রাবি শিক্ষক অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যার আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৩ এপ্রিল ২০১৭, রবিবার: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যার এক বছরেও প্রধান আসামি সন্দেহভাজন জঙ্গি শরিফুলকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। এ ছাড়া অভিযোগপত্র দেয়া ছাড়া এ হত্যা মামলার বিচারে আর কোনো অগ্রগতি নেই বলে দাবি করেছেন নিহতের পরিবার ও তার সহকর্মীরা। তারা বলছেন, এই মামলার দ্রুত বিচার হবে কি না তা নিয়ে সংশয়ে আছেন তারা।
অধ্যাপক রেজাউল করিম হত্যার এক বছর পূর্তির দিনে রবিবার সকাল ১০টায় সিনেট ভবনের সামনে এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন তারা। অধ্যাপক রেজাউল হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ সব অপরাধীর শাস্তির দাবিতে মানববন্ধনটি আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।
বিশ^বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহ আজম শান্তনু বলেন, ‘গত বছরের এই দিনে অধ্যাপক রেজাউল স্যার নিহত হন। সরকারের পক্ষ থেকে আশ্বাস দিয়েছিল বিচারকাজ দ্রুত করা হবে। কিন্তু এক বছরেও সেটি হয়নি।’
শাহ আজম বলেন, ‘এ মামলায় পুলিশ আটজনকে দোষী সাব্যস্ত করে একটি চার্জশিট দেয়। এর মধ্যে চারজন বিভিন্ন সময় জঙ্গিবাদের সঙ্গে যুক্ত থাকায় এনকাউন্টারে মারা গেছে। একজনকে পুলিশ এখনো ধরতে পারেনি। বর্তমানে বিচারকাজ কী অবস্থায় আছে, সে ব্যাপারে কোনো তথ্য শিক্ষক সমিতির জানা নেই। তাই আমাদের মধ্যে এক ধরনের শঙ্কা তৈরি হয়েছে যে দ্রুত বিচার হবে কি না।’
মানববন্ধনে অধ্যাপক রেজাউলের মেয়ে রেজওয়ানা হাসিন শতভী বলেন, বিচারের আগ্রগতি অভিযোগপত্রের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। বাস্তবিকভাবে আর কোনো আগ্রগতির কথা জানি না। এই মামলার প্রধান আসামি ইংরেজি বিভাগের যে শিক্ষার্থী, তার বর্তমান অবস্থাও জানতে পারছি না আমরা।’
এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক মো. শহীদুল্লাহ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, অধ্যাপক রেজাউল হত্যাকা-ের পর দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো যখন ফুঁসে ওঠে, তখন সরকারের একাধিক মন্ত্রী ক্যাম্পাসে এসে এই হত্যার প্রতিবাদী আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করেন এবং দ্রুত বিচারের আশ্বাস দেন। কিন্তু এখনো প্রকৃত বিচারকাজ শুরু হয়নি।
অধ্যাপক শহীদুল্লাহর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, পরিবেশ বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম, আইন বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক হাসিবুল আলম প্রধান, ইংরেজি বিভাগের সভাপতি ড. এ এফ এম মাসউদ আখতার প্রমুখ।
ইংরেজি বিভাগের প্রতিবাদী সমাবেশ
একই দাবিতে প্রতিবাদী শোভাযাত্রা ও সমাবেশ করেছে বিশ^বিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ। তারা সকাল সাড়ে নয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ কলা ভবনের সামনে মুকুল প্রতিবাদ ও সংহতি মঞ্চে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করেন।
গত বছরের ২৩ এপ্রিল সকালে নগরীর শালবাগান এলাকায় অধ্যাপক রেজাউলকে নিজ বাড়ির কাছে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

Leave a Reply