ঢাকা ও চট্টগ্রাম জেলা সিএনজিচালিত অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সংবাদ সম্মেলন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৯ নভেম্বর ২০১৭, রবিবার: ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরী এলাকায় চলাচলরত মেয়াদোত্তীর্ণ সকল লক্কর-ঝক্কর ও প্রানঘাতী সিএনজিচালিত অটোরিকশা অপসারন এবং ঢাকা মহানগরীতে ড্রাইভিং লাইসেন্সধারী প্রকৃত চালকদের জন্য ৫ হাজার, চট্টগ্রাম মহানগরীতে ৪ হাজার নতুন অটোরিকশার নিবন্ধন প্রদানে মন্ত্রনালয় কর্তৃক গৃহীত সিন্ধান্ত দ্রুত বাস্তবায়নসহ চালকদের ন্যায়সংগত ৮ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ৪৮ ঘন্টা ধর্মঘট পালন ও আন্দোলনের উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন।চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব মিলনায়তন, সময় সকাল ১১টায় সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চট্টগ্রাম জেলা সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহবায়ক নজরুল ইসলাম খোকন, এতে উপস্থিত ছিলেন সদস্য সচিব ফারুক হোসেন, ঢাকা জেলা সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদেও আহবায়ক আজিজুল হক মুক্ত, সদস্য সচিব সাখাওয়াত হোসেন দুলাল,সদস্য মো; মোরশেদ, বৃহত্তর চট্টগ্রাম সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদের উপদেষ্টা ওয়াজিউল্লাহ, যুগ্ন আহবায়ক উজ্জল বিশ্বাস, মো: শাহজাহান, মো: ইলিয়াছ, মো: ইউচুপ, দিলীপ সরকার, মো: মুনির হোসেন, রমজান আলী, মো: ইমরান মিয়াসহ অটোরিকশা শ্রমিক নেতৃবৃন্দ। ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালদের ৮ দফা দাবী ১। ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে চলাচলরত মেয়াদোত্তীর্ণ ও প্রাণঘাতী সিএনজিচালিত অটোরিকশা দ্রুত অপসারন করে নতুন গাড়ি প্রতিস্থাপন করতে হবে। ২। মন্ত্রনালয়ের গৃহীত সিন্ধান্ত অনুযায়ী ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে চলাচলের জন্য যথাক্রমে পাঁচ হাজার ও চার হাজার নতুন সিএনজিচালিত অটোরিকশার নিবন্ধন চালকদের নামে অবিলম্বে প্রদান করতে হবে। ৩। বিআরটিএ কর্তৃক অনুমোদনহীন উবার, পাঠাওসহ যেকোন অবৈধ অ্যাপস দ্বারা যানবাহন চলাচল বন্ধ করতে হবে। ৪। প্রস্তাবিত সড়ক পরিবহন আইন-২০১৭ থেকে শ্রমিক স্বার্থবিরোধী সকল ধারা, উপধারা বাতির করতে হবে। ৫। পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্স নবায়নকালে ব্যবহারিক পরীক্ষা বন্ধ এবং সহজ পদ্ধতিতে নতুন লাইসেন্স ইস্যু করতে হবে। ৬। ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে বিদ্যমান সিএনজি/পেট্রোলচালিত ৪ স্ট্রোক থ্রিহুইলার সার্ভিস নীতিমালা ২০০৭ এর অনুচ্ছেদ-চ (৩) ধারায় নির্দেশনা অনুযায়ী স্ট্যান্ড বা পার্কিংপ্লেসের ব্যবস্থা না করা পর্যন্ত অন্যায়ভাবে নো-পার্কিং মামলা দিয়ে চালকদের হয়রানি ও নির্যাতন করা বন্দ করতে হবে। ৭। প্রশাসনিক ও ট্রাফিক সার্জেন্ট কর্তৃক অটোরিকশাচালকদের অহেতুক হয়রানি এবং সামান্য অযুহাতে রেকারিং এর ভয় দেখিয়ে ঘুষ বানিজ্য বন্ধ করতে হবে। ৮। ঢাকা ও চট্টগ্রাম জেলার রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত সকল সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে নির্দিষ্ট রুটবিহীন অপরাপর যানবাহনের মত জেলা ও মহানগরীর সর্বোত্র অবাধে চলাচল করতে দিতে হবে। ৮ দফা দাবী আদায়ের ঘোষিত কর্মসুচী হল ২২/১১/২০১৭ তারিখ বুধবার সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শ্রমিক সমাবেশ, বিক্ষোভ মিচিল এবং সড়ক ও সেতু মন্ত্রনালয়ে স্বারক লিপি পেশ। ৩০/১১/২০১৭ তারিখ বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামে শ্রমিক সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল। ১০/১২/২০১৭ তারিখ রোববার বিআরটিএ কার্যালয় ঘেরাও। ২৭/১২/২০১৭ তারিখ বুধবার ভোর ৬টা থেকে ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে একযোগে ৪৮ ঘন্টার অটোরিকশা ধর্মঘট। এর মধ্যে দাবী সমুহ পূরন না হলে। ১৫ জানুয়ারী ২০১৮ তারিখ ভোর ৬টা থেকে ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে লাগাতার অটোরিকশা ধর্মঘট পালন শুরু হবে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*