রাসূল (স)’র দেখানো পথ অনুসরণ ব্যতিত ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠা করা অসম্ভব: প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনুছ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২ এপ্রিল ২০১৭, রবিবার: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় আরবী বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনুছ বলেন সমাজের সকল প্রকার অন্যায়-অনাচার, পাপাচার, খুন, হত্যা, ধর্ষন থেকে মানব জাতিকে মুক্ত করতেই আল্লাহ এ পৃথিবীতে তাঁর প্রিয় নবী মুহাম্মদ (স) কে পাঠিয়েছিলেন। সময়ের ব্যবধানে তিনি আরব সমাজের সর্ব প্রকার অন্ধকার দূরীভূত করে একটি আলোকিত সোনালী সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছিলেন যা পৃথিবীর ইতিহাসে এক অনন্য নজীর। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় রাসূলের দেখানো সে পথ বাদ দিয়ে মুসলমান জাতি দুনিয়ার স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে গিয়ে নিজেদের উপর অর্পিত দায়িত্ব ভুলে মানুষের মনগড়া বানানো মতবাদের ভিত্তিতে সমাজ পরিচালনার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। যার দরুন মুসলমানরা আজ দুনিয়ার সর্বত্র ইহুদী-খৃষ্টানদের হাতে মার খাচ্ছে। তাই ন্যায় ও ইনসাফের ভিত্তিতে সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে হলে রাসূলের দেখানো পথের পূর্ণ অনুসরন ব্যতিত কখনো সম্ভব নয়।
চট্টগ্রাম মহানগরীর মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের প্রিয় সংগঠন আন্-নাবিল শিশু কিশোর সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদ আয়োজিত বৃত্তি সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আন্-নাবিল সাংস্কৃতিক সংসদ’র চেয়ারম্যান ও বায়তুশ শরফ আদর্শ কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা ড. সাইয়্যেদ আবু নোমান’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন দারুল উলুম মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাও. মাহাবুবুল আলম ছিদ্দিকী, বায়তুশ শরফ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাও. নুরুল ইসলাম, পতেঙ্গা আলীয়ার আরবী প্রভাষক ড. আব্দুল মোতালেব, আন্-নাবিল’র কেন্দ্রীয় উপদেষ্ট মাও. মাশুক আহমদ, প্রধান পৃষ্ঠপোষক মাও. তৌহিদুল ইসলাম এবং মাও. এম এ জব্বার, আহবায়ক সিকদার কামাল, রফিকুল হাসান, সদস্য সচিব বিশিষ্ট ওয়ায়েজিন মাও. জসিম উদ্দীন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ট্যালেন্টপুল ও সাধারণ গ্রেডে নগরীর বিভিন্ন মাদ্রাসার ৩য়–৯ম শ্রেণির মোট ২২২জন শিক্ষার্থী কে ক্রেস্ট-সনদ, নগদ অর্থ সহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ দিয়ে বৃত্তি সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।
উল্লেখ্য যে, আন্-নাবিল সংসদ প্রতিষ্ঠার পর থেকে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের মেধা শাণিত করতে কুইজ, সাধারণ জ্ঞানের আসর, শিক্ষা সফর, জিপিএ-৫ প্রাপ্ত সংবর্ধনা সহ নানা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

Leave a Reply