মেয়রের সাথে সিটিএফকে ও ইপসা’র বিদেশী অতিথিদের সৌজন্য সাক্ষাত

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২০ অক্টোবর : “চলতি বাজেটে ধূমপান ও মাদক নিয়ন্ত্রণে এক কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। সকলের সহযোগিতার মাধ্যমে এই বাজেট যথাযথ ও কার্যকরি উপায়ে ব্যয় করা হবে এবং ভবিষ্যতে এই বরাদ্দের পরিমাণ আরো বৃদ্ধি করা হবে। FOR PRESS_ypsa_TFK-MAYORসর্বোপরি চট্টগ্রামকে জলবদ্ধতা ও আবর্জনামুক্ত গ্রিণসিটি গড়ার পাশাপাশি ধূমপানমুক্ত হেলদিসিটি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার প্রয়াস অব্যহত থাকবে।” চট্টগাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ.জ.ম.নাছির উদ্দিন ক্যাম্পেইন ফর টোবাকো ফ্রি কিডস’র (সিটিএফকে) ও ইপসা’র বিদেশী অতিথিদের সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাতে উক্ত বক্তব্য রাখেন। সমাজ উন্নয়ন সংস্থা ইপসা এবং আমেরিকা কেন্দ্রিক সহযোগি সংস্থা ব্লুমবার্গ ইনিশিয়েটিভ (বিআই) এবং ক্যাম্পেইন ফর টোবাকো ফ্রি কিডস’র (সিটিএফকে) প্রতিনিধিবৃন্দ মিস. মিনা ইল-তুর্কি, প্রকল্প কর্মকর্তা, সিটিএফকে এবং মিস. নেলী আহমেদ, কমপ্লায়েন্স কর্মকর্তা (অর্থ), সিটিএফকে, গত ১৮ অক্টোবর, চট্টগাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ.জ.ম.নাছির উদ্দিন এর সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। উক্ত আলোচনায় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের উপ-সচিব শরিফুল আলম, লিড কনসাল্টেন্ট, সিটিএফকে এবং ডা: মাহফুজুর ভূইঁয়া, গ্রান্ট ম্যানেজার, সিটিএফকে, চট্টগাম সিটি কর্পোরেশনের সচিব রশিদ আহমেদ, চট্টগাম সিটি কর্পোরেশন মেয়রের একান্ত সচিব মোহাম্মদ মনজুরুল ইসলাম, দেশ টিভি’র আঞ্চলিক কর্মকতা আলমগীর সবুজ, দৈনিক আজাদী’র মোরশেদ তালুকদার, ইপসা’র ধূমপানমুক্ত প্রকল্পের টিম লিডার নাসিম বানু, প্রকল্প ব্যবস্থাপক মো: আলী শাহিন, প্রকল্প কর্মকতা ওমর শাহেদ।
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনকে ধূমপানমুক্ত করার জন্য বাংলাদেশের অন্যান্য স্থানীয় সরকারের তুলনায় সর্বাধিক বাজেট বরাদ্দ ও নানামূখী বাস্তবধর্মী পদক্ষেপ নেয়ায় মেয়র’কে সর্বস্তরের জনগণের পক্ষ হতে ধন্যবাদ জানানো হয় এবং ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। উপস্থিত প্রতিনিধিবৃন্দ বলেন, সংশোধিত তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৩ এর যথাযথ প্রয়োগ এবং এর বাস্তবায়নের মাধ্যমে তামাকজাতপণ্য ব্যবহার জনিত বিভিন্ন শারেরীক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষতির হাত থেকে জনগণকে রক্ষা করা সম্ভব। এক্ষেত্রে চট্টগ্রাম সিটিকর্পোরেশন ও সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে ধূমপান ও তামাক বিরোধী উদ্যোগকে আরো বেগবান করার জন্য আহবান জানান।

Leave a Reply