সাতকানিয়ায় নিয়োগকৃত দপ্তরী কাম প্রহরীরা শিক্ষকদের আদেশ মানে না

সাতকানিয়া প্রতিনিধি, ১৭ এপ্রিল ২০১৭, সোমবার: সাতকানিয়া উপজেলার ৬৭টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগকৃত দপ্তরী কাম প্রহরীরা শিক্ষকদের আদেশ মানে না। তারা তাদের কথা অবজ্ঞা করে আরো উল্টো শিক্ষকদের নাম ধরে ডাকেন বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। দারোয়ানরা দিনের বেলায় দায়সারা ভাবে কাজ করলেও রাতে ¯ু‹লের ধারে কাছে যায় না। এর ফলে বিদ্যালয়ে কম্পিউটার প্রজেক্টরসহ মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি হওয়ার আশংকা প্রকাশ করছেন শিক্ষকরা। এদিকে সম্প্রতি কেরানীহাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরির ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু দপ্তরী কাম প্রহরী ফোরকানকে দায়ী করা হলে সে ক্ষতি পূরণ দিয়ে পার পায়। এছাড়া পূর্ব বাজালিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রহরী ওসমান শিক্ষকদের আদেশ মানে না। বরঞ্চ সে শিক্ষকদের উল্টো নাম ধরে ডাকেন বলে জানা গেছে। এতে বিদ্যালয়ের পরিবেশ বিনষ্ট হতে চলেছে। পূর্ব বাজালিয়ার প্রহরী নিয়ম কানুন না মানার বিরুদ্ধে শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট একটি অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে তার বেতন ভাতা কর্তন করা হয়। এরপর ভবিষ্যতে আর এসব করবে না বলে মুচলেকা দিয়ে ছাড় পায় বলে শিক্ষা অফিস সূত্রেপ্রকাশ। তারা দলীয় পরিচয়ে চাকুরী পাওয়ায় নিয়ম কানুন মানতে নারাজ। অথচ তাদের কোন একাডেমিক সার্টিফিকেট নেই। এরপরও উচ্চ শিক্ষিত শিক্ষকদের কথা অবজ্ঞা করছেন।

Leave a Reply