বাংলাদেশ টেলিভিশনের মাধ্যমে অভিনয় জগতে পা রাখেন আরফান আহমেদ

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২ এপ্রিল ২০১৭, রবিবার: বাংলাদেশ টেলিভিশনের মাধ্যমে অভিনয় জগতে পা রাখেন আরফান আহমেদ। যদিও ১৯৯৪ সালে একটি বিজ্ঞাপন চিত্রে মডেল হিসেবে মিডিয়াতে যাত্রা শুরু করেন।
১৯৯৫ সালের শেষ দিকে তার অভিনীত প্রথম নাটক বিটিভিতে প্রচারিতও হয়েছিল। একজন সাবলীল অভিনেতা হিসেবেই আরফান আহমেদের সুনাম কুড়িয়েছেন।
কিন্তু বর্তমানে টিভিতে চলমান অস্থিরতা আরফান আহমেদকেও স্পর্শ করেছে। নাটকে কাজ করে তিনি মনে করেন বিষ খাচ্ছেন। কারণ ভাড়ামো করতে তার ভালো লাগে
না। তিনি আরো বেশি বেশি পরিচ্ছন্ন নাটকে অভিনয় করতে চান। এমন কথাই তিনি জানান।
তিনি বলেন, ‘মাসের ২৫ দিন নাটকের কাজ থাকে। তখন মনে হয় খুব ভালো আছি। কিন্তু সেই কাজ যখন কমে মাসের ১০/১৫ দিনে নেমে আসে। তখন দুশ্চিন্তাগ্রস্থ
হয়ে পড়ি। বেঁচে থাকার জন্য মানহীন নাটকেও অভিনয় করতে হচ্ছে।’
ক্যারিয়ারের ২০ বছর পার করে এসে একজন শক্তিমান অভিনেতার কাছ থেকে এমন কথা কেউই আশা করে না। একথাতেই তার হতাশা স্পষ্ট হয়ে উঠে। বর্তমান টিভি
নাটকের নিম্ন মানের নাটকের কারণেই তিনি স্বাচ্ছন্দ্যভাবেও কাজ করতে পারছেন না।
এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘যতদিন পারি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। নাটকে শিল্পের মান কমে যাচ্ছে। এখন নাটকের শৈল্পিকতার জায়গা খুঁজে পাওয়া যায় না। এখন ১০টি নাটক
তৈরি হয়ে তার মধ্যে ৮টিরই মান ঠিক নেই। স্বস্তা হাসির গল্প তৈরি হচ্ছে। ভালো গল্পকারের অনেক অভাব।’
তাহলে কীভাবে নাটকের মান আবার ঠিক হবে বলে আপনি মনে করেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বিদেশি চাকচিক্যময় নাটক ডাবিং করে প্রচার হচ্ছে। ভালো
গল্পকার লাগবে। নির্দিষ্ট সময়ে বিদেশি সিরিয়াল প্রচার হোক।
গুণী এই অভিনেতা আরফানের সঙ্গে যখন কথা হয় তখন তিনি পূবাইলে সোনার পাখি, রুপার পাখি নাটকের সেটে ছিলেন। এখন তার অভিনীত ধরাবাহিক নাটক
অলসপুর ও নবাব সিরাজউদ্দৌলা প্রচার হচ্ছে আরটিভিতে। এছাড়া মহল্লা বিডি ডটকম ও হোম থিয়েটার চলছে মাছরাঙ্গা টেলিভিশনে। এছাড়া এনটিভিতে চলছে পোস্ট
গ্রাজুয়েট। এছাড়াও পরিচালক সৈয়দ শাকিলের দুটি নাটকেও অভিনয় করছেন আরফান। তিনি নাটক পরিচালনার সঙ্গেও যুক্ত রয়েছেন।

Leave a Reply