নরসিংদীতে এক কলেজ শিক্ষককে হত্যার হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, শনিবার: নরসিংদীতে এক কলেজ শিক্ষককে হত্যার হুমকি দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। বৃহস্পতিবার রাতে এই হত্যার হুমকি দেয়া হয়। এ ঘটনায় শুক্রবার কলেজশিক্ষক শহিদুল হক সুমন পলাশ থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।
জানা গেছে, জেলার পলাশ উপজেলার চরসিন্দুরে অবস্থিত সোমেন চন্দ পাঠাগারে বসে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে বই পড়ছিলেন চরসিন্দুর শহীদ স্মৃতি মহাবিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রভাষক শহিদুল হক সুমন। এসময় সুলতানপুর এলাকার মামুন তার সহযোগী শামীমকে সাথে নিয়ে কলেজশিক্ষকের উপর হামলা চালায়। ঘটনার সময় পাঠাগারের অন্যান্য সদস্যদের জন্য প্রাণে রক্ষা পান কলেজশিক্ষক শহিদুল হক সুমন। এসময় মামুন কলেজশিক্ষক শহিদুল হক সুমনকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে পাঠাগারের সদস্যদের নিয়ে রাতে বাড়ি যান কলেজ শিক্ষক শহিদুল হক সুমন।
থানায় অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, এলাকার শীতলক্ষ্যা সেতুর উপড় দিয়ে একটি ব্রিজ নির্মাণ হচ্ছে। আর এই ব্রিজের নামকরণ মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হকের নামে নামকরণের জন্য নদীর দুপাশে দুটি সাইনবোর্ড টানায় আব্দুল হকের পরিবারের সদস্যরা। সেই সাউনবোর্ড মামুন তার সহযোগীদের নিয়ে ভেঙে ফেলে। এই ঘটনায় মামুনকে আসামি করে পলাশ থানায় একটি মামলা করেন মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হক। এরই জেরধরে মামুন কলেজশিক্ষক শহিদুল হক সুমনের উপর চড়াও হয়।
কলেজশিক্ষক শহিদুল হক সমুনকে হত্যার হুমকিতে নরসিংদীর জেলা প্রশাসক আবু হেনা মোরশেদ জামান, পলাশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা আক্তার, নরসিংদী কলেজ অ্যান্ড স্কুল শিক্ষক সমিতির সভাপতি মশিউর রহমান মৃধা, নরসিংদী জেলা প্রগতি লেখক সংঘ তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।
কলেজশিক্ষক শহিদুল হক সুমন পলাশ উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সদস্য, জেলা প্রগতি লেখক সংঘের সভাপতি, বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের সংগঠক, সোমেন চন্দ পাঠাগারের সভাপতি।

Leave a Reply