জনপ্রতিনিধির মাধ্যমেই সাঁওতালদের ওপর হামলা: জয়নুল আবদিন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৮ নভেম্বর, শনিবার: বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক মন্তব্য করে বলেছেন, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে সংখ্যালঘুসহ কেউ নিরাপদ নয়। শুক্রবার সকালে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত সাঁওতাল সম্প্রদায়ের খোঁজখবর নিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে এমন মন্তব্য করেন জয়নুল আবদিন ফারুক।1
জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, “সরকারি দলের মদদে রাষ্ট্রীয় প্রশাসনযন্ত্রই স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে আদিবাসী সাঁওতালদের ওপর হামলা, অত্যাচার ও নিপীড়ন চালিয়েছে। এ ঘটনার জন্য বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি করতে হবে। কোনো অবস্থাতে অপরাধীরা যেন ছাড় না পায়, সে ব্যবস্থা সরকারকে করতে হবে।” এর আগে সকাল পৌনে ১০টার দিকে জয়নুল আবদিন ফারুকের নেতৃত্বে নয় সদস্যর প্রতিনিধিদলটি সাঁওতালপল্লী জয়পুরপাড়া ও মাদারপুরে পৌঁছায়।
প্রতিনিধিদলটি সাঁওতালপল্লীতে পৌঁছে প্রথমে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করে। এরপর জয়পুরপাড়া ও মাদারপুর সাঁওতালপল্লীতে অবস্থান নেয়া ক্ষতিগ্রস্ত সাঁওতালদের খোঁজখবর নেয়। এ সময় তাঁরা ক্ষতিগ্রস্ত সাঁওতালদের মধ্যে শাড়ি, লুঙ্গিসহ ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন।
প্রতিনিধিদলে অন্যদের মধ্যে ছিলেন সাবেক মন্ত্রী বিএনপির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলু, সহধর্মীয় সম্পাদক অমেলন্দু দাস অপু, জয়ন্ত কুণ্ডু, জাতীয়তাবাদী ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী দলের সভাপতি মৃগেন হাসিদক প্রমুখ।
এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রতিনিধিদলের সঙ্গে জেলা বিএনপির সভাপতি আনিছুজ্জামান খান বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান মিজান, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ আবদুল মান্নান মণ্ডল, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলতাব হোসেন পাতাসহ স্থানীয় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

Leave a Reply