পুরুষ নির্যাতন দমন আইনের দাবিতে ঢাকায় মানববন্ধন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৯ নভেম্ববর, বুধবার: পুরুষ নির্যাতন দমন আইনের দাবিতে পুরান ঢাকায় মহানগর জজ আদালতের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে পুরুষ নির্যাতন প্রতিরোধ আন্দোলনের আহ্বায়ক শেখ খায়রুল আলম ২১ দফা দাবিতে এ মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করেন।1
একুশ দফা দাবির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- পুরুষ নির্যাতন দমন আইন চাই, নারী নির্যাতন মামলায় পুরুষ নির্দোষ প্রমাণিত হলে রায়ের দিনই স্ত্রীকে পাল্টা শাস্তির বিধান করতে হবে, নির্দোষ হলেও জেল খাটলে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে, কোনো নারী কর্তৃক কোনো পুরুষ ধর্ষণের শিকার হলে ওই নারীর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলার বিধান করতে হবে ইত্যাদি।
শেখ খায়রুল আলমের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার ভূঁইগড় এলাকায়। তিনি নিজে স্ত্রীর নির্যাতনের শিকার। তিনি জানান, একই এলাকার আজাহার মিয়ার মেয়ে শারমিন আফরোজ মিমিকে ২০১৩ সালের ১৮ অক্টোবর তিনি বিয়ে করেন। কথা ছিল বিয়ের দুই মাসের মধ্যে স্ত্রীকে তার ঘতে তুলে দেবে। কিন্তু তুলে না দিয়ে প্রথমে তার বিরুদ্ধে যৌতুক আইনের একটি মামলা করে। ওই মামলায় জামিন পাওয়ার পর নারী নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করে। দুই মামলায় তিনি ৭৭ দিন জেলে ছিলেন। তিনি একটি ফুড কোম্পানির ডিলার ছিলেন, ৭৭ দিন জেলে থাকায় তার ডিলারশিপ চলে যায়। নারী নির্যাতন দমন আইনে বিচার বিভাগীয় তদন্তে তাকে নির্দোষ বলা হলেও নারী নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেয়।
খায়রুল বলেন, এভাবেই মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন। তিনি আরও বলেন, দেশে লাখ লাখ পুরুষ ঘরে স্ত্রীর দ্বারা নির্যাতনের শিকার হলেও আত্মসম্মানের ভয়ে মুখ বুজে সহ্য করেন। তাই নারী নির্যাতন দমন আইনের পাশাপাশি পুরুষ নির্যাতন দমন আইন হওয়া জরুরি।
নতুন এই আন্দোলনের আহ্বায়ক জানান, আগাম ১৯ নভেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে একই দাবিতে কমসূচি পালন করবেন এবং তিনি ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন।

Leave a Reply