ডা. শেখ শফিউল আজমের মত ব্যক্তিত্বদের মূল্যায়ন হলে দেশ ও জাতি সমৃদ্ধ হবে: ড. অনুপম সেন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, সোমবার: প্রকৃত মানুষেরা জন্মে সৃষ্টিশীল কাজের জন্য। কাজের মধ্য দিয়ে সৃষ্টিশীল মানুষেরা জীবনের সার্থকতা ও আনন্দ খুঁজে পায়। স্বপ্নকে জীবনের বাস্তবতায় আলিঙ্গন করে নিজেকে বিলিয়ে দেন প্রকৃত মানুষেরা পরের কল্যাণে। পরের সুখে সুখী আর পরের দুঃখে দুঃখী সমাজকল্যাণকামী প্রকৃত মানুষেরা। কিন্তু এ রকম সমাজকল্যাণকামী মানুষ সমাজে খুব বেশি জন্মায় না। হাতে গোনা ক’জন মানুষ সমাজে জন্মে কল্যাণব্রতী মানুষ হিসেবে। আর এরাই প্রকৃত মানুষ। এ রকম একজন সমাজব্রতী, জীবন সংগ্রামী ও আলোকিত মানুষ এ সময়ের আলোকিত ব্যক্তিত্ব ডা. শেখ শফিউল আজম। তার জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত সমাজকল্যাণে নিবেদিত। তাই ডা. শেখ শফিউল আজমের মত ব্যক্তিত্বদের মূল্যায়ন হলে দেশ ও জাতি সমৃদ্ধ হবে। চট্টগ্রামের কৃতি সন্তান ডা. শেখ শফিউল আজম এর নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে আন্তর্জাতিক সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. অনুপম সেন উপরোক্ত মন্তব্য করেন।
চট্টগ্রামের কৃতি সন্তান, বিশিষ্ট চিকিৎসক নেতা ডাঃ শেখ শফিউল আজম বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন কেন্দ্রিয় কমিটির সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ব্যাবস্থাপনা বোর্ড এর সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় চট্টগ্রামবাসীর পক্ষ থেকে আজ ২৭ ফেব্রুয়ারি সকাল ১১ টায় নগরীর মোমিন রোডস্থ সুপ্রভাত স্টুডিও হলে ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিল ও বৃহত্তর চট্টগ্রাম ডেন্টাল এসোসিয়েশনের যৌথ উদ্যোগে নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, আন্তর্জাতিক সমাজবিজ্ঞানী ও বুদ্ধিজীবী প্রফেসর ড. অনুপম সেন। প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, ডা. শেখ শফিউল আজম একজন অনুকরণীয় ও আদর্শিক ব্যক্তিত্ব। তিনি একাধারে একজন চিকিৎসক, রাজনীতিবিদ, পুষ্টিবিজ্ঞানী,
আইনজীবী ও সমাজকর্মী। তার জীবনের প্রতিটি বাঁকে রয়েছে স্বর্ণালী ইতিহাসের রেখাচিত্র। ড. অনুপম সেন আরো বলেন, নিজের অদম্য ইচ্ছাশক্তি ও সাধনার মধ্য দিয়ে জীবনের অনেক কিছু করা যায় তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ডা. শেখ শফিউল আজম। সভায় বক্তারা বলেন, সমাজ, দেশ ও জাতিকে নিয়ে ভাবেন এ রকম মানুষ সমাজে খুব কমই পাওয়া যায়। ডা. শেখ শফিউল আজম আজীবন একজন হৃদ্ধ সমাজব্রতী ব্যক্তিত্ব। ডা. শেখ শফিউল আজম একজন সমাজব্রতী মানুষ হিসেবে অনেক গুণের অধিকারী, তা ভাবাও এখন কঠিন ব্যাপার। তিনি অসম্ভবকে জয় করে আলোকিত ব্যক্তিত্বে পরিণত। বক্তারা আরো বলেন, আজীবন সমাজ ও দেশের কল্যাণে নিবেদিত আলোকিত মানুষ ডা. শেখ শফিউল আজমের আরো বেশি মূল্যায়ন হওয়া প্রয়োজন। ডা. শেখ শফিউল আজমের যথাযথ মূল্যায়ন হলে দেশ ও জাতি আরো সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউএসটিসি চট্টগ্রামের উপাচার্য প্রফেসর ডাঃ প্রভাত চন্দ্র বড়–য়া, চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. রতন কুমার রায়, সাদার্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর মোঃ মহিউদ্দিন চৌধুরী। সংগঠনের আহ্বায়ক মোঃ জসিম উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মাননা অনুষ্ঠানে স.ম. জিয়াউর রহমানের সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, হাজী ওমরাহ মিয়া চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ আবদুর রহীম চৌধুরী, বৃহত্তর চট্টগ্রাম ডেন্টাল এসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক অভিজিত দে রিপন, সংগঠনের সদস্য প্রকৌশলী টি.কে সিকদার, প্রকৌশলী সঞ্চয় কুমার দাশ, সুভাষ চৌধুরী টাংকু, মোস্তাফিজুর রহমান মানিক, শেখ আব্দুল্লাহ শেখাব, বীর মুক্তিযোদ্ধা এস.এম. লিয়াকত হোসেন, সুমন চৌধুরী, কাজী সাইফুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আনোয়ার আজম, যুবলীগ নেতা মাহবুব আলম, মোঃ নাসির উদ্দিন, সাজিব বড়–য়া সাজু, বেলাল হোসেন উদয়ন, আসিফ ইকবাল প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে প্রধান অতিথি প্রফেসর ড. অনুপম সেন সংবর্ধিত অতিথি ডা. শেখ শফিউল আজমের হাতে সম্মাননা ক্রেষ্ট তুলে দেন।

Leave a Reply