দেশের অগ্রগতির জন্যে অর্থনৈতিক রিপোর্টিংয়ের গুরুত্ব বেশি : জেলা প্রশাসক

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ৮ অক্টোবর : দেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্যে অর্থনীতি-বিষয়ক রিপোর্টিংয়ের গুরুত্ব অনেক বেশি বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রামেরChittagong_reporting_others_08_10_15(1) জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন। চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসের সম্মেলন কক্ষে গতকাল (বৃহস্পতিবার) সকালে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট (পিআইবি) ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে) যৌথ উদ্যোগে ‘সাংবাদিকদের জন্যে অর্থনীতি-বিষয়ক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণ’ এর উদ্বোধনকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। জেলা প্রশাসক বলেন, ‘একই খবর একেকজন রিপোর্টার একেকভাবে লেখেন। যিনি যত অভিজ্ঞ, যিনি যত প্রশিক্ষিত তিনি তত ভালো রিপোর্ট লিখতে পারেন। বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। তাই অর্থনৈতিক রিপোর্টিংয়ের গুরুত্বও বাড়ছে।’ তিন দিনের এ প্রশিক্ষণের ফলে প্রশিক্ষক ও নবীন-প্রবীণ সাংবাদিকদের মধ্যে অভিজ্ঞতা বিনিময় এবং ব্যবহারিক দক্ষতা অর্জন হবে বলে আশা করেন তিনি। সিইউজের সভাপতি এজাজ ইউসুফীর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পিআইবির উপপরিচালক মো. জাকির হোসাইন। সিইউজে সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌসের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন পিআইবির কর্মশালা সমন্বয়কারী জিলহাজ উদ্দিন নিপুন, সিইউজের যুগ্ম সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম, কর্মশালা উপ-কমিটির আহ্বায়ক রাশেদ মাহমুদ। উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা-সাংবাদিক পঙ্কজ কুমার দস্তিদার, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি কাজী আবুল মনসুর, Chittagong_reporting_others_08_10_15(2)টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ প্রমুখ। কর্মশালায় চট্টগ্রামের নবীন-প্রবীণ ৩৫ সাংবাদিক অংশ নিচ্ছেন। মো. জাকির হোসাইন বলেন, ‘সংবাদপত্র, রেডিও, টেলিভিশন ও অনলাইন গণমাধ্যমের কারণে দেশে সাংবাদিকের সংখ্যা বাড়ছে। পিআইবি প্রতিষ্ঠার সময় যেখানে হাতেগোনা কয়েকটি সংবাদপত্র ছিল এখন সেখানে দৈনিক পত্রিকা প্রায় ১২ শত। ২৯-৩০টি টেলিভিশন চ্যানেলই আছে। এর বাইরে সাপ্তাহিক, মাসিক পত্রিকাও আছে। তাই পিআইবির পরিসর বাড়িয়েছে সরকার। এখন ৩০ জন সাংবাদিককে আবাসিক প্রশিক্ষণের সক্ষমতা পিআইবিতে তৈরি হয়েছে। এর বাইরে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে নিয়মিত সাংবাদিকদের প্রশিক্ষিত করতে কর্মশালার আয়োজন চলছে।’ ২০ বছর কর্মজীবনে ১৮ জন মহাপরিচালকের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বলেন, ‘সাংবাদিকদের পেশাগত উৎকর্ষের জন্য বর্তমান মহাপরিচালক অত্যন্ত নিবেদিত। আড়াই বছরের কর্মজীবনে তিনি মাত্র ১ দিন সিএল ছুটি নিয়েছেন। Chittagong_reporting_others_08_10_15(6)বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট গঠিত হয়েছে। যার কার্যালয় পিআইবিতে। বর্তমানে পিআইবি আইনি কাঠামোয় আসছে। আশাকরি শীতকালীন অধিবেশনে তা সংসদে পাস হবে।’ হাসান ফেরদৌস বলেন, ‘চট্টগ্রাম বাণিজ্যিক রাজধানী, বন্দরকে ঘিরে সারা দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য, আমদানি রপ্তানি হয়। অর্থনীতির চাকা সচল থাকে। তাই পিআইবির অর্থনীতি বিষয়ক রিপোর্টিং কর্মশালা অত্যন্ত তাৎপর্য বহন করে। এর সুদূরপ্রসারী প্রভাব দেশের অর্থনীতিতে পড়বে।’ এজাজ ইউসুফী বলেন, ‘মৌখিকভাবে বাণিজ্যিক রাজধানী বলা হলেও এ সম্পর্কিত কোনো গেজেট নেই। তবে এটা ঠিক চট্টগ্রাম বাংলাদেশের অর্থনীতির মেরুদণ্ড। ভৌগোলিকভাবে এখানে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের যেমন বিপুল সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে তেমনি পর্যটনশিল্পের প্রসারও হতে পারে। এক্ষেত্রে যুগোপযোগী অর্থনৈতিক রিপোর্টিং জাতিকে পথ দেখাবে।’ তিনি বলেন, দেশের কেন্দ্র চট্টগ্রামের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করছে। আট বছরেও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চার লেনের কাজ শেষ হয়নি। সেতুমন্ত্রী হুমকি-ধমকি দিয়ে ডিসেম্বরে চার লেন প্রকল্পের কাজ শেষ হবে বললেও আপনারা (সাংবাদিক) জানেন এটি হওয়ার নয়। এ সড়কটির কারণেই চট্টগ্রাম বন্দরে রপ্তানি পণ্য আনা ও আমদানি পণ্য সরবরাহ ব্যাহত হচ্ছে। অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব পড়ছে।’ উদ্বোধনী দিন প্রশিক্ষণ দেন প্রথম আলোর বিজনেস এডিটর শওকত হোসেন মাসুম ও সিনিয়র সাংবাদিক জসীম চৌধুরী সবুজ। কাল শুক্রবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মো. আলী আজগর চৌধুরী ও কালের কণ্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি ফারুক ইকবাল, শনিবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আলী আর রাজী, পিআইবির মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীর প্রশিক্ষণ দেবেন। শুরু হচ্ছে সহ-সম্পাদকদের প্রশিক্ষণ : এদিকে, চট্টগ্রামের বিভিন্ন পত্রিকায় কর্মরত সহ-সম্পাদকদের জন্য পিআইবি-সিইউজের উদ্যোগে শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে আরো একটি তিন দিনের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কর্মশালা। চট্টগ্রাম সার্কিট হাউস মিলনায়তনে তিনদিন ব্যাপী এই কর্মশালা উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।

Leave a Reply