চন্দনাইশে ডেবারকূল ঐক্য সংঘের ১৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সম্মেলন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, শনিবার: চন্দনাইশের বৈলতলী ইউনিয়নের সামাজিক সংগঠন ডেবারকূল ঐক্য সংঘের ১৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বর্ণাঢ্য র‌্যালী, মেধা যাচাই অভীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতীদের পুরুস্কার বিতরণ, দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সামগ্রী বিতরণসহ নানা আয়োজনে পালিত হয়েছে।সংগঠনের সভাপতি কে.এ.এম ইমরান বকরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের প্যানেল স্পিকার, চট্টগ্রাম-১৪ চন্দনাইশ-সাতকানিয়া আংশিক আসনের সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার কাজ দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।পাশাপাশি সোনার বাংলাকে অসম্প্রদায়িক রাষ্ট্র গঠনে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা আপোষহীন কঠোর ভূমিকা নিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, চন্দনাইশকেও জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদের কালো থাবা থেকে মুক্ত রাখতে হবে এবং তরুণ প্রজন্ম যাতে সর্বনাশা মাদকের চোরাবালিতে তলিয়ে না যায় সেদিকে সবার নজর দিতে হবে।তিনি সন্ত্রাস ও মাদক বিরোধী আন্দোলনে ঐক্য সংঘের কর্মীদের অবদান রাখার আহবান জানান। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শওকত আকবর ও যুগ্ম সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চন্দনাইশ উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মোহাম্মদ শফি উদ্দীন, চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শিবলী, বৈলতলী ইউপি চেয়ারম্যান আ্যডভোকেট আনোয়ারুল মোস্তফা চৌধুরী দুলাল, সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা ডাইরেক্টর আবদুল কুদ্দুস, উপদেষ্টা আবদুল হাই মাস্টার, ইউপি মেম্বার আবদুল হাই, সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য আবদুল হামিদ, আ্যডভোকেট আকবর আলী, নূর হোসেন পেয়ারু, তাজ উদ্দীন, আবু বক্কর, ইমরান সোহেল, সাবেক সহ-সভাপতি আদনান রনি, বাহাদুর ইসলাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, কাজী আরাফাত। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি কে.এম ফৌজুল আজিম। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,ডেবারকূল ঐক্য সংঘ ১৯ বছর ধরে বাতিঘর হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে। সমৃদ্ধ ও সুন্দর সমাজ গড়ার প্রত্যয়ে বিভিন্ন সেবামূলক ও সৃজনধর্মী কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। বক্তারা উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, শুধু পড়াশুনা আর ভাল ফলাফল অর্জন করলেই হবে না, পাশাপাশি একজন ভালো মানুষ হিসেবেও নিজেকে তৈরি করতে হবে। সমাজ ও দেশের মঙ্গলে নিজেকে নিবেদিত করার মাধ্যমে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলারও পরামর্শ দেন বক্তারা। অনুষ্ঠানে আরো বক্তৃতা করেন আবু মনছুর, খোরশেদুল আলম, মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, রিদওয়ান সাঈদ নূর, হাসান ফরহাদ, মুরাদুল ইসলাম, সাইফুদ্দীন মানিক, আবদুল করিম প্রমুখ। পরে মেধা যাচাই অভীক্ষায় উত্তীর্ণ ৫০ জন কৃতী ও শতাধিক দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্রেষ্ট, সনদপত্র ও শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply