জামায়াত নেতার স্ত্রীর আকুতি: ‘আমার স্বামীকে হত্যা করবেন না’

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : জামায়াত নেতা শামীম প্রধানকে আটকের অভিযোগ এনে এবং ২০ ঘণ্টা bogra picপরেও র‌্যাবের পক্ষ থেকে স্বীকার না করায় উদ্বেগ জানিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন তার স্ত্রী তানিয়া আক্তার। তিনি স্বামীকে ফিরে পেতে প্রধানমন্ত্রী এবং র‌্যাবের মহাপরিচালকের সহযোগিতা কামনা করে বলেন, “আপনারা আমার স্বামীকে ফিরিয়ে দিন। সে কোন অপরাধ করলে তাকে আইনের আওতায় আনুন। দয়া করে আমার স্বামীকে হত্যা করবেন না।” মঙ্গলবার বেলা ১২টায় বগুড়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জরুরি সাংবাদিক সম্মেলনে স্বামীকে ফিরে পাওয়ার আকুতি জানান তানিয়া। তানিয়া আক্তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, “আমার স্বামী গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার সাবদিন ভগবতিপুর গ্রামের মেহের আলী প্রধানের ছেলে শামীম প্রধানকে সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় বগুড়া শহরের জলেশ্বরীতলা গ্রামীণফোন কাস্টমার কেয়ার সেন্টার থেকে আটক করে র‌্যাব। খবর পেয়ে বিকেল ৫টায় আমি র‌্যাব-১২ বগুড়া ক্যাম্পে গেলে প্রথমে তারা আটকের কথা অস্বীকার করে। কান্নাকাটির পর এক পর্যায়ে জানালার ফাঁক দিয়ে একমুহূর্ত দেখার সুযোগ পাই। এরপর থেকে র‌্যাব আমার স্বামীকে আটকের কথা অস্বীকার করছে।” তিনি আরও বলেন, “প্রকাশ্যে দিনের বেলায় আমার স্বামীকে আটকের পর বগুড়া এবং গাইবান্ধা র‌্যাব ক্যাম্পে বারবার যোগাযোগ করলেও তারা আটকের কথা স্বীকার করছেন। আমি নিজের চোখে র‌্যাব ক্যাম্পে দেখার পরেও তারা অস্বীকার করছে। তানিয়া আক্তার গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, আমি আমার স্বামীকে নিয়ে চরম দু:শ্চিন্তায় আছি। আমি তার প্রাননাশের আশঙ্কা করছি। আমি আমাদের দুই বছরের ছেলের ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছি। এই অবস্থায় আমি সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী এবং র‌্যাবের মহাপরিচালকের নিকট আকুল আবেদন জানাচ্ছি আপনারা আমার স্বামীকে ফিরিয়ে দিন। সে কোন অপরাধ করলে তাকে আইনের আওতায় আনুন। দয়া করে আমার স্বামীকে হত্যা করবেন না।” উল্লেখ্য, শামীম প্রধান গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার বরিশাল ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতি। সূত্র : শীর্ষ নিউজ ডটকম

Leave a Reply