বরিশাল নগরীতে অনুষ্ঠিত হলো ‘মিট দ্য রিটেইলারস’ প্রোগ্রাম

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৮ সেপ্টম্বর ২০১৭, সোমবার: ওয়ালটন গ্রুপের ডিলার ও সাব-ডিলারদের নিয়ে বরিশাল নগরীতে অনুষ্ঠিত হলো ‘মিট দ্য রিটেইলারস’ প্রোগ্রাম। গত ১৬ সেপ্টেম্বর বরিশাল ক্লাবে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপী এই প্রোগ্রামে বরিশাল অঞ্চলের অর্ধশতাধিক ডিলার ও সাব-ডিলার অংশ নেন। একই দিনে নগরীর সিএন্ডবি রোডে উদ্বোধন করা হয় দেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় ব্র্যান্ড ওয়ালটনের এক্সক্লুসিভ ডিস্ট্রিবিউটর শো-রুম এসডিএল ইলেকট্রনিক্স প্লাজার।
‘মিট দ্য রিটেইলারস’ প্রোগ্রামের উদ্দেশ্য ছিল কীভাবে ক্রেতাদের সর্বোত্তম উন্নত সেবা দেয়া যায় এবং সার্ভিসের গতিকে ত্বরান্বিত করা যায়, সে সম্পর্কে ওয়ালটনের বিক্রয় প্রতিনিধিদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেয়া। এছাড়াও, গ্রাহকদের চাহিদা, পণ্যের মান, ব্যবসায় আরো উন্নয়ন এবং দ্রুত গ্রাহকের কাছে পণ্য পৌঁছে দেয়ার কলাকৌশল নিয়ে আলোচনা করা হয়।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এসডিএল ইলেকট্রনিক্স প্লাজার স্বত্বাধিকারী ডিএইচ শুভ। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের বিপণন বিভাগের নির্বাহী পরিচালক এমদাদুল হক সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন পিআর অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগের নির্বাহী পরিচালক মো. হুমায়ূন কবীর, ওয়ালটন গ্রুপের ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর মো. নিয়ামুল হক এবং ওয়ালটনের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ও জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।
অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের বিপণন বিভাগের সিনিয়র এজিএম আসাদুজ্জামান, এজিএম মো. শাহ্ শহীদ চৌধুরী এবং সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার মো. শফিক হায়দার প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওয়ালটন গ্রুপের বিপণন বিভাগের নির্বাহী পরিচালক এমদাদুল হক সরকার ওয়ালটনের সাফল্যগাঁথা তুলে ধরেন। তিনি জানান, বাংলাদেশের ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ৭৫ শতাংশেরও বেশি মার্কেট শেয়ার এখন ওয়ালটনের দখলে। ওয়ালটনের রয়েছে অসংখ্য মডেল ও ডিজাইনের ইলেকট্রনিক্স পণ্যের সমাহার, যা ক্রেতাদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। তিনি ক্রেতাদের আরো ভালোভাবে সেবা দেয়ার বিষয়ে ওয়ালটনের বিক্রয় প্রতিনিধিদের প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেন।
ওয়ালটনের পিআর অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগের নির্বাহী পরিচালক মো. হুমায়ূন কবীর ক্রেতাদের সর্বোত্তম সেবা প্রদানে বিক্রয় প্রতিনিধিদের উৎসাহিত করেন। এজন্য তিনি সুসজ্জ্বিত বিক্রয়কেন্দ্র এবং বিক্রয় প্রতিনিধিদের মার্জিত পোষাক পরিধান ও বিনয়ী আচরণের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, ক্রেতাদের সন্তুষ্টি অর্জন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই তাদের সঙ্গে সবসময় ভালো ব্যবহার করা উচিত।
ওয়ালটনের ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর নিয়ামুল হক বলেন, বাংলাদেশে একমাত্র ওয়ালটনেরই রয়েছে আইএসও স্বীকৃত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। এর মাধ্যমে সারাদেশে গ্রাহকদের দ্রুত ও নিখুঁত সেবা পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। তিনি জানান, বর্তমানে ৭০টি পূর্ণাঙ্গ সার্ভিস সেন্টারের পাশাপাশি সারা দেশে বিস্তৃত তিন শতাধিক ওয়ালটন প্লাজা ও কয়েক সহস্রাধিক পরিবেশক আউটলেট থেকে গ্রাহকদের সেবা দেয়া হচ্ছে। তিনি ক্রেতাদের সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা প্রদানে ডিলার ও সাব-ডিলারদের উৎসাহিত করেন।
ওয়ালটনের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ও জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, দেশের ১৬ কোটি মানুষের হৃদয়ের ব্র্যান্ড ওয়ালটন। দেশের মানুষের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ খ্যাত ওয়ালটন পণ্যসামগ্রী এখন রপ্তানি হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। বাংলাদেশে উৎপাদিত পণ্য বিদেশি ক্রেতাদের কাছে সমাদৃত হচ্ছে। তিনি দেশপ্রেমিক সকল নাগরিককে ওয়ালটনসহ দেশে উৎপাদিত পণ্য ব্যবহারের মাধ্যমে দেশকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করার আহ্বান জানান।
ওয়ালটনের ডিলার ও সাব-ডিলারগণ এ রকম একটি আয়োজনের জন্য ওয়ালটন কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান। এ সময় তারা তাদের বিক্রয় অভিজ্ঞতা এবং সমস্যা ও সম্ভাবনা তুলে ধরেন। তারা আশাপ্রকাশ করেন নিয়মিত এ ধরনের অনুষ্ঠান ওয়ালটন ব্র্যান্ডের বিক্রয় বৃদ্ধি ও সার্ভিসের গতি আরো তরান্বিত করবে।
‘মিট দ্য রিটেইলারস’ অনুষ্ঠান শেষে ওয়ালটনের এক্সক্লুসিভ ডিস্ট্রিবিউটর শো-রুম এসডিএল ইলেকট্রনিক্স প্লাজা’র উদ্বোধন করা হয়। এখান থেকে ক্রেতারা বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি ওয়ালটন ব্র্যান্ডের ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স, আইসিটি এবং হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্স পণ্যসামগ্রী কিনতে পারবেন।

Leave a Reply