দোহাজারী স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা এ. রহমানের ৪৬ তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৬ সেপ্টম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার: সত্য, ভালো ও সুন্দর এই তিনটির উপর নৈতিকতা দাঁড়িয়ে থাকে। সদা সত্য বলা, ভালো কাজের সাথে থাকা এবং সুন্দরের প্রতি আগ্রহ বা সমর্থন থাকা এই সবগুলো গুণই ছিলো চেয়ারম্যান আহমদুর রহমান প্রকাশ এ. রহমান’র কাছে। চেয়ারম্যান আহমদুর রহমান প্রকাশ এ. রহমান’র স্বচ্ছ চিন্তা-চেতনার মানুষ, পরিবর্তিত সমাজ ব্যবস্থায় তিনি মানবীয় গুণ সম্পন্ন একটি উজ্জ্বল আদর্শের প্রতীক। বলতে গেলেই আমাদের দূষিত সমাজে একজন পরিশুদ্ধতায় খাঁটি অন্ত:প্রাণ সৎ নির্লোভ ব্যক্তিত্ব প্রধান অতিথির বক্তব্যে চন্দনাইশ আওয়ামীলীগ সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহাঙ্গির এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া করে আমাদের ছেলেমেয়েরা একদিন মানুষ হবে। এ সমাজের ভালো মানুষদেরকে সমাজের অত্যাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। আর আমাদের দোহাজারী মাদকে চেয়ে গেছে, এ থেকে উত্তোরণের জন্য সকলকে সম্মিলিত প্রচেষ্টা চালাতে হবে। সমাজের সকলের দায়িত্ব আছে, দায়িত্ববোধ থেকে যার যার দায়িত্ব তাকেই পালন করতে হবে। দোহাজারীকে বাঁচান, তারপর দক্ষিণ চট্টগ্রামকে বাঁচান। ঘরে ঘরে আমাদেরকে অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে হবে আজ ২৬ সেপ্টম্বর দুপুর ১২ টায় দোহাজারী স্কুল প্রাঙ্গণে দোহাজারী জামিজুরী আ. রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা এ. রহমানের ৪৬ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মরহুমের কর্মময় জীবন নিয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন। দোয়া মাহফিলের সভাপতিত্ব করেন দোহাজারী জামিজুরী আ. রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো. বশির উদ্দিন মুরাদ, স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক শাহ আলম, বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন যথাক্রমে বিশিষ্ট সাংবাদিক কামরুল হুদা, স্কুল পরিচালনা পর্ষদের নূর মোহাম্মদ চৌধুরী, সাবেক দোহাজারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বেগ, পরিচালনা পরিষদের সদস্য শাহ আলম মেম্বার, চন্দনাইশ পৌর আওয়ামীলীগের আহবায়ক কাইছার উদ্দিন আহমদ। বক্তব্য রাখেন পরিচালনা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন, স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক মাহবুবুর রহমান, জামিজুরী বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিষ্ণু প্রসাদ চক্রবর্তী, সিনিয়র শিক্ষক ইসমাইল চৌধুরী, সিনিয়র শিক্ষক বাহারুল আলম, কাজী মাহমুদুল হক, এস এম আকতারুল আলম, এস এম রহিম উদ্দিন, সাইফুদ্দিন মানিক, আশেকুল আমিন, সুলতানা আকতার, জিন্নাত রহমান, সাবরিনা হাসান আয়েশা প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন সমাজ কর্মেও এ. রহমান ছিলেন অসীম সাহসী, সৎ-নিষ্ঠাবান এই মানুষটির আজীবন স্বপ্ন ছিল একটি শিক্ষিত শোষণহীন সমাজ গড়া। এ লক্ষ্যে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কাজ করে গেছেন। বর্তমান সমাজে তাঁর মতো লোক থাকলে যুবকরা অবক্ষয়ের দিকে ধাবিত হতে পারত না। সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। যার যার অবস্থান থেকে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে দায়িত্ব পালন করলে দেশ ও জাতি এক সমৃদ্ধের পথে এগুবে এ বিশ্বাস সকলের।

Leave a Reply