বর্তমান সরকার ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকেই দেশকে গুপ্তহত্যার লীলাভূমিতে পরিণত করেছে: মেজর ইবরাহিম

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১০ সেপ্টম্বর ২০১৭, রবিবার: মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ক্ষমতাসীন হওয়ার পর থেকেই দেশকে গুম, খুন, অপহরণ, গুপ্তহত্যার লীলাভূমিতে পরিণত করেছে বর্তমান গণবিরোধী সরকার। অন্ধ, বন্ধ্যা দু:শাসনের অচলায়তনে দেশকে বন্দী করে রেখেছে তারা। এরা বছরের পর বছর ধরে ২০ দলীয় জোটের অসংখ্য নেতাকর্মীদেরকে বিচারবহির্ভূত হত্যার শিকারে পরিণত করে গুমের হিড়িক বজায় রেখেছে ১০ সেপ্টম্বর প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, অসংখ্য গুমের ঘটনার ধারাবাহিকতায় যুক্ত হলো ২০ দলীয় জোটের অন্তর্ভুক্ত কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমান। দলীয় কার্যালয় থেকে বেরিয়ে তার আর বাড়ী ফেরা হলো না। ওঁত পেতে থাকা গুপ্তবাহিনী তাঁকে কোথায় উঠিয়ে নিয়ে গেছে তা কেউ জানে না। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি-রাষ্ট্রক্ষমতা জবর দখলকারীরাই কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমানকে গুম করেছে। মেজর ইবরাহিম কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এম এম আমিনুর রহমানকে গুম করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন এবং তাকেসহ গুম হওয়া ব্যক্তিদের অবিলম্বে জনসম্মুখে হাজির করার আহবান জানান। আজ রবিবার ১০ সেপ্টম্বর বিকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে নিখোঁজ ২০ দলীয় জোট নেতা ও কল্যাণ পার্টি মহাসচিব এম.এম. আমিনুর রহমানের সন্ধ্যানের দাবিতে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান বক্তার বক্তব্যে বিএনপির চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, দেশটা গুম রাজ্যে পরিণত হয়েছে। সরকারের মদদে আজ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের হত্যা-গুম-খুনের মাধ্যমে বিভিষিকাময় পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। এভাবে একটা দেশ চলতে পারে না। সরকার তার অবৈধ ক্ষমতাকে দীর্ঘস্থায়ী করার লক্ষে এ ধরনের অপরাধ ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি বলেন, সকল অপরাধের মাধ্যমে যে ঋণের বোঝা তৈরি হচ্ছে তা জনতার আদালতে শোধ করতে হবে। জনরোষেই সরকারের পতন হবে। বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াছের সভাপতিত্বে ও দিদারুল আলম সুমনের সঞ্চালনা সভায় বক্তব্য রাখেন সাইফুল আলম, নুরুল আলম রাজু, মোজাফ্ফর মোহাম্মদ আনাস, কামরুল ইসলাম, ওসমান গণি সিকদার, এম এ কাসেম ইসলামাবাদী, আনোয়ার সাদেক, কামাল উদ্দিন আহমদ, মহিউদ্দিন বকুল, মুজিবুর রহমান, ফিরোজ কবীর লিটন প্রমুখ। কল্যাণ পার্টির চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নুরুল আলম। সভাপতির বক্তব্যে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াছ কল্যাণ পার্টি মহাসচিব এম.এম. আমিনুর রহমানকে খুঁজে বের করে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, গুম-খুন করে সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। গণআন্দোলনের মাধ্যমেই সরকারের পতন ঘটবে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সরকার কিলিং মিশনে ব্যবহার করছে দাবি করে তিনি বলেন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে বেআইনি অস্ত্র দিয়ে বা আইনি অস্ত্র দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না এটা পূর্বে অনেকবার প্রমাণিত হয়েছে। অথচ সরকার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে দলীয় পেটুয়া বাহিনীতে পরিণত করেছে। টাকা দিয়ে র‌্যাবের মতো বাহিনীকে কিলিং মিশনে নামিয়েছে।

 

Leave a Reply