ট্রাম্পের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৮ নভেম্বর, শনিবার: নিউইয়র্কের ট্রাম্প টাওয়ারে যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে। অ্যাবে ৯০ মিনিটের এই সাক্ষাৎকারকে উষ্ণ পরিবেশে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের সূচনা বলে উল্লেখ করেছেন। এছাড়াও ট্রাম্পের প্রতি তার পূর্ণ আস্হা রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। ট্রাম্প ক্ষমতায় আসায় দুই দেশের মধ্যে আস্হার সম্পর্ক তৈরি হবে বলে তিনি মনে করেন।1
কিন্তু নির্বাচনী প্রচারণার সময় ট্রাম্পের কিছু বক্ত্যবে জাপানসহ দীর্ঘদিনের বিভিন্ন বন্ধুরাষ্ট্রের সাথে সম্পর্কের ক্ষেত্রে সন্দেহ তৈরি হয়েছিল। প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওযার পর কোন দেশের প্রধানমন্ত্রীর সাথে এটিই প্রথম সাক্ষাৎকার ট্রাম্পের। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে জাপানকে অর্থনৈতিক ভাঙনের পথ থেকে বাঁচায় যুক্তরাষ্ট্র। তারপর থেকেই দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক তৈরি হয়।
টিপিপি চুক্তি (ট্রান্স প্যাসিফিক পার্টনারশিপ)এই দুই দেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। ট্রাম্প এই চুক্তি বাতিল করতে চাইলেও চীনের উঠতি অর্থনীতির মোকাবিলা করতে অ্যাবে এই চুক্তি বাতিল না করার পক্ষে। ট্রাম্প দায়িত্ব নেওয়ার পর এই চুক্তি বাতিল হওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও জাপানের পার্লামেন্টে চুক্তি সম্পাদনের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।
ডোনাল্ড ট্রাম্প জাপানে মার্কিন সৈন্যদের প্রতি বিশেষ মনোযোগ দিতে বলেন এবং দক্ষিণ কোরিয়ার ক্ষেপনাস্ত্র হামলা মোকাবিলায় জাপান-উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক অস্ত্র চুক্তির ব্যাপারে আলোচনা করেন। ধারণা করা হচ্ছে নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে টেলিফোনে শুভেচ্ছা জানানোর সময় থেকেই এ সাক্ষাৎকার আয়োজনের ব্যবস্হা করা হয়। এমনকি অ্যাবে, পেরুতে আগে থেকে নির্ধারিত এশিয়া প্যাসিফিক ট্রেড সামিট সফর বাতিল করেন ট্রাম্পের সাথে দেখা করবার জন্য।

Leave a Reply