৪নং চান্দগাঁও ওয়ার্ড বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৬ জুলাই ২০১৭, বুধবার: চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহ- সভাপতি ও সাবেক কাউন্সিলর আলহাজ্ব মাহবুবুল আলম বলেন,তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার যে দুঃস্বপ্ন আওয়ামীলীগ দেখছে তা কখনো বাস্তবায়ন হবেনা।অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসে উন্নয়নের নামে যে দূরবৃত্তায়ন চলছে তাতে করে দেশবাসীর নাভিঃশ্বাস ঊর্ধে উঠেছে।গ্যাস,বিদ্যুত,পানি সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য যে হারে বাড়ছে তাতে করে সাধারণ জনগনের টিকে থাকা সম্ভব নয়।নিজেদের দূর্নীতি সমন্বয় করতে জনগনের উপর অধিক হারে কর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে।সরকারের উন্নয়নের মাহাপ্লাবনে চট্টগ্রামবাসী ভাসছে।সরকারী প্রতিষ্ঠান গুলোর মধ্যে সমন্বয় না থাকায় নগরীতে দিনদিন জলাবদ্ধতা বৃদ্ধি পাচ্ছে।নিম্নমানের কাজ করার ফলে ও জবাবদিহীতা না থাকার কারণে নগরীর রাস্তাগুলো খানাখন্দে পরিণত হয়েছে।এসকল নাগরিক সমস্যা সমাধানে সরকারের যথেষ্ট গাফিলতি রয়েছে।
তিনি আরোও বলেন,আওয়ামীলীগ কাছে গণতন্ত্র যেমন নিরাপদ নয় তেমনি তাদের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচনও সম্ভব নয়।গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে নেতাকর্মীরা গুম-হত্যা-খুন,হামলা-হামলা,গ্রেফতার-নির্যাতিত হলেও তারা রাজপথ থেকে পিছু হঠে যায়নি। তাই অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক জাতীয় নির্বাচনের জন্য দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের যে রুপরেখা দিবেন ঠিক সেইভাবে বিএনপির নেতাকর্মীরা আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি নেবে। যেকোন মূল্যে বিএনপির নেতাকর্মীরা জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে স্বৈরশাসনের অবসান ঘটিয়ে গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করবে।তিনি আজ ৪নং চান্দগাঁও ওয়ার্ড বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
সভায় বক্তারা বলেন,চান্দগাঁও আসনের সর্বশ্রদ্ধেয় নেতাকে ভুল বুঝিয়ে তার ব্যক্তিগত কর্মচারীরা তৃণমূল নেতাকর্মীদের মতামতকে উপেক্ষা করে দুইজন বিতর্কিত ব্যক্তিকে দিয়ে গত ২২শে জুলাই যে কমিটি ঘোঘণা করেছে তা ওয়ার্ডএর সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা প্রত্যাখ্যান করেছে।নিষ্ক্রিয়,অযোগ্য ব্যক্তিদ্বয় যাদের সাথে দল ও মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীদের সাথে কোন সম্পর্ক নেই, তাদের হাতে দলের দায়িত্ব দিলে দল সাংগঠনিকভাবে স্থবির হয়ে পড়বে এবং সরকার বিরোধী আন্দোলন সংগ্রামে তারা কোন কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারবেনা। অন্যদিকে যারা দীর্ঘদিন যাবত রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে হামলা- মামলা, গ্রেফতার-নির্যাতনে জর্জরিত তাদের মতন যোগ্য ওত্যাগী নেতাকর্মীরা দলের প্রতি আস্থা হারাবে।তাই তৃনমূল পর্যায়ে দলকে শক্তিশালী করতে প্রত্যেক ইউনিট এর নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে ও মতামতের ভিত্তিতে সভাপতি ওসাধারণ সম্পাদকসহ ৩৬জন কে সম্পাদক এবং ৬৫জনকে সদস্য করে ১০১জন বিশিষ্ট পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হলো। ৪নং চান্দগাঁও ওয়ার্ড বিএনপির নব নির্বাচিত সভাপতি মনজু কোম্পান্রী সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াছ আলীর সঞ্চালনায় উক্ত কর্মী সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, চান্দগাঁও থানা যুবদলের সাবেক যুগ্ম আহব্বায়ক গিয়াস উদ্দীন ভূইয়া,ওয়ার্ড বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু বকর,সহ-সভাপতি আবু নাছের জুনু,এম.বশির আহম্মদ,মনজুরুল আলম মজু,মোঃ বকতেয়ার সওঃ,নুর মোহাম্মদ,মোঃ সেলিমউদ্দিন সেলু,তাজুল ইসলাম রনি,আবু তৈয়ব,আবুল কালাম সওঃ,মোঃ বাবুল সওঃ,মোঃ মুরাদ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এ. এম. হাসেম উদ্দিন, পেয়ারু, মো: মাঈনুদ্দিন, মো: জসিম উদ্দিন, মো: আবছার,শওকত হোসেন, সিরাজুল ইসলাম, মো: আজম উদ্দীন, মো: কফিল উদ্দীন, মো: জাহাঙ্গীর, মো: আইয়ুব, মো: আনোয়ার, মো: তৈয়ব, মো: ইকবাল, মো: মনজু, ফরিদ উদ্দীন, মো: সেলিম, মো: মিজান, নাছির উদ্দিন, মো: মিজান। অন্যন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মোঃ আরেফিন,মোঃ লোকমান,মঈনুদ্দিন মহিন,শহীদুদ্দিন মাহমুদ, সেকান্দর,মো;আজম,শামশুল আলম,মোজ্জাম্মেল হক,আব্দুল মান্নান,জিয়াউদ্দিন নিপু,কামাল উদ্দিন,খোরশেদুল আলম,আবুল কালাম আজাদ সহ প্রমূখ নেতৃবৃন্দ। তৃনমূল পর্যায়ে দলকে শক্তিশালী করতে প্রত্যেক ইউনিট এর নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে ও মতামতের ভিত্তিতে সভাপতি ওসাধারণ সম্পাদকসহ ৩৬জন কে সম্পাদক এবং ৬৫জনকে সদস্য করে ১০১জন বিশিষ্ট পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হলো।
বাংলাদেশ বিস্মিল্লাহির রাহমানির রাহিম জিন্দাবাদ
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল
৪নং চান্দগাঁও ওয়ার্ড, চান্দগাঁও থানা, চট্টগ্রাম মহানগর।

সূত্র : প্রকাশের জন্য সংবাদ।
১.সভাপতি – মোহাম্মদ মনজুর আলম কোম্পানী
২.সিনিয়র সহ-সভাপতি- মোহাম্মদ আবু বকর
৩.সহ-সভাপতি- মোহাম্মদ আবু নাছির(জুনু)
৪.সহ-সভাপতি- এম. বশির আহম্মদ
৫.সহ-সভাপতি – মোঃ মঞ্জুরুল আলম মজু
৬.সহ-সভাপতি- মোঃ বকতেয়ার সওদাগর
৭.সহ-সভাপতি- নুর মোহাম্মদ
৮.সহ-সভাপতি- মোঃ সেলিম উদ্দিন (সেলু)
৯.সহ-সভাপতি- মোঃ তাজুল ইসলাম (রনি)
১০.সহ-সভাপতি- আবু তৈয়ব
১১.সহ-সভাপতি- আবুল কালাম সওঃ
১২.সহ-সভাপতি- মোঃ বাবুল সওঃ
১৩.সহ-সভাপতি- মোঃ সেলিম
১৪.সহ-সভাপতি- মোঃ মুরাদ
১৫.সাধারণ সম্পাদক – ইঞ্জিঃ এম.ইলিয়াছ আলী
১৬. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – মোঃ নুরুল আবছার
১৭.যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – মোঃ শওকত হোসেন
১৮. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – মোজাম্মেল হক (সোহেল)
১৯. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – মোঃ পেয়ারু
২০. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন
২১. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক –মোঃ আলমগীর
২২. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – মোঃ আনোয়ার
২৩. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – মোঃ ফরিদ
২৪. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – আব্দুর রহিম
২৫. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – মোঃ জুয়েল
২৬. সাংগঠনিক সম্পাদক- মোঃ জসিম উদ্দিন
২৭. সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক – মোঃ কামাল উদ্দিন
২৮. প্রচার সম্পাদক- মোঃ ফরিদুল আলম
২৯. অর্থ সম্পাদক- মোঃ মহসিন
৩০.সহ-অর্থ সম্পাদক- মোঃ মহিউদ্দিন (মহিম)
৩০.দপ্তর সম্পাদক- মোঃ আরেফিন
৩১.ধর্ম সম্পাদক- মোঃ ইয়াকুব আলী
৩২.সহ- ধর্ম সম্পাদক- মোঃ লোকমান
৩৩.ক্রীড়া সম্পাদক- মোঃ মাইনুদ্দিন (মহিন)
৩৪.সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক- শহীদউদ্দিন মাহমুদ
৩৫. তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক- মোঃ ইয়াকুব
৩৬. মৎস্য বিষয়ক সম্পাদক- মোঃ সেকান্দর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*