২০১৭ সালের এইচএসসি পরীক্ষার উত্তরপত্র উদ্ধারের ঘটনায় দুই শিক্ষককে তলব

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২৩ মে ২০১৭, মঙ্গলবার: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মন্নুজান হলের গণরুম থেকে সোমবার (২২ মে) বিকেল চলমান ২০১৭ সালের এইচএসসি পরীক্ষার ১০০ উত্তরপত্র উদ্ধারের ঘটনায় দুই শিক্ষককে তলব করে তাদের জবানবন্দি নিয়েছে রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড। এই দুই শিক্ষক হলেন- রাজশাহী নগরীরর নিউ গর্ভমেন্ট ডিগ্রি কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ ও শাহমখদুম কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক মাসুদুল হাসান। সোমবার রাতে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুণ কুমার সরকার।
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুণ কুমার সরকার বলেন, ‘তাদের (দুই শিক্ষক) শিক্ষা বোর্ড কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তাদের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি নিয়ে বিদায় করা হয়েছে। শিক্ষাবোর্ডের নিয়ম অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। একইসঙ্গে ঘটনায় একটি উচ্চ তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।’ রাজশাহীর বাইরে থাকায় শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও সচিবকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে বলেও জানান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুণ কুমার সরকার।
এদিকে, মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির বলেন, ‘এই বিষয়টি আমরা শুনেছি। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রককে উদ্ধার হওয়া খাতাগুলো হস্তান্তর করেছেন। তবে বিষয়টি আমাদের আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়নি। আমাদেরকে অবহতি করলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
উল্লেখ্য, সোমবার বিকাল ৩টার দিকে মন্নুজান হলের গণরুম থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় এইচএসসির ১০০ উত্তরপত্র পাওয়া যায়।  বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্রী গণরুমে ওই উত্তরপত্রগুলো মূল্যায়ন করতো। এবিষয়ে ওই ছাত্রীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এক বন্ধু তাকে উত্তরপত্রগুলো দিয়েছে।
সূত্র জানায়, রাজশাহী নিউ গভঃ ডিগ্রি কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ উত্তরপত্রগুলো মূল্যায়নের জন্য শাহ্ মখদুম কলেজের প্রভাষক ও এমপিথ্রি কোচিং-এর রাবি শাখার পরিচালক মাসুদুল হাসানকে দেন। মাসুদ তার কোচিং সেন্টারে কর্মরত রাবির এক ছাত্রকে দেন। ওই ছাত্র তার বান্ধবীকে উত্তরপত্রগুলো মূল্যায়নের জন্য দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*