দুবাই থেকে ছেড়ে আসা বাংলাদেশ বিমান চট্টগ্রামে অবতরণ করতে পারেনি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ১৪ নভেম্বর, সোমবার: দুবাই থেকে ছেড়ে আসা বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট ঘন কুয়াশার কারণে চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করতে পারেনি।
পরে সেটি ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করলেও বিমানে বসে আছেন চট্টগ্রামের ৭০ জন যাত্রী। বিমানের এসি বন্ধ করে দেওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন নারী-শিশুসহ যাত্রীরা।1
জানা গেছে, রোববার দিনগত রাত পৌনে ১২টায় দুবাই থেকে ফ্লাইটটি ছাড়ার কথা ছিল। কিন্তু প্রায় দুই ঘণ্টা দেরিতে রাত ১টা ৪০ মিনিটে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে উড্ডয়ন করে। বিমানটি সোমবার সকাল সাড়ে ৭টায় শাহ আমানত বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা ছিল। বিমানটি চট্টগ্রামের আকাশে পৌঁছালে যাত্রীদের জানানো হয় আবহাওয়া ভালো না থাকায় চট্টগ্রামে অবতরণ করতে পারছে না। ঢাকা বিমানবন্দরে অবতরণ করবে। পরে চট্টগ্রাম আসবে।
ওই বিমানের যাত্রী চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার নোয়াজিশপুর এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ আলী দুপুর ১২টায় জানান, বিমানটি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের পর ঢাকার ২১ জন যাত্রী নেমে যান। চট্টগ্রামের বাকি ৭০ জন যাত্রী বিমানেই অবস্থান করছেন। মাইক্রোবাস নিয়ে আমাদের রিসিভ করতে আসা স্বজনরা চট্টগ্রাম বিমানবন্দর এলাকায় উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় অপেক্ষা করছেন।
এর মধ্যে দুইজন যাত্রী স্বজনের জানাজায় অংশ নিতে দেশে এসেছেন জানিয়ে তিনি বলেন, তারা জানাজায় অংশ নেবেন। কিন্তু এখনো পর্যন্ত বিমান ছাড়ছে না। অন্যদিকে বিমানের এসি বন্ধ করে দেওয়ায় গরমে শিশু ও নারীরা অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। ফলে চরম ভোগান্তিতে রয়েছেন চট্টগ্রামের ৭০ জন যাত্রী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ম্যানেজার উইং কমান্ডার রিয়াজুল কবির বলেন, ঘন কুয়াশার কারণে বিমানটি চট্টগ্রামে অবতরণ করতে পারেনি।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কুয়াশার কারণে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইটটি অবতরণ করতে না পারলেও কাছাকাছি সময়ে ফ্লাই দুবাইসহ আরও কয়েকটি বিমানের ফ্লাইট অবতরণ করেছে।
বেলা দুইটায় ওই ফ্লাইটের একজন যাত্রী বলেন, সোয়া ১২টার দিকে বিমানের একজন কর্মকর্তা আমাদের আশ্বস্ত করেছেন বিকেল চারটায় চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে আমাদের একটি ফ্লাইটে তুলে দেওয়া হবে। এ আশ্বাসের পর বিমানযাত্রীরা নেমে আসেন। এরপর আমাদের দুপুরের খাবার দেওয়া হয়। বর্তমানে আমরা ফ্লাইটে ওঠার জন্য অপেক্ষা করছি।
বিকেল পৌনে পাঁচটায় মোহাম্মদ আলী জানান, চট্টগ্রাম হয়ে আবুধাবিগামী একটি ফ্লাইটে আটকে পড়া যাত্রীদের তুলে দিয়েছে বিমান কর্তৃপক্ষ। আশাকরি শিগগির গন্তব্যে পৌঁছে উদ্বিগ্ন স্বজনদের সঙ্গে দেখা করতে পারব।

Leave a Reply