২০২০ সালের মধ্যে পাকিস্তানের বিমান বহরে অন্তত ১৯০টি যুদ্ধবিমান যুক্ত হবে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক : ২৫ জুন ২০১৭,রবিবার
ভারতের সমরশক্তির সাথে পাকিস্তান যাতে মোকাবিলা করতে পারে, সেজন্য দেশটিকে আরো শক্তিশালী করতে এগিয়ে এসেছে চীন। আধুনিক যুদ্ধপ্রস্তুতির অন্যতম উপাদান যুদ্ধবিমান। এই বিমানও প্রতিনিয়ত হালনাগাদ করতে হয়।
২০২০ সালের মধ্যে পাকিস্তানের বিমান বহরে অন্তত ১৯০টি যুদ্ধবিমান পরিবর্তনের প্রয়োজন রয়েছে। আর তাই নতুন বিমান কেনার জন্য পাকিস্তান এরইমধ্যে পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছ। পাকিস্তানের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বেশ কয়েকটি দেশের সঙ্গে আলোচনা হচ্ছে। তবে বেশ কয়েকটি আধুনিক যুদ্ধবিমান কেনা হবে। তবে কোন দেশের কাছ থেকে তা নেয়া হবে তা এখনো স্থিত হয়েনি বলেই জানিয়েছেন ওই কর্মকর্তা। সম্ভবত চীন থেকেই যুদ্ধবিমানগুলি পাকিস্তান নিতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

কারণ, ইতিমধ্যে পাকিস্তানকে সামরিক দিক থেকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে চীন। আর সেলক্ষ্যে ইসলামাবাদকে সবরকম সাহায্য করছে বেইজিং। মূলত ভারতকে উদ্বেগে রাখতে নানারকমভাবে ঘুঁটি সাজাচ্ছে বেইজিং। আর সে কারণেই পাকিস্তানকে একাধিক যুদ্ধবিমান দিয়ে সাহায্য করতে পারে বলে জানা গেছে। যদিও একসঙ্গে ১৯০টি যুদ্ধবিমান পাকিস্তানকে দেবে না চীন। ধীরে ধীরে তা দিতে পারে।
সূত্র : ওয়েসসাইট

Leave a Reply

%d bloggers like this: