অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের কাছে হেরে সিরিজ হাতছাড়া হয়েছে বাংলাদেশের

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০৯ সেপ্টম্বর ২০১৭, শনিবার: অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের কাছে হেরে সিরিজ হাতছাড়া হয়েছে বাংলাদেশের। এই হারের জন্য ব্যাটসম্যানদের দায়ী করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তার মতে, টপ অর্ডারের ব্যাটিং ব্যর্থতার কারণেই চট্টগ্রাম টেস্টে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি বাংলাদেশ।
শুক্রবার নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে পাপন বলেন, ‘আমি ওত বড় এক্সপার্ট না, তবুও যদি আমাকে জিজ্ঞেস করা হয় তবে আমি বলবো, চট্টগ্রামে আমাদের হারার প্রথম কারণটাই হচ্ছে ব্যাটিং। টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হয়েছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে চট্টগ্রাম টেস্টে তামিম-সাকিবের মত ব্যাটসম্যানরাও রান পায়নি, এটা একটা কারণ আর টপ অর্ডার টোটাল ফেইল দুই ইনিংসেই। এটাই আমাদেরকে ওদের কাছ থেকে পিছিয়ে দিয়েছে।’
টপ অর্ডার কিছু রান পেলে ম্যাচের ফল ভিন্ন হতে পারতো জানিয়েবিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমি টিভিতে দেখছিলাম, মুশফিক বলছিল ফার্স্ট ইনিংসে আমাদের লিডটা আরো বেশি হওয়া দরকার ছিল। আমরা নাকি ঠিকভাবে পিচের কন্ডিশনটা কাজে লাগাতে পারিনি। ওখানে টপ অর্ডারে যদি কিছু রান করে দিয়ে যেত তবে রেজাল্টটা অন্য রকম হতো।’
তিনি আরো বলেন, ‘ব্যাটিং ব্যর্থতা ছাড়াও আমাদের পরাজয়ের অন্যতম কারণ ছিল ফিল্ডিং মিস। আমাদের ফিন্ডিংয়ে আরো উন্নতি করতে হবে। বড় দলগুলোর সাথে বেশি সুযোগ পাওয়া যায় না, আর সহজ সুযোগগুলো মিস করলে পিছিয়ে যেতে হয়। আমাদের ফিল্ডাররা সহজ সহজ ক্যাচ মিস করে, কঠিন কঠিন ক্যাচ ধরে।’
এ সময় অস্ট্রেলিয়ার চট্টগ্রাম টেস্ট জয়ের নায়ক নাথান লায়নের প্রশংসা করেন বিসিবি সভাপতি। বলেন, ‘ওদের যে লায়ন, সে অসাধারণ বল করেছে। ব্যাটিং ছাড়াও হারার অন্যতম কারণ লায়ন। কারণ, শুধু দ্বিতীয় ইনিংসেই না প্রথম ইনিংসের ফ্ল্যাড উইকেটেই সে যে বল করেছে তাতেও আমাদের খেলোয়াড়দের পরাস্ত করেছে।’
র‌্যাঙ্কিংয়ে পয়েন্ট বাড়লো বাংলাদেশের
অস্ট্রেলিয়া সিরিজে বাংলাদেশের সামনে র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতির সুযোগ ছিল। ঢাকা টেস্ট জিতে সেই কাজটা অনেকটাই সহজ করে তুলেছিল মুশফিকুর রহিমের দল। কিন্তু চট্টগ্রাম টেস্টে সফরকারীদের কাছে ৭ উইকেটে হেরে যাওয়ায় তা আর হয়ে ওঠেনি। তবে র‌্যাঙ্কিংয়ে নিজেদের পরিবর্তন না হলেও গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি রেটিং পয়েন্ট অর্জন করেছে বাংলাদেশ। আইসিসির নতুন তালিকায় এমনটাই দেখা গেছে। র‌্যাঙ্কিংয়ে অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশের উপরে অবস্থান করায় চট্টগ্রাম টেস্ট হারায় খুব একটা ক্ষতি হয়নি টাইগারদের।
অন্যদিকে র‌্যাঙ্কিংয়ে নিচে অবস্থান করে বাংলাদেশের কাছে হেরে ঢাকা টেস্টের পরপরই দুঃসংবাদ শুনেছিল অস্ট্রেলিয়া। চতুর্থ অবস্থান থেকে দলটি নেমে এসেছিল পঞ্চম স্থানে। এতে দশমিকের ব্যবধানে এগিয়ে থাকা নিউজিল্যান্ডের উন্নতি হয় একধাপ। জায়গা করে নেয় অস্ট্রেলিয়ার হারানো স্থানে (চতুর্থ)।
চট্টগ্রাম টেস্ট শেষে র‌্যাঙ্কিংয়ে আর কোনো পরিবর্তন হয়নি অস্ট্রেলিয়ারও।
এদিকে যথারীতি আইসিসি টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানে আছে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ভারত। তাদের ঠিক পরের অবস্থানে, অর্থাৎ দ্বিতীয় স্থানে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা।
এক নজরে সর্বশেষ হালনাগাদকৃত আইসিসি টেস্ট র‌্যাঙ্কিং (বন্ধনীতে রেটিং পয়েন্ট)-
১. ভারত (১২৫)
২. দক্ষিণ আফ্রিকা (১১০)
৩. ইংল্যান্ড (১০৫)
৪. নিউজিল্যান্ড (৯৭)
৫. অস্ট্রেলিয়া (৯৭)
৬. পাকিস্তান (৯৩)
৭. শ্রীলঙ্কা (৯০)
৮. ওয়েস্ট ইন্ডিজ (৭৫)
৯. বাংলাদেশ (৭৪)
১০. জিম্বাবুয়ে (০)
র‌্যাঙ্কিংয়ে মুশফিক-মিরাজদের উন্নতি
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের পর র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে মুশফিক-মিরাজদের। আজ শুক্রবার নতুন র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে বাংলাদেশের একাধিক ক্রিকেটারের।
টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম একধাপ এগিয়ে চলে এসেছেন ২২তম স্থানে। চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসের ৬৮ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ৩১ রান করেন তিনি। তার নামের পাশে যুক্ত হয়েছে ক্যারিয়ার সেরা রেটিং পয়েন্ট ৬৫৮।
অন্যদিকে সিরিজের শেষ টেস্টে হেসেছিল সাব্বির রহমানের ব্যাট। দুই ইনিংসে ৬৬ ও ২৪ রান করার সুবাদে টেস্টে ব্যাটসম্যানদের তালিকায় তার অবস্থান এখন ৭৩তম স্থানে। ২২ ধাপ এগিয়েছেন তিনি।
ব্যাটসম্যানদের বিপরীতে বাংলাদেশী স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ ও পেসার মোস্তাফিজুর রহমান উন্নতির দেখা পেয়েছেন টেস্ট বোলারদের তালিকায়। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন উইকেট নিয়ে মিরাজের অবস্থান বোলারদের তালিকার ২৯তম স্থানে। বিপরীতে, দ্বিতীয় টেস্টে ৫ উইকেট নিয়ে ১২ ধাপ এগিয়ে মোস্তাফিজের অবস্থান বর্তমানে টেস্ট বোলারদের মাঝে ৪৩তম স্থানে।
পক্ষান্তরে বাংলাদেশের বিপক্ষে বল হাতে চট্টগ্রাম টেস্টের অস্ট্রেলিয়া দলের অফ-স্পিনার নাথান লায়ন দেখা পেয়েছেন ক্যারিয়ার সেরা রেটিংয়ের পাশাপাশি র‌্যাঙ্কিংয়েরও। ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ফিগার ১৫৪ রানে ১৩ উইকেট নেয়ার সুবাদে অসি এ স্পিনার প্রথমবারের মতো জায়গা পেয়েছেন বোলারদের তালিকার সেরা দশে। ক্যারিয়ার সেরা রেটিং পয়েন্ট ৭১২ নিয়ে তার অবস্থান এখন বোলারদের তালিকার ঠিক অষ্টম অবস্থানে।
অন্যদিকে, বাঁচা-মরার সিরিজ নির্ধারণী টেস্টে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৫২ রান করে ব্যাটসম্যানদের তালিকার পঞ্চম স্থান নিজের দখলে নিয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার। উন্নতির দেখা মিলেছে ম্যাক্সওয়েলেরও। ১৬ ধাপ এগিয়ে তার অবস্থান এখন ৮৮তম স্থানে।

Leave a Reply