২৩ রানে শ্রীলঙ্কার জয়

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ০২ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার: বিশ্বকাপে ইতিহাস গড়া হলো না ওয়েস্ট ইন্ডিজের। ক্রিকেটের বিশ্ব মঞ্চে সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে জেতার সম্ভাবনা জাগিয়েছিল তারা নিকোলাস পুরানের অসাধারণ সেঞ্চুরিতে। কিন্তু হলো না। ৩৩৮ রানের পাহাড় গড়া শ্রীলঙ্কা চেস্টার-লি-স্ট্রিস্টের ম্যাচটি জিতে নিয়েছে ২৩ রানে।
৩৩৯ রানের লক্ষ্যে ৪৮ ওভার পর্যন্ত ম্যাচ জমিয়ে রেখেছিলেন পুরান। দারুণ বিশ্বকাপ কাটানো এই ব্যাটসম্যান তুলে নিয়েছেন এবারের আসরে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি। এটি তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারেরও প্রথম শতক। ক্যারিবিয়ানদের জয়ের স্বপ্ন দেখানো ইনিংসটি থামে তার ১১৮ রানে। ১০৩ বলে ১১ চার ও ৪ ছক্কায় সাজিয়েছেন চমৎকার ইনিংসটি। যাতে ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ করতে পেরেছে ৩১৫ রান।
পুরানের সঙ্গে আশা জাগিয়েছিলেন আট নম্বরে নামা ফ্যাবিয়েন অ্যালেন। পুরানের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট হলে শেষ হয় তার ৫১ রানে কার্যকরী ইনিংস। ৩২ বলে ৭ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কা হাঁকানো অ্যালেনের সঙ্গে পুরান অষ্টম উইকেটে গড়েন ৮৩ রানের জুটি।
এই দুই ব্যাটসম্যান ছাড়া ক্যারিবিয়ানদের আর কেউই সুবিধা করতে পারেননি। মন্থর ব্যাটিংয়ে ক্রিস গেইল ৪৮ বলে করেন যান ৩৫ রান। আরেক ওপেনার সুনিল অ্যাম্ব্রিসের ৫ রানে আউটের পর শাই হোপের ব্যাট থেকেও আসে ৫ রান। এরপর শিমরন হেটমায়ার (২৯) ও জেসন হোল্ডার (২৬) চেষ্টা করলেও যেতে পারেননি বেশিদূর। তাই পুরানের চমৎকার ইনিংসটি বৃথা গেছে।
শ্রীলঙ্কার সবচেয়ে সফল বোলার লাসিথ মালিঙ্গা। এই পেসার ৫৫ রান খরচায় নিয়েছেন ৩ উইকেট। আর একটি করে উইকেট পেয়েছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ, জেফরি ভ্যান্ডারসে ও কাসুন রাজিথা।
মাঠে নামার আগেই অবশ্য বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কার। এরপরও নিজেদের সেরাটা দিতে মুখিয়ে ছিল দলটি। ব্যাটিংয়ে তার প্রমাণও পাওয়া যায়। দেরিতে হলেও তাদের ব্যাটিং জ্বলে উঠেছিল চেস্টার-লি-স্ট্রিটে। যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অভিষ্কা ফার্নান্ডোর সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে লঙ্কানরা ৬ উইকেটে করে ৩৩৮ রান।
ওয়ান ডাউনে নেমে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন ফার্নান্ডো। তার এই উপলক্ষটা আরও রঙিন হয়েছে কারণ এবারের বিশ্বকাপে প্রথম শ্রীলঙ্কান হিসেবে সেঞ্চুরি পেয়েছেন তিনি। তার সঙ্গে কুশল পেরেরা (৬৪) ও লাহিরু থিরিমানের (৪৫*) ঝড়ো ব্যাটিংয়ে এবারের বিশ্বকাপে নিজেদের সর্বোচ্চ রানের স্কোর দাঁড় করিয়েছে ১৯৯৬ সালের চ্যাম্পিয়নরা।
বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেওয়া দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ের প্রথম অর্ধটাও হয়েছিল দারুণ। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা শ্রীলঙ্কা চমৎকার শুরু পায় ওপেনিংয়ে। দিমুথ করুণারতেœ ও কুশল পেরেরা উদ্বোধনী জুটিতে যোগ করেন ৯৪ রান। অধিনায়ক করুণারতেœ ৩২ রান করে আউট হলেও কুশল পেরেরা ৫১ বলে ৮ বাউন্ডারিতে খেলে যান ৬৪ রানের কার্যকরী ইনিংস।
তার আউটের পর কুশল মেন্ডিসকে নিয়ে ফার্নান্ডো তৃতীয় উইকেটে গড়েন ৮৫ রানের জুটি। কুশল মেন্ডিস ৩৯ রানে আউট হলেও চমৎকার ব্যাটিংয়ে ফার্নান্ডো তুলে নেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। ১০৩ বলে ৯ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায় খেলে যান তিনি ১০৪ রানে ইনিংস।
মাঝে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ ২০ বলে করে যান ২৬ রান। আর শেষ দিকে লাহিরু থিরিমানে ৩৩ বলে ৪ বান্ডারিতে হার না মানা ৪৫ রানের ইনিংস খেললে ৩৩৮ রানে শেষ হয় শ্রীলঙ্কার ইনিংস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*