১৯ ফেরি ও ২৮ লঞ্চ দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় যাত্রী পারাপারে

নিউজগার্ডেন ডেস্ক, ২২ জুন ২০১৭, বুধবার: পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখী যাত্রী ও যানবাহন পারাপারে রাজবাড়ী জেলার দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জ জেলার পাটুরিয়া নৌরুটে এবার ১৯টি ছোট বড় ফেরি ও ২৮টি লঞ্চ থাকছে বলে নিশ্চিত করেছে ঘাট কর্তৃপক্ষ। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ার নৌরুটে ফেরি ও লঞ্চে প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১০ হাজার ছোট বড় যানবাহন ও ২৫ হাজার মানুষ পদ্মা পাড়ি দিলেও ঈদের ছুটিতে বেড়ে যায় কয়েক গুণ।
বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো: শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দেশের দক্ষিণ- পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার যাত্রীবাহী বাস ও লোকাল ঈদযাত্রী পারাপারে ১৯টি ফেরি প্রস্তুুত রাখা হয়েছে। বর্তমানে এ রুটে বড় রো রো ১২টি ও ইউটিলিটি ৫টিসহ ১৭টি ফেরি চলছে। আগামী শুক্রবারের মধ্যে এ বহরে আরো দু’টি ফেরি যুক্ত হবে। আবহাওয়া অনুকূলে ও যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা না দিলে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।’
আলামিন শিপিং লাইন্সের ম্যানেজার এম এ সেলিম বলেন, ‘দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ও কাজীরহাট-আরিচা নৌরুটে ঈদের আগে ও পরে সাধারণ যাত্রী পারাপারে ৩৩টি লঞ্চ প্রস্তুত রয়েছে। এর মধ্যে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে চলবে প্রায় ২৮টি লঞ্চ। আর লঞ্চে পারপারে নারী, শিশু ও প্রতিবন্ধীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে। কোনো ধরনের অতিরিক্ত ভাড়া নেয়া হবে না। এত দিন যেমন ২৫ টাকা ভাড়া ছিল ঈদের সময়ও তাই থাকবে।’
এ দিকে ঈদ উপলক্ষে নদী পার হয়ে দৌলতদিয়া ঘাট থেকে দক্ষিণাঞ্চলগামী হাজার হাজার যাত্রীর নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছার জন্য জেলার বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস, থ্রি-হুইলার ও লঞ্চ মালিক সমিতির নেতাদের সাথে মতবিনিময় সভা করেছেন রাজবাড়ী জেলা পুলিশ সুপার সালমা বেগম-পিপিএম। মতবিনিময় সভায় তিনি সমিতির মালিক ও নেতাদের প্রতি নির্দেশনা দেন যেন ঈদ উপলক্ষে কোনো যানবাহনের ভাড়া অতিরিক্ত আদায় করা না হয়। যাত্রীদের হয়রানি বন্ধে জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতি অনুরোধ জানান যেন ঘাট এলাকায় কোনো ধরনের দালাল না থাকে। এ ছাড়া রাতে লঞ্চঘাটে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করার নির্দেশনা দেন তিনি। বিআইডব্লিউটিসির প্রতি বিশেষভাবে অনুরোধ জানান যেন যানবাহন পারাপারে পর্যাপ্ত ফেরি সচল থাকে।
এ ছাড়াও ঘাটে ছিনতাই, মলমপার্টি, পকেটমার বা হিজড়াদের দৌরাত্ম্য কমাতে ঘাট এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশি নজরদারির কথা জানান পুলিশ সুপার সালমা বেগম। পাশাপাশি যাত্রীদেরও সচেতন থাকার আহ্বান জানানো হয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: