মার্কিন বিমান বাহিনীর মহাকাশ বিমান এক্স-৩৭বি’র পৃথিবীতে ফেরার সম্ভাবনা নেই

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২২ এপ্রিল ২০১৭, শনিবার: ২০১৫ সালের ২০ মে পৃথিবী থেকে মহাকাশের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় মার্কিন বিমান বাহিনীর এক্স-৩৭বি মহাকাশাযানটি। এরপর থেকে তা একটানা মহাকাশেই রয়েছে। সম্প্রতি মহাকাশযানটি ৭০০ দিন অতিবাহিত করেছে।
তবে এতে কোনো মানুষ নেই। সম্পূর্ণ দূর নিয়ন্ত্রিত পদ্ধতিতে পৃথিবী থেকে এটি নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। মার্কিন বিমান বাহিনী জানিয়েছে, তাদের রহস্যজনক মহাকাশ বিমান এক্স-৩৭বি’র আপাতত পৃথিবীতে ফেরার সম্ভাবনা নেই।
মার্কিন মহাকাশ বিমানটি রহস্যজনক কাজে প্রায় দুই বছর কক্ষপথে ঘোরার পর পৃথিবীতে ফিরে আসবে বলে খবর প্রকাশিত হলে এ কথা জানানো হয়। অবশ্য এক্স-৩৭বি কেন দীর্ঘ সময় ধরে মহাকাশের কক্ষপথ পরিক্রম করছে তা এখনো প্রকাশ করা হয়নি।
সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমগুলো কাছে পাঠানো ই-মেইলে মার্কিন বিমান বাহিনী জানিয়েছে, এখনই এক্স-৩৭বি’র পৃথিবীতে ফিরে আসার কোনো পরিকল্পনা নেই। বরং এটি পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।
নাসা ১৯৯৯ সালে প্রথম এক্স-৩৭ তৈরি করেছিল। মহাকাশ খেয়া হিসেবে একে তৈরি করা হয়। প্রয়োজনে কক্ষপথে স্থাপন করা যাবে এবং কাজ শেষে পৃথিবীতে ফিরে আসবে অর্থাৎ বারবার ব্যবহারের উপযোগী করে একে বানানো হয়। ২০০৬ সালে নিজেদের ব্যবহার উপযোগী এক্স-৩৭বি তৈরির ঘোষণা দেয় মার্কিন বিমান বাহিনী। তখন থেকে এটি দিয়ে যেসব প্রকল্প বা মিশনের কাজ করা হয়েছে তার বেশিরভাগই গোপন রাখা হয়েছে।
মহাকাশভিত্তিক অস্ত্র ব্যবস্থা গড়ে তুলতে বা গোয়েন্দা উপগ্রহের কাজে একে ব্যবহার করা হয় বলে জল্পনা-কল্পনা চলছে। অবশ্য পেন্টাগন তা অস্বীকার করেছে।
মার্কিন বিমান বাহিনী প্রথম এক্স-৩৭বি পাঠানো হয়েছিল ২০১০ সালে এবং ২২৪ দিন কক্ষপথে অবস্থানের পর তা পৃথিবীতে ফিরে আসে। এরপর আরো দুই দফা এক্স-৩৭বিকে মহাকাশে পাঠানো হয়েছে এবং কাজ শেষে তা ফিরেও এসেছে। প্রতিবারই ক্যালিফোর্নিয়ার ভ্যানডেনবার্গ বিমান ঘাঁটিতে এটি অবতরণ করেছে।
বর্তমানে কক্ষপথ পরিক্রমণকারী এক্স-৩৭বি এরইমধ্যে ৭০০ দিনের বেশি মহাকাশে অবস্থান করে নতুন রেকর্ড তৈরি করেছে। চলতি বছরের কোনো এক সময় এটি পৃথিবীতে ফিরে আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Leave a Reply