মিনায় নিহত হাজির সংখ্যা বেড়ে ২ হাজার ১৬৫ : বাংলাদেশের ১৩৭

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২০ অক্টোবর : সৌদি আরবের মিনায় পবিত্র হজের সময় প্রচণ্ড ভিড়ের চাপে নিহত হাজির সংখ্যা বেড়ে ২ হাজার ১শ’ ৬৫ জনে দাঁড়িয়েছে। minaএ ঘটনার শিকার হয়েছে বিশ্বের ৩০ টি দেশ। বিভিন্ন দেশের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে এ সংখ্যা জানা গেছে। এছাড়া, বার্তা সংস্থা এপি-ও এমন খবর দিয়েছে। তবে, সৌদি আরব প্রথম দিকে ৭৭০ জন হাজি নিহতের কথা বলেছিল এবং এ পর্যন্ত সে সংখ্যা আর বাড়ায় নি। ইরান বলছে, মিনায় অন্তত ৪,৭০০ হাজি নিহত হয়েছেন। হাজি নিহতের দিক থেকে সবার আগে রয়েছে ইরান। ইরানি হাজি মারা গেছেন ৪৬৪ জন। এর পরেই রয়েছে নাইজেরিয়া। দেশটির হাজি নিহত হয়েছেন ১৯৯ জন। এছাড়া, মালির ১৯৮ জন, মিশর ১৮২, বাংলাদেশ ১৩৭, ইন্দোনেশিয়া ১২৯, ভারত ১১৬, পাকিস্তান ১০২, ক্যামেরুন ৭৬, নাইজার ৭২, সেনেগাল ৬১, চাদ ৫২, বেনিন ৫২, আইভরিকোস্ট ৫২, ইথিওপিয়া ৪৭, মরক্কো ৩৬, আলজেরিয়া ৩৩, সুদান ৩০, বুরকিনসাফাসো ২২, তানজানিয়া ২০, তিউনিশিয়া ১৮, লিবিয়া ১০, সোমালিয়া ১০, কেনিয়া ৮, ঘানা ৭, তুরস্ক ৭, মিয়ানমার ৬, মরিশাস ৫, চীন ৪, ইরাক ৩, আফগানিস্তান ২, বুরুন্ডি ১, জর্দান ১, নেদারল্যান্ড ১, ওমান ১ এবং মালয়েশিয়ার হাজি ১ জন। সূত্র: রেডিও তেহরান। মিনার ঘটনার আগে পবিত্র মসজিদুল হারামে বিশাল একটি ক্রেন ভেঙে অন্তত ১১০ জন নিহত ও ২০০’র বেশি হাজি আহত হয়েছিলেন। এছাড়া, ২১ সেপ্টেম্বর দুটি হোটেলে আগুন লাগার ঘটনায় বহু হাজি আহত হন। এসব ঘটনায় সৌদি আরব মারাত্মক সমালোচনার মুখে পড়েছে। সৌদি দুর্বলতার কারণে হজ ব্যবস্থাপনায় আন্তর্জাতিক কমিটি গঠনের দাবি জোরালো হয়েছে। এর পাশাপাশি এসব হাজি হতাহত হওয়ার সঠিক তদন্ত দাবি করেছে ইরানসহ অনেক দেশ। সূত্র : শীর্ষ নিউজ

Leave a Reply