নৌবাহিনীর অর্জিত মর্যাদা সর্বদা সমুন্নত রাখবেন: রাষ্ট্রপতি

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৮ নভেম্ববর, মঙ্গলবার: উঁচু পেশাদারিত্ব এবং শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য নৌবাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো.আব্দুল হামিদ। ৮ নভেম্বর নৌবাহিনীর সর্ববৃহৎ ঘাঁটি বানৌজা ঈসা খানকে ন্যাশনাল স্ট্যান্ডার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান।1
রাষ্ট্রপতি নৌবাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশে বলেন, আপনারা উঁচু পেশাদারিত্ব, কঠোর পরিশ্রম, শৃঙ্খলা এবং কর্মদক্ষতার মাধ্যমে নৌবাহিনীকে বিশ্বদরবারে মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করবেন। নৌবাহিনীর অর্জিত মর্যাদা সর্বদা সমুন্নত রাখবেন।
পরিবেশ রক্ষায়ও নৌবাহিনীকে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে আপনারা ভূমিকা রেখেছেন। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও বিভিন্ন জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় নৌবাহিনীর তৎপরতা সকলের প্রশংসা অর্জন করেছে। ভবিষ্যতে পরিবেশ রক্ষাসহ বিভিন্ন জাতীয় কর্মকাণ্ডে নৌবাহিনী বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবে বলে আমি আশা করি।
অচিরেই নৌবাহিনী দক্ষ ত্রিমাত্রিক বাহিনীতে পরিণত হবে মন্তব্য করে তিনি বলেন, খুব শীঘ্রই নৌবাহিনীতে সংযোজিত হতে যাচ্ছে বহু আকাঙ্ক্ষিত দুটি সাবমেরিন। এই অর্ন্তভুক্তির মাধ্যমে নৌবাহিনী একটি দক্ষ ত্রিমাত্রিক বাহিনীতে রূপান্তরিত হবে যা আমাদের সামগ্রিক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থায় বিশেষ অবদান রাখবে।
নৌবহর বৃদ্ধির পাশাপাশি নৌবাহিনীর নিজস্ব বিমান ও সাবমেরিন ঘাঁটিসহ প্রয়োজনীয় অবকাঠামো উন্নয়নের পদক্ষেপ নেয়ার কথাও জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।
রাষ্ট্রপতি বলেন, আমাদের বিশাল সমুদ্রাঞ্চলে রয়েছে মৎস্য, গ্যাস ও অন্যান্য খনিজ সম্পদসহ অনাবিষ্কৃত মূল্যবান সম্পদ। এসব সম্পদ রক্ষা, আহরণ ও সমুদ্র এলাকার সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য একটি শক্তিশালী, আধুনিক ও নির্ভরযোগ্য নৌবাহিনী গড়ে তোলার কোন বিকল্প নেই।
এর আগে সকালে রাষ্ট্রপতি চট্টগ্রামের বানৌজা ঈসা খান ঘাঁটিতে এসে পৌঁছালে নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ তাকে স্বাগত জানান। পরে নৌবাহিনীর একটি চৌকস দল ঈসা খান প্যারেড গ্রাউন্ডে রাষ্ট্রপতিকে গার্ড অব অনার প্রদান করে। অনুষ্ঠানে সেনা ও বিমানবাহিনী প্রধান এবং চট্টগ্রামের সংসদ সদস্য ও কূটনীতিকরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply