পারিশ্রমিক বৈষম্য নিয়ে মুখ খুললেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৮ নভেম্ববর, মঙ্গলবার: এবার বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পুরুষ-নারীর মধ্যে পারিশ্রমিক বৈষম্য নিয়ে মুখ খুললেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া। এর আগে বহু অভিনেত্রী এবিষয় মুখ খুলেছেন। প্রিয়ঙ্কার মন্তব্য শুধু বলিউড নয়, যেকোনও ব্যবসায়, যেকোনও ক্ষেত্রে পুরুষরা মহিলাদের থেকে অনেক বেশি পারিশ্রমিক পান। যদিও বহু মহিলারই তাঁদের কাজের প্রতি আনুগত্য অনেক পুরষের থেকে বেশি। কিন্তু যেকোনও জায়গায়, যেকোনও ক্ষেত্রে একজন পেশাদারী পুরুষ অনেক বেশি রোজগার করেন, একজন মহিলার তুলনায়। এর মূল কারণ কি, সেটা প্রিয়ঙ্কা যদিও এখনও বুঝে উঠতে পারেননি, দাবি অভিনেত্রীর।1
তার এই মন্তব্যের সঙ্গে একথা বলতেও ভোলেননি প্রিয়ঙ্কা, যে বলিউডে অচিরেই অভিনেত্রীরা অভিনেতাদের থেকে বেশি আয় করবেন, যদি দর্শকরা নারীকেন্দ্রিক ছবি গ্রহণ করতে শুরু করেন।
প্রসঙ্গত, একটা ছবির পোস্টারে সলমন বা আমির খান যদি থাকে, তাহলে সেছবি অনায়সেই ৩০০ কোটি আয় করে। অথচ এখনও পর্যন্ত কোনও ছবিতে যদি অভিনেত্রীরা মুখ্য চরিত্রে থাকেন, তাহলে সেছবি অত টাকা আয় করতে পারে না। কিন্তু যেদিন এই অবস্থার পরিবর্তন হবে, সেদিনই বলিউডে পুরুষ ও নারীর পারিশ্রমিকের মধ্যে আর কোনও ফারাক থাকবে না, দাবি পিগি চোপসের।
সাক্ষাত্কারে প্রিয়ঙ্কা তাঁর প্রযোজনা সংস্থা পার্পেল পেবেল পিকচার্স সম্পর্কে বলেন, তাঁর প্রথম মরাঠি ছবি ‘ভেন্টিলেটর’ নিয়েও অনেক কথা বলেন। তিনি বলেন, তার প্রযোজনা সংস্থা নতুন নতুন প্রতিভাদের বেশি সুযোগ দেবেন। তার সংস্থায় চিত্রনাট্যকেও বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হবে। মূলত আঞ্চলিক ছবি করতেই বেশি আগ্রহী প্রিয়ঙ্কা। তিনি ভোজপুরী, মরাঠি ছবি করতে চান। একটি পঞ্জাবি ছবি নিয়ে এখন কাজ করছে প্রিয়ঙ্কার প্রযোজনা সংস্থা। অভিনেত্রীদের পারিশ্রমিক নিয়ে এর আগে মুখ খুলেছিলেন কঙ্গনা রানাউত, পড়ুন কী বলেছিলেন তিনি।

Leave a Reply