচার সম্পাদক মো. নুরুল আবছার চৌধুরী, কল্যাণ পার্টির জয়েন্ট সেক্রেটারী মো. মহিউদ্দিন, সহকারী সেক্রেটারী মো. ইলিয়াছ সিকদার, কোতোয়ালী সেক্রেটারী নাজমুল হুদা প্র্রমুখ। বক্তারা বলেন “আজকে এমন একটা একদলীয় শাসন ব্যবস্থার মধ্যে আমরা পড়েছি, যে শাসন ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব আবার বিপন্ন হতে চলেছে, দেশের গণতন্ত্র ইতিমধ্যে ধ্বংস হয়ে গেছে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকেও নস্যাৎ করে ফেলা হয়েছে। আমরা দেখছি দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থাকে ভিন্নভাবে আবার এখানে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।” দেশের মানুষ ‘একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার অপচেষ্টা রুখে দেবে’ বলেও জানান বক্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*