‘রাষ্ট্রের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাবে সিআইপি কার্ডের মত ট্যাক্স কার্ডধারীরা’

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৯ নভেম্বর ২০১৭, রবিবার: এনবিআরের ভ্যাট পলিসি’র সদস্য ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ট্যাক্স কার্ড যাতে একটা কার্ডে মধ্যে সীমাবদ্ধ না থাকে। যাতে সম্মানিত করদাতাগণ যাতে রাষ্ট্রের অন্যান্য প্রতিষ্ঠান থেকে বিভিন্ন সুযোগ সুধিা পেতে পারেন। সেজন্য যা কিছু করা দরকার জাতয়ি রাজস্ব বোর্ড করবে। প্রণব সাহা’র সঞ্চালনায় ডিবিসি নিউজের’র উপসংলাপে ‘কর দিয়ে কার লাভ?’ বিষয়ক আলোচনায় তিনি একথা বলেন।
ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ২০১০ সালে প্রথম কর মেলা আয়োজন করা হয়। এতে দেখা যায় কর দিয়ে করদাতাদের মধ্যে বেশ সাড়া পাওয়া যায়। সাধারণ করদাতারা চান। তারা যাতে কর দিতে গেলে এক জায়গা থেকে সকল সুযোগ-সুবিধা পায়। যেকোন হয়রানি মুক্তভাবে সেবাটা পেতে চান। কর দেওয়ার সময় সকল সেবা একসাথে পাওয়ার যায়। গ্রাহকরা কাঙ্খিত সেবা পায়। কর আরহোণকারীরা যে এতে বেশ চাঙ্গা হয়েছে। তারা বেশ আগ্রহ নিয়ে ভালোভাবে করদাতাদের সেবা প্রদান করে। ২০১০ সালের পর থেকে এর পরই প্রতিবারই কর দেওয়া হার বাড়ছে। এ বছরে রেকর্ড পরিমান ট্যাক্স রির্টান দাখিল হয়েছে। যেটি গত বছরের চেয়ে ৭২ শতাংশ বেশি। সবচেয়ে মজার ব্যাপরা যারা এবার কর দিয়েছে তাদের বেশির ভাগই করদাতা ছিল। গতবছর থেকে এবার প্রায় আড়াই লাখ করদাতা বেশি এসেছে। তার মধ্যে বেশির ভাগই কর রির্টান জমা দিয়েছে। কারণ নতুন বাজেটে সময় অর্থনীতি আইনে অনেকগুলো পরিবর্তন আনা হয়। কর, ভ্যাট আইন সাধারণত পরিবর্তনশীল। বিশ্বে ব্যবসায়িক ভারসাম্য রক্ষায় প্রতিনিয়ত এটা করা হয়। সেকারণে গত বছর ও এবার কর আইনে যে পরিবর্তন করা হয়েছে। বিশেষ করে বেসরকারি খাতে যারা কাজ করে। তাদের বাধ্যতামূলক কর রির্টান দাখিল করতে হবে।
ট্যাক্স কার্ড দিলেন কিন্তু তার সুবিধাটা ঘোষণা দিলেন না, যারা ট্যাক্স কার্ড পেলো তারা কি সুবিধা পাবে? জানতে চাইলে ব্যারিস্টার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন,যারা এবছর ট্যাক্স কার্ড পেয়েছে। তাদের কিছু সুবিধা দিতে হবে। সরকারের যতগুলো বিভাগ আছে। তাদের সাথে সম্বন্বয় করে। ট্যাক্স কার্ড যারা পেয়েছে রাষ্ট্রের কিছু সুবিধা প্রদান করা হবে। এজন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কাজ করছে। ট্যাক্স কার্ড যাতে একটা কার্ডে মধ্যে সীমাবদ্ধ না থাকে। যাতে সম্মানিত করদাতাগণ যাতে রাষ্ট্রের অন্যান্য প্রতিষ্ঠান থেকে বিভিন্ন সুযোগ সুধিা পেতে পারেন। সেজন্য যা কিছু করা দরকার জাতয়ি রাজস্ব বোর্ড করবে।

 

Leave a Reply