অধিকার হারা মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য বর্তমান সরকার কাজ করছে: আ. জ. ম. নাছির উদ্দীন

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৬ মার্চ ২০১৯ ইংরেজী, মঙ্গলবার: প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি প্রতিরোধ করা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখা, সর্বোপরি প্রজন্ম থেকে প্রজন্মকে ২৫ মার্চ’র হত্যাযজ্ঞ সম্পর্কে জানানোর দায়বদ্ধতা সবার। ২৫ মার্চ রাত ৯ টায় নগরীর দারুল ফজল মার্কেট চত্ত্বরে চট্টগ্রাম সম্মিলিত হকার্স ফেডারেশন আয়োজিত ২৫ মার্চ কালো রাত্রি এবং জাতীয় গণহত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। চট্টগ্রাম সম্মিলিত হকার্স ফেডারেশনের সভাপতি মীরন হোসেন মিলনের সভাপতিত্বে চট্টগ্রাম সম্মিলিত হকার্স ফেডারেশনের সহ-সভাপতি শাহ আলম ভূইয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ. জ. ম. নাছির উদ্দীন। সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন তার বক্তব্যে বলেন, অধিকার হারা মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য বর্তমান সরকার কাজ করছে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হচ্ছে। আগে এদেশের মানুষের অবস্থা খুব খারাপ ছিল এখন সেই অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। মানুষের এ ভাগ্যের পরিবর্তন বর্তমান সরকারের বড় সফলতা। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ। এই আড়াই বছরের মধ্যে যে রহমত বর্ষিত হতে চলছে তাহলে আগামী ২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ সফলতার দ্বারপ্রান্তে চলে যাবে। তিনি বলেন প্রাচ্যের রানী চট্টগ্রাম হবে প্রাণবন্ত শহর। নতুন নতুন পার্ক, রাস্তাঘাট, ঝকঝকে-তকতকে সবুজ শহরে পরিণত হবে চট্টগ্রাম। যথাযথ পরিকল্পনা ও উন্নয়নের মাধ্যমে চট্টগ্রামকে বিশ্বের সেরা নগরীতে পরিণত করা সম্ভব। এরজন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। আমার হকার ভাইযেরা আমার প্রাণের সম্পন্দন। তাদের দায়িত্ব আমার কাঁধে ইনশাআল্লাহ। আমি তাদেরকে দিয়ে চট্টগ্রাম সাজাব। আমি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে হকার্সদের পুনর্বাসনের পরিকল্পনাসহ প্রতিটি হকার নিয়মিত সময় ব্যবসা করে তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে সুখে শান্তিতে থাকবে এতে কোন প্রকার সন্ত্রাস, চাঁদাবাজী করতে দেয়া যাবে না। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের গঠিত হকার্সদের আইডি কার্ডসহ পবিত্র মাহে রমজান মাসে নিরলসভাবে ব্যবসা বাণিজ্য করার জন্য চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করবে। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সহসভাপতি এডভোকেট সুনীল সরকার, বাংলাদেশ জাতীয় শ্রমিকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সফর আলী। তার বক্তব্যে তিনি বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের আগামীতে যে নির্বাচন আসবে সেই নির্বাচনে হকার্সরা তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে হকার্সদের ভোট প্রদান করবেন আ. জ. ম. নাছির উদ্দীনকে। আপনি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তাদের পুনর্বানের দায়দায়িত্ব নিতে হবে। তারা পরিশ্রম করে ব্যবসা করে হালাল রুজি করে পরিবার পরিজন নিয়ে সংসার পরিচালনা করে থাকে। তাদের ব্যবসার কোন আঘাত হলে তাদের পরিবারের ছেলেমেয়ারা অনহারে অর্ধহারে মরবে। তারা সম্পূণভাবে যখন স্বাধীনভাবে ব্যবসা করতে পারে সেই দায়িত্ব কর্পোরেশনকে নিতে হবে। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী বলেন, আমরা আপনাদের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। হকার্স উচ্ছেদ করে দিয়ে আমাদের কোন লাভ নেই। কারণ আপনারা এদেশের মানুষ। আপনাদের রুটি রুজির দায়দায়িত্ব আমাদের রয়েছে। আপনারা নগরীকে সৌন্দর্য বর্ধনে কাজের সহযোগিতা করবেন। কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব বলেন, হকার্সদের পুনর্বাসনের পক্ষে আমি সর্বাত্মক আপনাদের পক্ষে অতীতেও ছিলাম ভবিষ্যতেও থাকবো। তবে নিয়মনীতি মেনে চলার জন্য আপনাদের প্রতি আমার আহবান থাকবে। কাউন্সিলর তারেক সোলায়মান সেলিম বলেন, আজ আপনারা হকার্সরা ফুটপাতে বসে স্বাধীনভাবে ব্যবসা করে পরিবার পরিজন নিয়ে শান্তিতে বসবাস করেন। আপনাদের ছেলে সন্তানেরা বিভিন্ন স্কুল কলেজ, মাদরাসা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করে এতেই আমাদের সরকারের স্বাধীনতার সফল। এতে উপস্থিত ছিলেন মহানগর যুবলীগের সাবেক প্রভাবশালী সদস্য রায়হান ইউসুফ, যুবলীগ নেতা মন্নান ফেরদৌস, চট্টগ্রাম হকার্স লীগ সভাপতি নূর আহমদ ম-ল, হারুনুর রশিদ রনি, চট্টগ্রাম মহানগর শ্রমিক লীগ নেতা কামাল উদ্দিন চৌধুরী, টেরী বাজার আন্দরকিল্লা হকার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক লেকামান হাকিম, সাবেক ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ইয়াসির আরাফাত, সিটি হকার্স লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হারুনুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, চট্টগ্রাম সম্মিলিত হকার্স ফেডারেশনের সিনিয়র সহসভাপতি নুরুল আমিন মিয়া, সহ-দপ্তর সম্পাদক মো. শাহীন আহমেদ, সহক্রীড়া সম্পাদক মো. মাসুম, প্রচার সম্পাদক মো. দুলাল, সদস্য মো. ইয়ছিন, সোহেল, রিপন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হকার্স সমিতি রেজি: নং ১৪৫৫ এর আগ্রাবাদ ৮ নং শাখা কমিটির সভাপতি মুজিবুর রহমান, ২১ নং শাখা কমিটির সহসভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, ২২ নং সবদার আলী রোড শাখার কমিটির সবাপতি আমীর হোসেন বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক মো. ইসহাক, ২৪ নং শাখা টিএন্ডটি বাজার শাখার সভাপতি মো. সেলিম, জিইসি মোড় শাখা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হকার্স সমিতির অন্তর্ভূক্ত ৬ নং ষ্টেশন রোড শাখার সভাপতি আনোয়ার হোসেন, ৫ নং শাখার কমিটির সভাপতি মো. আবদুর রহিম, সাধারণ সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন সিকদার, ফেডারেশনের অন্তর্ভূক্ত শাখা ৩ নং শাখার কমিটির সভাপতি মো. ওমর ফারুক, সাধারণ সম্পাদক মো. আলী, ২ নং শাখা কমিটির সভাপতি মো. আবুল বশর ও ৪ নং শাখা কমিটির সভাপতি শাহাব উল্লাহ ও আবুল কালাম। আরো উপস্থিত ছিলেন বাকলিয়া থানা হকার লীগ নেতৃবৃন্দ, বায়েজিদ থানা হকার লীগ নেতৃবৃন্দ, ইপিজেড থানা হকার লীগ নেতৃবৃন্দ, পতেঙ্গা থানা হকার লীগ নেতৃবৃন্দসহ সাধারণ হকার জনতা।

Leave a Reply

%d bloggers like this: